This Article is From Jul 06, 2020

বব কাটে নজর কাড়ছে সুন্দরী হস্তিনী, চুল ঠিক রাখতে দিনে ৩ বার শ্যাম্পু!

Bob Cut Sengamalam: গরমকালে দিনে কম করে ৩ বার এবং অন্যান্য ঋতুতে দিনে একবার স্নান করানো হয় সেঙ্গামালামকে, নিয়মিত পরিচর্যা ও খাতিরযত্নেই থাকে হস্তিনীটি

বব কাটে নজর কাড়ছে সুন্দরী হস্তিনী, চুল ঠিক রাখতে দিনে ৩ বার শ্যাম্পু!

Rajagopalaswamy Temple Elephant: তামিলনাড়ুর এই হস্তিনীর নাম সেঙ্গামালাম, বব কাট চুলের জন্য বিখ্যাত সে

হাইলাইটস

  • কেরল থেকে তামিলনাড়ুতে নিয়ে আসা হয় এই হস্তিনীকে
  • সেখানে রাজাগোপালাস্বামী মন্দিরের আশ্রিতা হাতিটি
  • তার অনবদ্য হেয়ার স্টাইলের জন্যে সকলের নজর কাড়ে সেঙ্গামালাম

হেয়ার স্টাইলে কি আর শুধুমাত্র চলচ্চিত্রের নায়ক-নায়িকারাই নজর কাড়তে পারেন? বলিউডি স্টাইলকে গুণে গুণে কম করে ১০ গোল দিতে পারে সেঙ্গামালাম। কী ভাবছেন? সেঙ্গামালাম কোনও দক্ষিণী ছবির নায়িকার নাম? আরে না না, সেঙ্গামালাম আসলে একজন হস্তিনী, যে থাকে মান্নারগুড়ি শহরের রাজগোপালাস্বামী মন্দিরে (Rajagopalaswamy Temple Elephant)। নিজের বব কাট হেয়ারস্টাইলে ইতিমধ্যেই ইন্টারনেটে অসংখ্য অনুরাগী জোগাড় করে ফেলেছে সে। মান্নাই অনলাইনের তথ্য অনুসারে, ২০০৩ সালে সেঙ্গামালামকে কেরল থেকে তামিলনাড়ুর (Tamil Nadu) রাজাগোপালাস্বামী মন্দিরে নিয়ে আসেন তার মাহুত এস রাজাগোপাল। হস্তিনীর সুন্দর চুলের (Bob Cut Sengamalam) নেপথ্যে রয়েছে তাঁরই হাতযশ ও নিয়মিত পরিচর্যা।

১৯১৮ তে স্প্যানিশ ফ্লু আর এখন করোনা, যুদ্ধে অপরাজেয় ১০৬ বছরের বৃদ্ধ

বব কাট চুলের স্টাইল সহ সুন্দরী সেঙ্গামালামের ছবি তাই মুহূর্তে ভাইরাল হয়ে যায় নেট দুনিয়ায়।

সেঙ্গামালামের ছবিতে ১০,০০০ এরও বেশি লাইক পড়েছে। কেউ কেউ আবার ওই হস্তিনীর সঙ্গে তাঁর দেখা হওয়ার অভিজ্ঞতাও সকলের সঙ্গে ভাগ করে নিয়েছেন।

পরবেন নাকি সোনার মাস্ক? আটকাবে রোগ, হবে স্টাইল, দাম মাত্র লাখ তিনেক!

"সেঙ্গামালাম আমার কাছে আমার সন্তানের মতো। আমি চেয়েছিলাম যাতে ওর এমন একটি বিশেষ চেহারা হোক যাতে সবার নজর কাড়তে পারে সে", ২০১৮ সালে টাইমস অফ ইন্ডিয়াকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে একথা বলেন সবসময় ওই হস্তিনীর সঙ্গে থাকা তার মাহুত রাজাগোপাল।  "একবার আমি ইন্টারনেটে একটি ভিডিওতে একটি হাতির বাচ্চাকে ওরকম দেখেছিলাম। আর তারপর থেকেই, আমি সেঙ্গামালামের চুল বাড়াতে শুরু করি"। তবে হ্যাঁ, তিনি একথাও স্বীকার করে নিয়েছেন, হাতিটির শান্ত এবং বন্ধুত্বপূর্ণ প্রকৃতির কারণেই তার চুলে ওরকম বব কাট করা সম্ভব হয়েছিল।

বব-কাট সেঙ্গামালামকে যেই দেখে সেই যেন তার প্রেমে পড়ে যায়। রাজাগোপালাস্বামী মন্দির দর্শনে যাওয়া দর্শনার্থীরা তার সঙ্গে দেখা করতে ভুল করেন না কখনোই। প্রায়ই সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করা হয় সুন্দরী হস্তিনীর ছবি।

গরমকালে দিনে কম করে ৩ বার এবং অন্যান্য ঋতুতে দিনে একবার স্নান করানো হয় সেঙ্গামালামকে, নিয়মিত পরিচর্যা ও খাতিরযত্নেই থাকে হস্তিনীটি। প্রচণ্ড গরমে যাতে কষ্ট না পায় সেঙ্গামালাম, তার জন্যে তাকে স্নান করাতে ৪৫,০০০ টাকা ব্যয়ে একটি বিশেষ ঝরনাও লাগিয়েছে মন্দির কর্তৃপক্ষ।

Click for more trending news