This Article is From Mar 31, 2019

রক্ষাকর্তাই খুনি! মন্দিরের মধ্যে প্রেমিক প্রেমিকাকে গুলি করে খুন পুলিশের, কারণ?

Sai Upvan, Ghaziabad: মৃত দু’জনের নাম প্রীতি ও সুরেন্দ্র। সাঁই উপবনে (Sai Upwan) একটি মন্দিরের মধ্যে পাওয়া যায় তাঁদের দেহ।

রক্ষাকর্তাই খুনি! মন্দিরের মধ্যে প্রেমিক প্রেমিকাকে গুলি করে খুন পুলিশের, কারণ?

গাজিয়াবাদে একটি মন্দিরের মধ্যে দিল্লি পুলিশের একজন পুলিশ ওই প্রেমিক জুটিকে গুলি করে হত্যা করেছে

গাজিয়াবাদ:

মন্দিরের মধ্যে গুলি করে প্রেমিক প্রেমিকাকে খুন করার অভিযোগে গ্রেফতার খোদ পুলিশই! গাজিয়াবাদে একটি মন্দিরের মধ্যে দিল্লি পুলিশের একজন পুলিশ ওই প্রেমিক জুটিকে গুলি করে হত্যা করেছে বলে পুলিশ জানিয়েছে। দিল্লি ট্রাফিক পুলিশের (Delhi Traffic Police) অ্যাসিস্ট্যান্ট সাব ইন্সপেক্টর দিনেশ ও তার সহযোগী পিন্টুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পুলিশ জানিয়েছে, মৃত দু'জনের নাম প্রীতি ও সুরেন্দ্র। সাঁই উপবনে (Sai Upwan) একটি মন্দিরের মধ্যে পাওয়া যায় তাঁদের দেহ। পুলিশের কথায়, প্রীতির সঙ্গে আগে সম্পর্ক ছিল দিনেশের। প্রীতি সম্পর্ক ভাঙায় প্রতিশোধ নিতে এই খুন। 

"বারাণসী থেকে নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে ভোটে দাঁড়াব", বললেন বরখাস্ত জওয়ান

ডিআইজি উপেন্দ্র আগরওয়াল বলেন, মেয়েটির বাবা প্রমোদ কুমার দিনেশের বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। প্রীতি ও দিনেশের মধ্যে আগে প্রেমের সম্পর্ক ছিল একথা জানতে পারায় পুলিশও প্রধান সন্দেহভাজন দিনেশের নামই তালিকায় নিশ্চিত করে। পরে, পুলিশ সিসিটিভি ফুটেজ পরীক্ষা করে এবং ওই এলাকায় ইলেকট্রনিক নজরদারিও জারি রাখে।

এক সপ্তাহ আগেই, প্রীতি তাঁর মোবাইল নম্বর বদল করে নেয় বলে পুলিশ সূত্রের খবর। এর পরেই সে দিনেশের সঙ্গে দেখা করা বন্ধ করে দেয় বলে জানিয়েছেন পুলিশ কর্মকর্তারা। সুরেন্দ্র ও প্রীতির সম্পর্ক জানতে পারার পর, দিনেশ তাঁদের খুন করার পরিকল্পনা করেছিল বলে জানিয়েছে পুলিশ। 

এত গাড়ি কেন? 'হাম দো, হামারে দো' মেনে চলুন, বলল সুপ্রিম কোর্ট

গত ২৫ মার্চ, সাঁই উপবনে সাঁই মন্দিরে যাচ্ছিলেন সুরেন্দ্র ও প্রীতি। দিনেশ ও তাঁর বন্ধু পিন্টু মন্দির যাওয়ার পথে ওই দম্পতির গাড়িটিকে অনুসরণ করেন। মন্দির থেকে সুরেন্দ্র ও প্রীতি যখন বেরিয়ে আসেন তখন দিনেশের সঙ্গে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় হয়। কথা কাটাকাটির পরেই রেগে দিনেশ তাঁদের লক্ষ্য করে নিজের সার্ভিস পিস্তল থেকে গুলি চালিয়ে দেয় বলে পুলিশ সূত্রের খবর।

পুলিশ অভিযুক্তের কাছ থেকে তাঁর ৯ মিমি সার্ভিস পিস্তল, তিনটি তাজা কার্তুজ এবং অপরাধে ব্যবহৃত গাড়িটি উদ্ধার করেছে।



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)