৯ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ কলকাতা হাইকোর্ট সহ সারা রাজ্যের আদালত

তবে ১ এপ্রিল ও ৮ এপ্রিল হাইকোর্টের একটি ডিভিশন বেঞ্চ ও দু’টি সিঙ্গল বেঞ্চে বিশেষ আদালত বসবে।

৯ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ কলকাতা হাইকোর্ট সহ সারা রাজ্যের আদালত

মঙ্গলবার হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি টিবিএন রাধাকৃষ্ণণ এই নির্দেশ দেন।

হাইলাইটস

  • ২৫ মার্চ থেকে ৯ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ থাকবে আদালতগুলি
  • মঙ্গলবার প্রধান বিচারপতি টিবিএন রাধাকৃষ্ণণ এই নির্দেশ দেন
  • তবে ১ এপ্রিল ও ৮ এপ্রিল বসে বিশেষ আদালত

করোনা (Coronavirus) সংক্রমণ রুখতে লকডাউন (Lock Down) জারি গোটা রাজ্যে। এই পরিস্থিতিতে কলকাতা হাইকোর্ট (Calcutta High Court) সহ রাজ্যের আদালতগুলি বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হল। ২৫ মার্চ থেকে ৯ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ থাকবে আদালতগুলি। মঙ্গলবার হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি টিবিএন রাধাকৃষ্ণণ এই নির্দেশ দেন। তবে ১ এপ্রিল ও ৮ এপ্রিল হাইকোর্টের একটি ডিভিশন বেঞ্চ ও দু'টি সিঙ্গল বেঞ্চে বিশেষ আদালত বসবে। প্রধান বিচারপতির নির্দেশ প্রসঙ্গে রেজিস্ট্রার জেনারেল রাই চট্টোপাধ্যায় বলেন, লকডাউনের পরিস্থিতিতে আদালতের কাজ চালানো কঠিন হয়ে পড়েছে। সেই কারণেই প্রধান বিচারপতি এই নির্দেশ দিয়েছেন।

জেলা আদালতগুলি ও বাণিজ্য আদালতও এই ক'দিন বন্ধ থাকবে। সংশ্লিষ্ট জেলা আদালত ও দায়রা আদালতের বিচারপতিদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে ম্যাজিস্ট্রেটদের জন্য একটি রোস্টার নির্মাণের জন্য।

সিপিকে নিয়ে শহরের হাসপাতালগুলোর আইসোলেসন সেন্টার ঘুরে দেখলেন মুখ্যমন্ত্রী

গত ১৫ মার্চ থেকে কলকাতা হাইকোর্ট ও তার সার্কিট বেঞ্চ, রাজ্য ও আন্দামান নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের নিম্ন আদালতগুলিতে কেবল বিশেষ মামলাগুলিরই শুনানি হচ্ছিল করোনা আতঙ্কের আবহে। রাজ্যের বহু আইনজীবীই শুনানির সময় আদালতে উপস্থিত হচ্ছিলেন না। রাজ্যের বার কাউন্সিল জানিয়ে দিয়েছিল ৩১ মার্চ পর্যন্ত তারা কোনও আইনি বিচারব্যবস্থায় অংশ নেবে না।

Newsbeep

Coronavirus: করোনা থেকে বাঁচতে মেনে চলুন পাঁচ পরামর্শ, জানাচ্ছে ‘হু'

আগামী ১ ও ৮ এপ্রিল বিচারপতি দীপঙ্কর দত্ত ও জয়মাল্য বাগচির ডিভিশন বেঞ্চ অত্য‌ন্ত গুরুত্বপূর্ণ দেওয়ানি মামলার শুনানিতে উপস্থিত থাকবেন।

এদিকে বিচারপতি সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের সিঙ্গল বেঞ্চেও অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ দেওয়ানি মামলার শুনানি হবে। 
পাশাপাশি বিচারপতি আইপি মুখোপাধ্যায়ের বেঞ্চে শুনানি হবে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ফৌজদারি মামলার। 
এদিকে ২৫ মার্চ থেকে ৯ এপ্রিল পর্যন্ত পোর্টব্লেয়ার ও জলপাইগুড়ির সার্কিট বেঞ্চের শুনানি বন্ধ থাকবে।



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)