এটাই সময়! প্রাণী নির্যাতন রোধে কঠোর আইন প্রণয়ন হোক: অনুষ্কা শর্মা

পশুপ্রেম বিষয়ে অনুষ্কা শর্মার গভীরতা তাঁর টুইটার কিংবা ইনস্টাগ্রাম দেখলেই বোঝা যাবে। প্রাণী অধিকার রক্ষায় বরাবর সরব এই অভিনেত্রী

এটাই সময়! প্রাণী নির্যাতন রোধে কঠোর আইন প্রণয়ন হোক: অনুষ্কা শর্মা

এই ছবি শেয়ার করেছেন অনুষ্কা শর্মা। (সৌজন্য: anushkasharma)

হাইলাইটস

  • আমি অবলাদের পক্ষেই কথা বলি; জানান অনুষ্কা শর্মা
  • প্রাণী নির্যাতনে কঠোর আইন প্রণয়ন হোক। দাবি এই অভিনেত্রীর
  • আমরা প্রকৃতির রক্ষক। এটা সবাই মেনে চলুক; পরামর্শ তাঁর
মুম্বই:

প্রাণী নির্যাতন (Animal Cruelty) রোধে কড়া আইন প্রণয়নের পক্ষে সওয়াল করলেন অনুষ্কা শর্মা (Anushka Sharma)। একসপ্তাহ আগে সন্তানসম্ভবা হাতির মৃত্যু (Elephant Death in Kerala) উত্তাল হয়েছিল দেশ। কেরলের পালক্কড় জেলার সাইলেন্ট ভ্যালিতে বাজিভর্তি আনারস খেয়ে মৃত্যু হয় সেই হাতির এমনটাই অভিযোগ। সেই ঘটনার পর সপ্তাহ ঘুরতেই এনডিটিভিতে সরব হলেন অনুষ্কা। রোহিত খিলনানিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে অনুষ্কা বলেছেন; "সেই ঘটনা পড়ে আমি বাকরুদ্ধ হয়ে গিয়েছিলাম। একজনের সঙ্গে এত নৃশংস ঘটনা কীভাবে ঘটতে পারে! আমি সবসময় অবোলাদের হয়ে কথা বলেছি। মনে করি এই পৃথিবীতে সবার নিজের মতো করে থাকার অধিকার আছে।" পশুপ্রেম বিষয়ে অনুষ্কা শর্মার গভীরতা তাঁর টুইটার কিংবা ইনস্টাগ্রাম দেখলেই বোঝা যাবে। প্রাণী অধিকার রক্ষায় বরাবর সরব এই অভিনেত্রী।

তিনি বলেছেন; "এটাই সময়। মানুষকে বুঝতে হবে। চারদিকে যা ঘটছে; তা নিয়ে ভাবতে হবে। এখনই যদি মানুষ ভাবা শুরু না করে তাহলে পরিস্থিতি আরও জটিল হবে। তাই সবাইকে দায়িত্ব নিতে হবে। পৃথক ভাবে এগিয়ে আসতে হবে।"

তিনি পথ সারমেয়দের প্রসঙ্গ উল্লেখ করে বলেছেন; "আমি দেখেছি বাচ্চারা সারমেয় দেখলেই ঢিল ছোঁড়ে। এভাবেই নির্যাতন শুরু হয়। এভাবেই ওরা বড় হয়ে বড় প্রাণীদের নির্যাতন শুরু করেন। আমি বুঝি না এতে কীসের আনন্দ। এই গ্রহে সবচেয়ে সংবেদনশীল প্রাণী মানুষ। তারপরেও এই কাজ অবলাদের প্রতি কীভাবে করতে পারে।"

দেখুন সেই ভিডিও: 

Newsbeep