উত্তপ্ত ভাটপাড়ায় গেলেন অপর্ণা সেনসহ বুদ্ধিজীবীরা

অপর্ণা সেনের(Aparna Sen) সুরেই কৌশিন সেন বলেন, সন্ত্রাসের জন্য ভাটপাড়ার(Bhatpara) মানুষের “ভয়ে দিন কাটছে”।

উত্তপ্ত ভাটপাড়ায় গেলেন অপর্ণা সেনসহ বুদ্ধিজীবীরা
ভাটপাড়া:

রাজনৈতিক হিংসায় উত্তপ্ত উত্তর ২৪ পরগনার ভাটপাড়ায় বৃহস্পতিবার গেলেন চিত্র তারকা অপর্ণা সেনসহ (Aparna Sen) বুদ্ধিজীবীরা। এদিন তাঁর নেতৃত্বে ভাটপাড়া(Bhatpara) যায় বুদ্ধিজীবীদের একটি প্রতিনিধিদল। তৃণমূল কংগ্রেস এবং বিজেপির রাজনৈতিক সংঘর্ষে উত্তপ্ত ভাটপাড়ায় ঘুরে দেখেন তাঁরা। দুই দলের রাজনৈতিক সংঘর্ষ, “সাম্প্রদায়িক” সংঘর্ষে পরিণত হয়েছে বলে দাবি করলেন বুদ্ধিজীবীরা। এলাকার মানুষের কাছে শান্তিরক্ষার আবেদন জানান তাঁরা। অপর্ণা সেন বলেন, ফিরে গিয়ে ভাটপাড়ার (Bhatpara) সামগ্রিক পরিস্থিতি নিয়ে রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠী এবং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে একটি স্মারকলিপি দেবেন তিনি। ২০ জুন উত্তর ২৪ পরগনার ভাটপাড়ায় দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষে (Bhatpara Clash), ২ জনের মৃত্যু হয় এবং আহত হন ১১ জন।

গুড়াপে “জয় শ্রীরাম” স্লোগানকে কেন্দ্র করে ধুন্ধুমার, পুলিশের গুলি, আহত ১

যে দুই গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষকে (Bhatpara Clash) কেন্দ্র করে ভাটপাড়া উত্তপ্ত হয়ে ওঠে, সেদুটি তৃণমূল কংগ্রেস এবং বিজেপি অনুমদিত বলে মনে করা হচ্ছে। বৃহস্পতিবার পদযাত্রা করে কাঁকিনাড়া থেকে ভাটপাড়ায় (Bhatpara) যান অপর্ণা সেন, কৌশিক সেন, চন্দন সেনসহ অন্যান্যরা। স্থানীয় বাসিন্দাদের সঙ্গে কথা বলেন তাঁরা। ২০ জুন মৃত্যু হওয়া ধর্মবীর সাউয়ের পরিবারের সঙ্গেও কথা বলেন বু্দ্ধিজীবীরা।

স্বাভাবিক হচ্ছে ভাটপাড়া, তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষের ঘটনায় এখনও পর্যন্ত গ্রেফতার ৮

অপর্ণা সেন(Aparna Sen) বলেন, “পরিস্থিতি নিয়ে রাজ্যপালের পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রীকেও একটি স্মারকলিপি দেব আমরা। এখানে দুই দলের সংঘর্ষ সাম্প্রদায়িক আকার নিয়েছে। এমনটা আগে ছিল না”। তিনি আরও বলেন, “লোকসভা নির্বাচনের সময় থেকে সংঘর্ষে জড়িয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস ও বিজেপি। মানুষকে এর মাধ্যমেই মেরুকরণ করা হয়েছে। তবে এটা গ্রহণযোগ্য নয়”।

অপর্ণা সেনের(Aparna Sen) সুরেই কৌশিন সেন বলেন, সন্ত্রাসের জন্য ভাটপাড়ার(Bhatpara) মানুষের “ভয়ে দিন কাটছে”।

ফের অশান্ত ভাটপাড়া! বিজেপির প্রতিনিধি দল পরিস্থিতি দেখতে যাওয়ার পরেই সংঘর্ষ

ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রের মধ্যে রয়েছে ভাটপাড়া, কাঁকিনাড়া, জগদ্দল এলাকা। সদ্য সমাপ্ত লোকসভা নির্বাচনে ব্যারাকপুর কেন্দ্রে তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী দিনেশ ত্রিবেদীকে হারিয়ে সেখানে পদ্মফুল ফুটিয়েছেন অর্জুন সিং। লোকসভা নির্বাচনের সময় থেকেই রাজনৈতিক সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে এলাকা।

ভাটপাড়া(Bhatpara) এলাকাটি দীর্ঘদিন ধরেই তৃণমূলের গড় বলে পরিচিত। তবে ভোটের পর থেকেই রাজনৈতিক সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে এলাকা। অর্জুন সিং, তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদানের পর থেকেই ভাটপাড়ায় রাজনৈতিক সংঘর্ষ চরমে ওঠে।

চলতি মাসেই জুনিয়র চিকিৎসকদের আন্দোলনর সময়েও এনআরএস হাসপাতালে যান অপর্ণা সেনসহ অন্যান্য বু্দ্ধিজীবীরা। চিকিৎসকদের বিক্ষোভ, ধর্মঘটের ফলে অচলাবস্থা তৈরি হয়েছিল রাজ্যের চিকিৎসা পরিষেবায়।

More News