Bengal Violence


'Bengal Violence' - 33 News Result(s)

  • কাঁকিনাড়ায় হিংসার জন্য দায়ী অর্জুন সিং, বলল পুলিশ

    কাঁকিনাড়ায় হিংসার জন্য দায়ী অর্জুন সিং, বলল পুলিশ

    উত্তর ২৪ পরগনার কাঁকিনাড়ার হিংসা, শান্তি বিঘ্নিত করতে “পুরোপুরি পরিকল্পিত” বলে সোমবার এমনটাই দাবি করল পুলিশ, পাশাপাশি পুলিশ কর্মীদের ওপর হামলার পিছনে বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিংকেই দায়ী করল তারা। রবিবার উত্তর ২৪ পরগনার শ্যামনগরে দলীয় কার্যলয় দখলকে কেন্দ্র করে হিংসা ছড়িয়ে পড়ে।

  • হাসপাতালে অর্জুন সিং-কে দেখতে গিয়ে আইনশৃঙ্খলা নিয়ে প্রশ্ন তুললেন রাজ্যপাল

    হাসপাতালে অর্জুন সিং-কে দেখতে গিয়ে আইনশৃঙ্খলা নিয়ে প্রশ্ন তুললেন রাজ্যপাল

    রবিবার কাঁকিনাড়ায় সংঘর্ষে আহত বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং-কে (Arjun Singh) দেখতে গেলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড় (Jagdeep Dhankar)। সোমবার সকালে ব্যারাকপুরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিজেপি সাংসদকে দেখতে যান তিনি। সেখানেই রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে প্রশ্ন তোলেন রাজ্যপাল।

  • মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জমানায় রাজ্যে রাজনৈতিক হত্যা, “হতবাক” সুষমা স্বরাজ

    মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জমানায় রাজ্যে রাজনৈতিক হত্যা, “হতবাক” সুষমা স্বরাজ

    রাজ্যে রাজনৈতিক হিংসা নিয়ে “বিস্ময়” প্রকাশ করলেন প্রাক্তন বিদেশমন্ত্রী তথা বিজেপি নেত্রী সুষমা স্বরাজ। বুধবার প্রাক্তন বিদেশমন্ত্রী বলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেই যেখানে “রাজনৈতিক হিংসার শিকার”, সেখানে তাঁর জমানায় পশ্চিমবঙ্গে রাজনৈতিক হিংসার ঘটনায় তিনি “হতবাক”।

  • সংসদে বারবার বাংলায় রাজনৈতিক হিংসা নিয়ে প্রশ্নে আপত্তি জানাল তৃণমূল

    সংসদে বারবার বাংলায় রাজনৈতিক হিংসা নিয়ে প্রশ্নে আপত্তি জানাল তৃণমূল

    সংসদে বারবার পশ্চিমবঙ্গে রাজনৈতিক হিংসা নিয়ে প্রশ্ন তোলায় আপত্তি জানাল রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস। এতে সংসদের নিয়ম লঙ্ঘন করার অভিযোগ তুলে তৃণমূল কংগ্রসের প্রশ্ন, কেন বারবার রাজ্য সরকারকে “টার্গেট” করা হচ্ছে ? বিষয়টি নিয়ে লোকসভার অধ্যক্ষ ওম বিড়লা এবং রাজ্যসভার চেয়ারম্যান বেঙ্কাইয়া নাইডুকে চিঠি দিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। লোকসভার অধ্যক্ষ ওম বিড়লাকে লেখা চিঠিতে তৃণমূল সাংসদ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় অভিযোগ করেন, ৪১(xiii) –এ লোকসভায় প্রশ্নের গ্রহণযোগ্যতা সম্পর্কিত পদ্ধতি এবং পরিচালনা করার নিয়ম লঙ্ঘিত হয়েছে। ৪১ ধারা অনুযায়ী, “উত্তর দেওয়া কোনও প্রশ্ন দ্বিতীয়বার করা যায় না”।

  • হিংসায় উত্তপ্ত কাঁকিনাড়া, বিপর্যস্ত ট্রেন চলাচল

    হিংসায় উত্তপ্ত কাঁকিনাড়া, বিপর্যস্ত ট্রেন চলাচল

    হিংসায় উত্তপ্ত উত্তর ২৪ পরগনার কাঁকিনাড়া। অশান্তির জেরে ব্যারাকপুর-নৈহাটি শাখায়ট্রেন চলাচল ব্যাহত বলে জানিয়েছেন পূর্ব রেলের এক আধিকারিক। সোমবার সকালে এলাকায় বোমাবাজি করে দুষ্কৃতীরা। যার জেরে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। এলাকায় অশান্তি নিয়ন্ত্রণ করতে মোতায়েন করা হয় রাফ।এক আধিকারিক জানিয়েছেন, এদিন সকাল ৯.০৫টা নাগাদ কাঁকিনাড়া স্টেশনে রেল অবরোধ করে একটি গোষ্ঠী। যার জেরে দু ঘন্টা বন্ধ থাকে ট্রেন চলাচল।

  • উত্তপ্ত ভাটপাড়ায় গেলেন অপর্ণা সেনসহ বুদ্ধিজীবীরা

    উত্তপ্ত ভাটপাড়ায় গেলেন অপর্ণা সেনসহ বুদ্ধিজীবীরা

    রাজনৈতিক হিংসায় উত্তপ্ত উত্তর ২৪ পরগনার ভাটপাড়ায় বৃহস্পতিবার গেলেন চিত্র তারকা অপর্ণা সেনসহ (Aparna Sen) বুদ্ধিজীবীরা। এদিন তাঁর নেতৃত্বে ভাটপাড়া(Bhatpara) যায় বুদ্ধিজীবীদের একটি প্রতিনিধিদল। তৃণমূল কংগ্রেস এবং বিজেপির রাজনৈতিক সংঘর্ষে উত্তপ্ত ভাটপাড়ায় ঘুরে দেখেন তাঁরা। দুই দলের রাজনৈতিক সংঘর্ষ, “সাম্প্রদায়িক” সংঘর্ষে পরিণত হয়েছে বলে দাবি করলেন বুদ্ধিজীবীরা। এলাকার মানুষের কাছে শান্তিরক্ষার আবেদন জানান তাঁরা। অপর্ণা সেন বলেন, ফিরে গিয়ে ভাটপাড়ার (Bhatpara) সামগ্রিক পরিস্থিতি নিয়ে রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠী এবং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে একটি স্মারকলিপি দেবেন তিনি। ২০ জুন উত্তর ২৪ পরগনার ভাটপাড়ায় দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষে (Bhatpara Clash), ২ জনের মৃত্যু হয় এবং আহত হন ১১ জন।

  • স্বাভাবিক হচ্ছে ভাটপাড়া, তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষের ঘটনায় এখনও পর্যন্ত গ্রেফতার ৮

    স্বাভাবিক হচ্ছে ভাটপাড়া, তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষের ঘটনায় এখনও পর্যন্ত গ্রেফতার ৮

    ক্রমশই স্বাভাবিক হচ্ছে উত্তর ২৪ পরগনার ভাটপাড়ার (Bhatpara) পরিস্থিতি। গত সপ্তাহে রাজনৈতিক হিংসার জেরে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে ওই অঞ্চল। ঘটনার তদন্তে নেমে ইতিমধ্যেই ৮ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানা গেছে। সোমবার ভাটপাড়ায় (Bhatpara) খুলেছে বিদ্যালয়, স্বাভাবিক হয়েছে গণ পরিবহনও ব্যবস্থাও। তবে এলাকার শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখতে ব্যারাকপুরের পুলিশ কমিশনার মনোজ কুমার বর্মার নেতৃত্বে চলে রুটমার্চ।  পাশাপাশি বিভিন্ন বিদ্যালয় সংলগ্ন এলাকার নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে সেখানেও টহল  দিয়েছে পুলিশ বাহিনী।পুলিশ কমিশনার মনোজ কুমার বর্মা বলেন, “আমরা ইতিমধ্যেই ৮ জনকে গ্রেফতার করেছি, রবিবার ৬০ টি দেশি বোমাও উদ্ধার করেছি। পরিস্থিতি ক্রমশই স্বাভাবিক হচ্ছে, বন্ধ বিদ্যালয়গুলি খোলা হয়েছে এবং বাস চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে”।

  • "তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতী"দের হাতেই খুন দলের দুই কর্মী, অভিযোগ সিপিআইএমের

    "তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতী"দের হাতেই খুন দলের দুই কর্মী, অভিযোগ সিপিআইএমের

    উত্তর ২৪ পরগনার আমডাঙ্গা ও দক্ষিণ ২৪ পরগনার মথুরাপুরে দলের দুই কর্মীকে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরাই খুন করেছে বলে অভিযোগ করল সিপিআইএম। পাশাপাশি এর পিছনে প্রশাসনেরও প্রচ্ছন্ন মদত রয়েছে বলেও অভিযোগ তাদের। ২২ জুন, উত্তর ২৪ পরগনার আমডাঙ্গায় খুন হন তাজিমুল করিম।সেই রাতেই, দক্ষিণ ২৪ পরগনার মথুরাপুরে নিজামুদ্দিনমণ্ডল নামে আরেক বামফ্রন্ট কর্মীকে পযেন্ট ব্ল্যাঙ্ক রেঞ্জ থেকে গুলি করে খুন করা হয়।সিপিআইএমের পলিটব্যুরোর এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “দলের সক্রিয় কর্মী তাজিমুল করিমকে খুনের হুমকি দিয়ে, দীর্ঘদিন বাড়ি ছেড়ে থাকতে বাধ্য করা হয়েছিল”।

  • পুলিশের গুলিতে আহত দলের দুই কর্মী ও এক কিশোর, অভিযোগ বিজেপির

    পুলিশের গুলিতে আহত দলের দুই কর্মী ও এক কিশোর, অভিযোগ বিজেপির

    বাঁকুড়ায় রাজনৈতিক সংঘর্ষে পুলিশের গুলিতে তাদের দলের দুই কর্মী এবং একজন নাবালক আহত হয়েছে বলে অভিযোগ করল রাজ্য বিজেপি (BJP)। গেরুয়া শিবিরের নেতাদের দাবি, শনিবার বাঁকুড়ার পাত্রসায়রে শুভেন্ধু আধিকারির সভা থেকে বাড়ি ফিরছিলেন তৃণমূল (TMC) কর্মীরা। সেই সময় তাঁদের সামনেই “জয় শ্রী রাম” স্লোগান দেন তিনজন। আর তাতেই তৃণমূল কর্মীদের সঙ্গে বিজেপির সংঘর্ষের সূত্রপাত। এরপরেই দুই দলের মধ্যে সংঘর্ষ বাঁধে। বিজেপির (BJP) অভিযোগ ভিড় হঠাতে গুলি চালিয়েছে পুলিশ। যদিও সেই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস (TMC)  এবং পুলিশ। এক পুলিশ আধিকারিক বলেন, “আমাদের কর্মীদের  লক্ষ্য করে পাথর ছোঁড়া শুরু হওয়ায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আমরা লাঠিচার্জ করি এবং কাঁদানে গ্যাসের সেল ফাটাই”।

  • পুলিশের গুলিতেই বৃহস্পতিবার মৃত্যু হয় ২ জনের, দাবি বিজেপির

    পুলিশের গুলিতেই বৃহস্পতিবার মৃত্যু হয় ২ জনের,  দাবি বিজেপির

    শনিবার উত্তর ২৪ পরগনার ভাটপাড়ার (Bhatpara) পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে সেখানে যায় বিজেপির (BJP) ৩ সদস্যের প্রতিনিধি দল। বৃহস্পতিবার দুই গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষ চলাকালীন পুলিশের গুলিতেই মৃত্যু হয়েছে ২ জনের, বলে দাবি করে গেরুয়া প্রতিনিধি দলটি। প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা বিজেপি সাংসদ আলহুওয়ালিয়ার নেতৃত্বে ওই প্রতিনিধি দলে ছিলেন আরও ২ সদস্য, সাংসদ সত্যপাল সিং, বি ডি রাম সহ বিজেপির রাজ্য নেতৃত্ব।“আমরা মৃত ও আহতদের পরিবার এবং স্থানীয় লোকজনের সঙ্গে কথা বলে দেখেছি।আমরা পুলিশের ব্যবহৃত স্বয়ংক্রিয় রাইফেলের বুলেটের অংশবিশেষও পেয়েছি। এই ঘটনা প্রমাণ করছে যে বৃহস্পতিবার বিজেপি কর্মীদের মারতেই গুলি চালিয়েছিল পুলিশ”,অভিযোগ আলুয়ালিয়ার।

  • উত্তপ্ত ভাটপাড়ায় যাচ্ছে বিজেপির প্রতিনিধি দল

    উত্তপ্ত ভাটপাড়ায় যাচ্ছে বিজেপির প্রতিনিধি দল

    রাজনৈতিক সংঘর্ষে বৃহস্পতিবার উত্তপ্ত হয়ে উঠেছিল উত্তর ২৪ পরগনার ভাটপাড়া। ঘটনায় এক কিশোরসহ দুজনের মৃত্যু হয় এবং অনেকেই আহত হন। সেখানকার সামগ্রিক পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে শনিবার সুরিন্দর সিং আলুয়ালিয়ার নেতৃত্বে তিনজনের প্রতিনিধি দল পাঠানো হবে বলে জানাল বিজেপি। দলের জাতীয় সম্পাদক কৈলাশ বিজয়বর্গীয়কে উদ্ধৃত করে সংবাদসংস্থা পিটিআই জানিয়েছে, “এসএস আলুয়ালিয়াসহ প্রতিনিধি দলে থাকবেন সত্যপাল সিং, বিডি রাম, তাঁদের সঙ্গে থাকবেন রাজ্য নেতারা”। দলীয় সূত্রের দাবি, তিনজনের প্রতিনিধি দল ভাটপাড়ার সামগ্রিক পরিস্থিতি খতিয়ে দেবে একটি রিপোর্ট তৈরি করবে এবং তা তুলে দেওয়া হবে, বিজেপি সভাপতি তথা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের হাতে।

  • ভাটপাড়ায় নিষেধাজ্ঞার মধ্যেই কাকিনাড়ায় বোমাবাজি, এলাকায় উত্তেজনা

    ভাটপাড়ায় নিষেধাজ্ঞার মধ্যেই  কাকিনাড়ায় বোমাবাজি, এলাকায় উত্তেজনা

    বৃহস্পতিবার ভাটপাড়ায় রাজনৈতিক সংঘর্ষের পর শুক্রবার ফের উত্তপ্ত  উত্তর ২৪ পরগনার কাকিনাড়া (Kankinara)। এলাকায় পুলিশি টহলদারি ও কড়া নিষেধাজ্ঞার ঘেরাটোপ এড়িয়ে দুই অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তি বোমা ছুঁড়ে চম্পট দিল। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, দুই দুষ্কৃতী বাইকে করে এসে হঠাত্ই ঐ এলাকায় বোমা ছোঁড়ে ও পালিয়ে যায়। যখন এই ঘটনা ঘটে তখন এলাকার দোকান বাজার বন্ধ থাকায় এলাকা অনেকটাই শুনশান ছিল। স্থানীয়দের অভিযোগ, প্রশাসনের কড়া নির্দেশিকা থাকা সত্ত্বেও সেভাবে পুলিশি টহলদারি নজরে আসেনি তাঁদের, তার জেরেই ফের এই বোমাবাজির ঘটনা।

  • উত্তপ্ত ভাটপাড়ায় জারি করা হল ১৪৪ ধারা

    উত্তপ্ত ভাটপাড়ায় জারি করা হল ১৪৪ ধারা

    রাজনৈতিক সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে ওঠায় উত্তর ২৪ পরগনার ভাটপাড়া(Bhatpara), জগদ্দল এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করল প্রশাসন। রাজ্যের স্বরাষ্ট্রসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “ভাটপাড়ায় সক্রিয় কিছু সমাজবিরোধী এবং দুষ্কৃতী। তাদের সঙ্গে যোগ দিয়েছে বহিরাগতরা, তারা এলাকায় শান্তি বিঘ্নিত করছে। এলাকায় মোতায়েন করা হয়েছে র‍্যাফ”।  ব্যারাকপুর কমিশনারেটের এলাকাগুলি, বিশেষ করে ভাটপাড়া. বিশেষ  নজর রাখছে রাজ্য সরকার। ভাটপাড়া (Bhatpara) বিধানসভা উপনির্বাচনের পর ১৯ মে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে উত্তর ২৪ পরগনার ভাটপাড়া। রাজ্য সরকারের পদস্থ আধিকারিক জানিয়েছেন, ব্যারাকপুর কমিশনারেটের বিশেষ কিছু দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে দক্ষিণবঙ্গের এডিজি সঞ্জয় সিংকে।

  • ভাটপাড়ায় হিংসা, অশান্তির বলি ২, অমিত শাহের দ্বারস্থ হচ্ছে বিজেপি: ১০টি তথ্য

    ভাটপাড়ায় হিংসা, অশান্তির বলি ২, অমিত শাহের দ্বারস্থ হচ্ছে বিজেপি: ১০টি তথ্য

    ফের রক্তাক্ত বাংলা বৃহস্পতিবার ফের রাজনৈতিক হিংসার বলি হতে হল দুইজনকে, আহত আরও তিনজন।কলকাতা থেকে ৩০ কিমি দূরে ভাটপাড়ায় ঘটল ঐ হিংসার ঘটনা।লোকসভা নির্বাচন চলাকালীন এই ভাটপাড়াই উঠে এসেছিল সংবাদের শিরোনামে।কী কারণে এই হানাহানি, তা এখনও স্পষ্ট না হলেও স্থানীয় সূত্রে খবর, এই হিংসার ঘটনার সময় বোমাবাজির পাশাপাশি চালানো হয় গুলিও। পরিস্থিতি সামাল দিতে কাঁদানে গ্যাস ছোঁড়ে পুলিশ, কারও কারও মতে শূন্যে গুলিও ছোঁড়ে তাঁরা। এর আগে লাগাতার রাজনৈতিক হিংসার ঘটনায় রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা রক্ষার প্রশ্নে কেন্দ্র নিশানা করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে(MAMATA BANERJEE), কেন্দ্রীয় চাপের মুখে থাকা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী(CM) এদিনের ঘটনার পর এলাকায় বৃহত্তর সমাবেশে নিষেধাজ্ঞা জারির নির্দেশ দিয়েছেন। বিরোধী দল বিজেপি (BJP) ভাটপাড়ার হিংসার ঘটনায় তৃণমূল কংগ্রেসকেই (TMC) অভিযোগের কাঠগড়ায় তুলেছে। পাশাপাশি এই ঘটনার বিস্তারিত রিপোর্ট কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে(AMIT SHAH) পাঠাতে চলেছে তাঁরা।

  • রাজ্যে রাজনৈতিক হিংসা, দুই জেলায় সংঘর্ষে মৃত ১

    রাজ্যে রাজনৈতিক হিংসা, দুই জেলায় সংঘর্ষে মৃত ১

    রাজ্যে ভোট পরবর্তী হিংসা অব্যাহত। সন্দেশখালির ঘটনা নিয়ে রাজ্যের রাজনৈতিক মহলে এখনও উত্তেজনা রয়েছে, তারমধ্যেই, হুগলিতে রাজনৈতিক সংঘর্ষে একজনের  মৃত্যু হয়েছে, এবং কয়েকজনের ওপর রড, বাঁশ, দিয়ে হামলা চালানো হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে। পুলিশের তরফে আরও জানানো হয়েছে, শনিবারের ঘটনায় এখনও পর্যন্ত মোট ৮জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। হুগলির খানাকুল পঞ্চায়েত সমিতির তৃণমূল (TMC) সদস্য মনোরঞ্জন পাত্র দলীয় কার্যালয়ের বাইরে বসেছিলেন, সেই সময় তাঁর ওপর হামলা চালানো হয়। হামলায় মৃত্যু হয় মনরঞ্জন পাত্রের, এমনটাই জানিয়েছে পুলিশ। হুগলি জেলা পুলিশ সুপার সুখেন্দু হিরা সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে, কয়েকজন বিজেপি (BJP) সমর্থককে গ্রেফতার করা হয়েছে।

'Bengal Violence' - 33 News Result(s)

  • কাঁকিনাড়ায় হিংসার জন্য দায়ী অর্জুন সিং, বলল পুলিশ

    কাঁকিনাড়ায় হিংসার জন্য দায়ী অর্জুন সিং, বলল পুলিশ

    উত্তর ২৪ পরগনার কাঁকিনাড়ার হিংসা, শান্তি বিঘ্নিত করতে “পুরোপুরি পরিকল্পিত” বলে সোমবার এমনটাই দাবি করল পুলিশ, পাশাপাশি পুলিশ কর্মীদের ওপর হামলার পিছনে বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিংকেই দায়ী করল তারা। রবিবার উত্তর ২৪ পরগনার শ্যামনগরে দলীয় কার্যলয় দখলকে কেন্দ্র করে হিংসা ছড়িয়ে পড়ে।

  • হাসপাতালে অর্জুন সিং-কে দেখতে গিয়ে আইনশৃঙ্খলা নিয়ে প্রশ্ন তুললেন রাজ্যপাল

    হাসপাতালে অর্জুন সিং-কে দেখতে গিয়ে আইনশৃঙ্খলা নিয়ে প্রশ্ন তুললেন রাজ্যপাল

    রবিবার কাঁকিনাড়ায় সংঘর্ষে আহত বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং-কে (Arjun Singh) দেখতে গেলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড় (Jagdeep Dhankar)। সোমবার সকালে ব্যারাকপুরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিজেপি সাংসদকে দেখতে যান তিনি। সেখানেই রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে প্রশ্ন তোলেন রাজ্যপাল।

  • মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জমানায় রাজ্যে রাজনৈতিক হত্যা, “হতবাক” সুষমা স্বরাজ

    মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জমানায় রাজ্যে রাজনৈতিক হত্যা, “হতবাক” সুষমা স্বরাজ

    রাজ্যে রাজনৈতিক হিংসা নিয়ে “বিস্ময়” প্রকাশ করলেন প্রাক্তন বিদেশমন্ত্রী তথা বিজেপি নেত্রী সুষমা স্বরাজ। বুধবার প্রাক্তন বিদেশমন্ত্রী বলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেই যেখানে “রাজনৈতিক হিংসার শিকার”, সেখানে তাঁর জমানায় পশ্চিমবঙ্গে রাজনৈতিক হিংসার ঘটনায় তিনি “হতবাক”।

  • সংসদে বারবার বাংলায় রাজনৈতিক হিংসা নিয়ে প্রশ্নে আপত্তি জানাল তৃণমূল

    সংসদে বারবার বাংলায় রাজনৈতিক হিংসা নিয়ে প্রশ্নে আপত্তি জানাল তৃণমূল

    সংসদে বারবার পশ্চিমবঙ্গে রাজনৈতিক হিংসা নিয়ে প্রশ্ন তোলায় আপত্তি জানাল রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস। এতে সংসদের নিয়ম লঙ্ঘন করার অভিযোগ তুলে তৃণমূল কংগ্রসের প্রশ্ন, কেন বারবার রাজ্য সরকারকে “টার্গেট” করা হচ্ছে ? বিষয়টি নিয়ে লোকসভার অধ্যক্ষ ওম বিড়লা এবং রাজ্যসভার চেয়ারম্যান বেঙ্কাইয়া নাইডুকে চিঠি দিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। লোকসভার অধ্যক্ষ ওম বিড়লাকে লেখা চিঠিতে তৃণমূল সাংসদ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় অভিযোগ করেন, ৪১(xiii) –এ লোকসভায় প্রশ্নের গ্রহণযোগ্যতা সম্পর্কিত পদ্ধতি এবং পরিচালনা করার নিয়ম লঙ্ঘিত হয়েছে। ৪১ ধারা অনুযায়ী, “উত্তর দেওয়া কোনও প্রশ্ন দ্বিতীয়বার করা যায় না”।

  • হিংসায় উত্তপ্ত কাঁকিনাড়া, বিপর্যস্ত ট্রেন চলাচল

    হিংসায় উত্তপ্ত কাঁকিনাড়া, বিপর্যস্ত ট্রেন চলাচল

    হিংসায় উত্তপ্ত উত্তর ২৪ পরগনার কাঁকিনাড়া। অশান্তির জেরে ব্যারাকপুর-নৈহাটি শাখায়ট্রেন চলাচল ব্যাহত বলে জানিয়েছেন পূর্ব রেলের এক আধিকারিক। সোমবার সকালে এলাকায় বোমাবাজি করে দুষ্কৃতীরা। যার জেরে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। এলাকায় অশান্তি নিয়ন্ত্রণ করতে মোতায়েন করা হয় রাফ।এক আধিকারিক জানিয়েছেন, এদিন সকাল ৯.০৫টা নাগাদ কাঁকিনাড়া স্টেশনে রেল অবরোধ করে একটি গোষ্ঠী। যার জেরে দু ঘন্টা বন্ধ থাকে ট্রেন চলাচল।

  • উত্তপ্ত ভাটপাড়ায় গেলেন অপর্ণা সেনসহ বুদ্ধিজীবীরা

    উত্তপ্ত ভাটপাড়ায় গেলেন অপর্ণা সেনসহ বুদ্ধিজীবীরা

    রাজনৈতিক হিংসায় উত্তপ্ত উত্তর ২৪ পরগনার ভাটপাড়ায় বৃহস্পতিবার গেলেন চিত্র তারকা অপর্ণা সেনসহ (Aparna Sen) বুদ্ধিজীবীরা। এদিন তাঁর নেতৃত্বে ভাটপাড়া(Bhatpara) যায় বুদ্ধিজীবীদের একটি প্রতিনিধিদল। তৃণমূল কংগ্রেস এবং বিজেপির রাজনৈতিক সংঘর্ষে উত্তপ্ত ভাটপাড়ায় ঘুরে দেখেন তাঁরা। দুই দলের রাজনৈতিক সংঘর্ষ, “সাম্প্রদায়িক” সংঘর্ষে পরিণত হয়েছে বলে দাবি করলেন বুদ্ধিজীবীরা। এলাকার মানুষের কাছে শান্তিরক্ষার আবেদন জানান তাঁরা। অপর্ণা সেন বলেন, ফিরে গিয়ে ভাটপাড়ার (Bhatpara) সামগ্রিক পরিস্থিতি নিয়ে রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠী এবং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে একটি স্মারকলিপি দেবেন তিনি। ২০ জুন উত্তর ২৪ পরগনার ভাটপাড়ায় দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষে (Bhatpara Clash), ২ জনের মৃত্যু হয় এবং আহত হন ১১ জন।

  • স্বাভাবিক হচ্ছে ভাটপাড়া, তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষের ঘটনায় এখনও পর্যন্ত গ্রেফতার ৮

    স্বাভাবিক হচ্ছে ভাটপাড়া, তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষের ঘটনায় এখনও পর্যন্ত গ্রেফতার ৮

    ক্রমশই স্বাভাবিক হচ্ছে উত্তর ২৪ পরগনার ভাটপাড়ার (Bhatpara) পরিস্থিতি। গত সপ্তাহে রাজনৈতিক হিংসার জেরে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে ওই অঞ্চল। ঘটনার তদন্তে নেমে ইতিমধ্যেই ৮ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানা গেছে। সোমবার ভাটপাড়ায় (Bhatpara) খুলেছে বিদ্যালয়, স্বাভাবিক হয়েছে গণ পরিবহনও ব্যবস্থাও। তবে এলাকার শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখতে ব্যারাকপুরের পুলিশ কমিশনার মনোজ কুমার বর্মার নেতৃত্বে চলে রুটমার্চ।  পাশাপাশি বিভিন্ন বিদ্যালয় সংলগ্ন এলাকার নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে সেখানেও টহল  দিয়েছে পুলিশ বাহিনী।পুলিশ কমিশনার মনোজ কুমার বর্মা বলেন, “আমরা ইতিমধ্যেই ৮ জনকে গ্রেফতার করেছি, রবিবার ৬০ টি দেশি বোমাও উদ্ধার করেছি। পরিস্থিতি ক্রমশই স্বাভাবিক হচ্ছে, বন্ধ বিদ্যালয়গুলি খোলা হয়েছে এবং বাস চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে”।

  • "তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতী"দের হাতেই খুন দলের দুই কর্মী, অভিযোগ সিপিআইএমের

    "তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতী"দের হাতেই খুন দলের দুই কর্মী, অভিযোগ সিপিআইএমের

    উত্তর ২৪ পরগনার আমডাঙ্গা ও দক্ষিণ ২৪ পরগনার মথুরাপুরে দলের দুই কর্মীকে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরাই খুন করেছে বলে অভিযোগ করল সিপিআইএম। পাশাপাশি এর পিছনে প্রশাসনেরও প্রচ্ছন্ন মদত রয়েছে বলেও অভিযোগ তাদের। ২২ জুন, উত্তর ২৪ পরগনার আমডাঙ্গায় খুন হন তাজিমুল করিম।সেই রাতেই, দক্ষিণ ২৪ পরগনার মথুরাপুরে নিজামুদ্দিনমণ্ডল নামে আরেক বামফ্রন্ট কর্মীকে পযেন্ট ব্ল্যাঙ্ক রেঞ্জ থেকে গুলি করে খুন করা হয়।সিপিআইএমের পলিটব্যুরোর এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “দলের সক্রিয় কর্মী তাজিমুল করিমকে খুনের হুমকি দিয়ে, দীর্ঘদিন বাড়ি ছেড়ে থাকতে বাধ্য করা হয়েছিল”।

  • পুলিশের গুলিতে আহত দলের দুই কর্মী ও এক কিশোর, অভিযোগ বিজেপির

    পুলিশের গুলিতে আহত দলের দুই কর্মী ও এক কিশোর, অভিযোগ বিজেপির

    বাঁকুড়ায় রাজনৈতিক সংঘর্ষে পুলিশের গুলিতে তাদের দলের দুই কর্মী এবং একজন নাবালক আহত হয়েছে বলে অভিযোগ করল রাজ্য বিজেপি (BJP)। গেরুয়া শিবিরের নেতাদের দাবি, শনিবার বাঁকুড়ার পাত্রসায়রে শুভেন্ধু আধিকারির সভা থেকে বাড়ি ফিরছিলেন তৃণমূল (TMC) কর্মীরা। সেই সময় তাঁদের সামনেই “জয় শ্রী রাম” স্লোগান দেন তিনজন। আর তাতেই তৃণমূল কর্মীদের সঙ্গে বিজেপির সংঘর্ষের সূত্রপাত। এরপরেই দুই দলের মধ্যে সংঘর্ষ বাঁধে। বিজেপির (BJP) অভিযোগ ভিড় হঠাতে গুলি চালিয়েছে পুলিশ। যদিও সেই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস (TMC)  এবং পুলিশ। এক পুলিশ আধিকারিক বলেন, “আমাদের কর্মীদের  লক্ষ্য করে পাথর ছোঁড়া শুরু হওয়ায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আমরা লাঠিচার্জ করি এবং কাঁদানে গ্যাসের সেল ফাটাই”।

  • পুলিশের গুলিতেই বৃহস্পতিবার মৃত্যু হয় ২ জনের, দাবি বিজেপির

    পুলিশের গুলিতেই বৃহস্পতিবার মৃত্যু হয় ২ জনের,  দাবি বিজেপির

    শনিবার উত্তর ২৪ পরগনার ভাটপাড়ার (Bhatpara) পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে সেখানে যায় বিজেপির (BJP) ৩ সদস্যের প্রতিনিধি দল। বৃহস্পতিবার দুই গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষ চলাকালীন পুলিশের গুলিতেই মৃত্যু হয়েছে ২ জনের, বলে দাবি করে গেরুয়া প্রতিনিধি দলটি। প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা বিজেপি সাংসদ আলহুওয়ালিয়ার নেতৃত্বে ওই প্রতিনিধি দলে ছিলেন আরও ২ সদস্য, সাংসদ সত্যপাল সিং, বি ডি রাম সহ বিজেপির রাজ্য নেতৃত্ব।“আমরা মৃত ও আহতদের পরিবার এবং স্থানীয় লোকজনের সঙ্গে কথা বলে দেখেছি।আমরা পুলিশের ব্যবহৃত স্বয়ংক্রিয় রাইফেলের বুলেটের অংশবিশেষও পেয়েছি। এই ঘটনা প্রমাণ করছে যে বৃহস্পতিবার বিজেপি কর্মীদের মারতেই গুলি চালিয়েছিল পুলিশ”,অভিযোগ আলুয়ালিয়ার।

  • উত্তপ্ত ভাটপাড়ায় যাচ্ছে বিজেপির প্রতিনিধি দল

    উত্তপ্ত ভাটপাড়ায় যাচ্ছে বিজেপির প্রতিনিধি দল

    রাজনৈতিক সংঘর্ষে বৃহস্পতিবার উত্তপ্ত হয়ে উঠেছিল উত্তর ২৪ পরগনার ভাটপাড়া। ঘটনায় এক কিশোরসহ দুজনের মৃত্যু হয় এবং অনেকেই আহত হন। সেখানকার সামগ্রিক পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে শনিবার সুরিন্দর সিং আলুয়ালিয়ার নেতৃত্বে তিনজনের প্রতিনিধি দল পাঠানো হবে বলে জানাল বিজেপি। দলের জাতীয় সম্পাদক কৈলাশ বিজয়বর্গীয়কে উদ্ধৃত করে সংবাদসংস্থা পিটিআই জানিয়েছে, “এসএস আলুয়ালিয়াসহ প্রতিনিধি দলে থাকবেন সত্যপাল সিং, বিডি রাম, তাঁদের সঙ্গে থাকবেন রাজ্য নেতারা”। দলীয় সূত্রের দাবি, তিনজনের প্রতিনিধি দল ভাটপাড়ার সামগ্রিক পরিস্থিতি খতিয়ে দেবে একটি রিপোর্ট তৈরি করবে এবং তা তুলে দেওয়া হবে, বিজেপি সভাপতি তথা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের হাতে।

  • ভাটপাড়ায় নিষেধাজ্ঞার মধ্যেই কাকিনাড়ায় বোমাবাজি, এলাকায় উত্তেজনা

    ভাটপাড়ায় নিষেধাজ্ঞার মধ্যেই  কাকিনাড়ায় বোমাবাজি, এলাকায় উত্তেজনা

    বৃহস্পতিবার ভাটপাড়ায় রাজনৈতিক সংঘর্ষের পর শুক্রবার ফের উত্তপ্ত  উত্তর ২৪ পরগনার কাকিনাড়া (Kankinara)। এলাকায় পুলিশি টহলদারি ও কড়া নিষেধাজ্ঞার ঘেরাটোপ এড়িয়ে দুই অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তি বোমা ছুঁড়ে চম্পট দিল। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, দুই দুষ্কৃতী বাইকে করে এসে হঠাত্ই ঐ এলাকায় বোমা ছোঁড়ে ও পালিয়ে যায়। যখন এই ঘটনা ঘটে তখন এলাকার দোকান বাজার বন্ধ থাকায় এলাকা অনেকটাই শুনশান ছিল। স্থানীয়দের অভিযোগ, প্রশাসনের কড়া নির্দেশিকা থাকা সত্ত্বেও সেভাবে পুলিশি টহলদারি নজরে আসেনি তাঁদের, তার জেরেই ফের এই বোমাবাজির ঘটনা।

  • উত্তপ্ত ভাটপাড়ায় জারি করা হল ১৪৪ ধারা

    উত্তপ্ত ভাটপাড়ায় জারি করা হল ১৪৪ ধারা

    রাজনৈতিক সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে ওঠায় উত্তর ২৪ পরগনার ভাটপাড়া(Bhatpara), জগদ্দল এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করল প্রশাসন। রাজ্যের স্বরাষ্ট্রসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “ভাটপাড়ায় সক্রিয় কিছু সমাজবিরোধী এবং দুষ্কৃতী। তাদের সঙ্গে যোগ দিয়েছে বহিরাগতরা, তারা এলাকায় শান্তি বিঘ্নিত করছে। এলাকায় মোতায়েন করা হয়েছে র‍্যাফ”।  ব্যারাকপুর কমিশনারেটের এলাকাগুলি, বিশেষ করে ভাটপাড়া. বিশেষ  নজর রাখছে রাজ্য সরকার। ভাটপাড়া (Bhatpara) বিধানসভা উপনির্বাচনের পর ১৯ মে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে উত্তর ২৪ পরগনার ভাটপাড়া। রাজ্য সরকারের পদস্থ আধিকারিক জানিয়েছেন, ব্যারাকপুর কমিশনারেটের বিশেষ কিছু দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে দক্ষিণবঙ্গের এডিজি সঞ্জয় সিংকে।

  • ভাটপাড়ায় হিংসা, অশান্তির বলি ২, অমিত শাহের দ্বারস্থ হচ্ছে বিজেপি: ১০টি তথ্য

    ভাটপাড়ায় হিংসা, অশান্তির বলি ২, অমিত শাহের দ্বারস্থ হচ্ছে বিজেপি: ১০টি তথ্য

    ফের রক্তাক্ত বাংলা বৃহস্পতিবার ফের রাজনৈতিক হিংসার বলি হতে হল দুইজনকে, আহত আরও তিনজন।কলকাতা থেকে ৩০ কিমি দূরে ভাটপাড়ায় ঘটল ঐ হিংসার ঘটনা।লোকসভা নির্বাচন চলাকালীন এই ভাটপাড়াই উঠে এসেছিল সংবাদের শিরোনামে।কী কারণে এই হানাহানি, তা এখনও স্পষ্ট না হলেও স্থানীয় সূত্রে খবর, এই হিংসার ঘটনার সময় বোমাবাজির পাশাপাশি চালানো হয় গুলিও। পরিস্থিতি সামাল দিতে কাঁদানে গ্যাস ছোঁড়ে পুলিশ, কারও কারও মতে শূন্যে গুলিও ছোঁড়ে তাঁরা। এর আগে লাগাতার রাজনৈতিক হিংসার ঘটনায় রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা রক্ষার প্রশ্নে কেন্দ্র নিশানা করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে(MAMATA BANERJEE), কেন্দ্রীয় চাপের মুখে থাকা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী(CM) এদিনের ঘটনার পর এলাকায় বৃহত্তর সমাবেশে নিষেধাজ্ঞা জারির নির্দেশ দিয়েছেন। বিরোধী দল বিজেপি (BJP) ভাটপাড়ার হিংসার ঘটনায় তৃণমূল কংগ্রেসকেই (TMC) অভিযোগের কাঠগড়ায় তুলেছে। পাশাপাশি এই ঘটনার বিস্তারিত রিপোর্ট কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে(AMIT SHAH) পাঠাতে চলেছে তাঁরা।

  • রাজ্যে রাজনৈতিক হিংসা, দুই জেলায় সংঘর্ষে মৃত ১

    রাজ্যে রাজনৈতিক হিংসা, দুই জেলায় সংঘর্ষে মৃত ১

    রাজ্যে ভোট পরবর্তী হিংসা অব্যাহত। সন্দেশখালির ঘটনা নিয়ে রাজ্যের রাজনৈতিক মহলে এখনও উত্তেজনা রয়েছে, তারমধ্যেই, হুগলিতে রাজনৈতিক সংঘর্ষে একজনের  মৃত্যু হয়েছে, এবং কয়েকজনের ওপর রড, বাঁশ, দিয়ে হামলা চালানো হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে। পুলিশের তরফে আরও জানানো হয়েছে, শনিবারের ঘটনায় এখনও পর্যন্ত মোট ৮জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। হুগলির খানাকুল পঞ্চায়েত সমিতির তৃণমূল (TMC) সদস্য মনোরঞ্জন পাত্র দলীয় কার্যালয়ের বাইরে বসেছিলেন, সেই সময় তাঁর ওপর হামলা চালানো হয়। হামলায় মৃত্যু হয় মনরঞ্জন পাত্রের, এমনটাই জানিয়েছে পুলিশ। হুগলি জেলা পুলিশ সুপার সুখেন্দু হিরা সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে, কয়েকজন বিজেপি (BJP) সমর্থককে গ্রেফতার করা হয়েছে।

Your search did not match any documents
A few suggestions
  • Make sure all words are spelled correctly
  • Try different keywords
  • Try more general keywords
Check the NDTV Archives:https://archives.ndtv.com

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................