করোনা ও আমফান দুর্গতদের পাশে দাঁড়ানো শিক্ষকদের 'শিক্ষারত্ন' দেওয়ার ভাবনা

Siksha Ratna: ৫ সেপ্টেম্বর পশ্চিমবঙ্গের ৪০ জন শিক্ষককে এই সম্মান প্রদান করবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়

করোনা ও আমফান দুর্গতদের পাশে দাঁড়ানো শিক্ষকদের 'শিক্ষারত্ন' দেওয়ার ভাবনা

হাইলাইটস

  • রাজ্যের ৪০ জন শিক্ষককে 'শিক্ষারত্ন' সম্মানে ভূষিত করা হবে
  • ৫ সেপ্টেম্বর ওই পুরস্কার তিলে দেওয়া হবে শিক্ষকদের হাতে
  • করোনা ও আমফান পরিস্থিতিতে শিক্ষকদের ভূমিকাও বিবেচনা করা হচ্ছে এক্ষেত্রে
কলকাতা:

পশ্চিমবঙ্গ সরকার (West Bengal) আগামী ৫ সেপ্টেম্বর শিক্ষক দিবস উপলক্ষে 'শিক্ষারত্ন' প্রদান করবে। তবে এবার শিক্ষারত্ন (Siksha Ratna) হিসাবে শিক্ষকদের বেছে নেওয়ার ক্ষেত্রে বড় ভূমিকা নেবে ঘূর্ণিঝড় আমফান (Cyclone Amphan) এবং করোনা (Coronavirus) ভাইরাস। সরকারের তরফ থেকে একটি বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, আমফান ও করোনা লকডাউন পরিস্থিতিতে শিক্ষকদের ভূমিকা, তাঁদের অনলাইন ছাত্রছাত্রীদের পড়ানো এবং সাংস্কৃতিক চর্চা চালানোর জন্যে পড়ুয়াদের অনুপ্রাণিত করার বিষয়গুলো বিবেচনা করে বেছে নেওয়া হবে 'শিক্ষারত্ন' । তবে পাশাপাশি এবার "শিক্ষারত্ন বাছাইয়ের সময় কোভিড-১৯ লকডাউন এবং ঘূর্ণিঝড় আমফানে অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ এলাকার মানুষদের পাশে যে শিক্ষকরা ত্রাতার ভূমিকায় গিয়ে দাঁড়িয়েছিলেন তাঁদের নামও ওই সম্মানের ক্ষেত্রে বিবেচনা করা হবে।"

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে রেকর্ড করোনা সংক্রমণ ও মৃত্যু

সরকারি তরফে জানানো হয়েছে, কমপক্ষে ২০ বছরের অভিজ্ঞতা সম্পন্ন শিক্ষকরাই অবশ্য এই সম্মানের যোগ্য হতে পারবেন। আশা করা হচ্ছে আগামী ৫ সেপ্টেম্বর প্রাথমিক, মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও মাদ্রাসা থেকে পশ্চিমবঙ্গের মোট ৪০ জন শিক্ষককে এই সম্মান প্রদান করবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

এত বছর তাঁবুতে কাটিয়েছেন, এখন থেকে মন্দিরে থাকবেন প্রভু রাম: প্রধানমন্ত্রী

"এই সম্মান পাওয়ার যোগ্য হিসাবে যাঁরা শিক্ষাক্ষেত্রে অসাধারণ অবদান রেখেছেন তাঁদের পাশাপাশি যাঁরা কোভিড -১৯ মহামারি এবং ঘূর্ণিঝড় আমফানের সময় দুর্গতদের পাশে ত্রাণ নিয়ে দাঁড়িয়েছেন তাঁদের নামও বিবেচনা করা হবে। ত্রাণ সাহায্য বিতরণ, অনলাইন এবং বা অন্যান্য পদ্ধতির মাধ্যমে শিক্ষাদান সহ শিক্ষকের সক্রিয় অবদানের স্বীকৃতি দেওয়া হবে", সরকারি তরফে জারি করা ওই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে একথা।

আগ্রহী শিক্ষকদের  ১০ অগাস্টের মধ্যে একটি বিশেষ পোর্টালের মাধ্যমে অনলাইনে আবেদন করতে হবে । ওই আবেদনকারীদের পুলিশ ভেরিভিকেশনের পরে, শিক্ষা দফতর ৪০ জন শিক্ষারত্নের একটি তালিকা প্রস্তুত করবে।