প্লাস্টিকে ভরে সাতটি সদ্যোজাত কুকুরছানা ভ্যাটে ফেলে দিলেন মহিলা, সিসিটিভি ফুটেজ দেখে গ্রেফতার

পরে ওই প্লাস্টিক ব্যাগটির মধ্যে থেকে সাতটি কুকুরছানাকে উদ্ধার করা হয় বলে ফক্স নিউজের রিপোর্টে প্রকাশিত হয়েছে।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
প্লাস্টিকে ভরে সাতটি সদ্যোজাত কুকুরছানা ভ্যাটে ফেলে দিলেন মহিলা, সিসিটিভি ফুটেজ দেখে গ্রেফতার

সিসিটিভি-তে ঘটনাটি ধরা পড়েছে


হাইলাইটস

  1. কুকুরদের প্রতি নৃশংসতার জন্য এক মহিলাকে গ্রেফতার করা হয়েছে
  2. তিনি প্লাস্টিকে ভরে সাতটি কুকুরছানাকে ফেলে দিয়ে যান
  3. কুকুরগুলিকে উদ্ধার করা হয়েছে

কুকুরদের প্রতি নৃশংসতার অভিযোগে ক্যালিফোর্নিয়ায় এক মহিলাকে গ্রেফতার করা হলো। অভিযোগ, ওই মহিলা প্লাস্টিকের ব্যাগ ভর্তি অনেকগুলি কুকুরছানাকে একটি দোকানের পাশে ডাস্টবিনে ফেলে দিয়ে যান। দ্য রিভার সাইড কান্ট্রি অ্যানিমেল সার্ভিসেস নিজেদের ফেসবুক পোস্টে ঘটনাটির কথা বৃহস্পতিবার জানিয়েছে। দোকানে বসানো সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ থেকে জানা গিয়েছে, যে ওই মহিলা একটি জিপ গাড়ি করে আসেন। তার হাতে ছিল একটি প্লাস্টিকের ক্যারিব্যাগ। দেখা যায় মহিলা সোজা হেঁটে আবর্জনার ভ্যাটের কাছে আসেন এবং প্লাস্টিকটি  তার মধ্যে ফেলে দিয়ে ফের গাড়িতে উঠে ড্রাইভ করে চলে যান। পরে ওই প্লাস্টিক ব্যাগটির মধ্যে থেকে সাতটি কুকুরছানাকে উদ্ধার করা হয় বলে ফক্স নিউজের রিপোর্টে প্রকাশিত হয়েছে। সবগুলি কুকুরছানার বয়স তিন দিন এবং তারা সম্ভবত টেরিয়ার মিশ্র প্রজাতির।

‘আনন্দিততম শহর' ডেনমার্ক, তার খুশির জিওনকাঠি কী?

রিভারসাইড কান্ট্রি অ্যনিম্যাল সার্ভিসেস নিজেদের ফেসবুক পোস্টে ওই সিসিটিভি ভিডিও শেয়ার করেছেন। তারা লিখেছেন, ‘‘মহিলা চলে যাওয়ার কিছুক্ষনের মধ্যেই জন নামে এক পথচারীর চোখ যায় এই ময়লার ভ্যাটে পড়ে থাকা প্লাস্টিকের ব্যাগে। এবং তিনি বিষয়টি দোকানের গোচরে আনেন।'' রিভার সাইড কান্ট্রি অ্যানিমেল সার্ভিসেস নিজেদের পোস্টে জানিয়েছে, ‘‘ওই পথচারী এমন সহৃদয় ব্যবহার না করলে কুকুরছানাগুলি বেশিক্ষন বাঁচতো না।''

‘গোটা পৃথিবী যদি ভেগান হয়ে যায়, ‘তবে কেমন হতো তুমি বলোতো'?

ঘটনাটি দেখে সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারকারীদের অনেকেই ক্ষুব্ধ। যে মহিলা কুকুরগুলিকে ফেলে গিয়েছিলেন তার পরিচয় পরে জানা যায়। পশুদের প্রতি নৃশংসতার অভিযোগে ডেবরা সীউ কোলয়েল নামে ওই মহিলাকে গ্রেফতার করা হয়। এক ব্যক্তি ফেসবুকে লিখেছেন, ‘‘হৃদয়হীনা ডাইনীর মতো কাজ করেছেন মহিলা।'' অন্য একজন লেখেন, ‘‘প্রতিটি কুকুরছানার প্রতি নৃশংসতার জন্য মহিলার পৃথক পৃথক সাজা হওয়া উচিত।''

সকালেই ওই পশুপ্রেমী সংস্থা নিজেদের পোস্টে জানায় ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে মহিলার কে গ্রেফতার করা হয়েছে।

কুকুরছানাগুলি আপাতত উদ্ধারকারী সংস্থার নিরাপদ আশ্রয়ে নিরাপদে রয়েছে।

Click for more trending news


NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................