আজ ফের সিবিআইয়ের জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হলেন রিয়া চক্রবর্তী

Sushant Singh Rajput death case: সুশান্তের মৃত্যুর পিছনে কী রহস্য আছে তা খতিয়ে দেখতে কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা সিবিআইকে অনুমতি দেয় সুপ্রিম কোর্ট

আজ ফের সিবিআইয়ের জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হলেন রিয়া চক্রবর্তী

Rhea Chakraborty: রিয়ার বিরুদ্ধে সুশান্তকে বিষ খাইয়ে মেরে ফেলার অভিযোগ তুলেছেন অভিনেতার বাবা

মুম্বই:

সুশান্ত রাজপুতের অস্বাভাবিক মৃত্যুর তদন্তের (Sushant Singh Rajput death case) পরিপ্রেক্ষিতে আজ (শনিবার) ফের সিবিআইয়ের জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হলেন রিয়া চক্রবর্তী। গতকাল অর্থাৎ শুক্রবার প্রথম রিয়া (Rhea Chakraborty) মুখোমুখি হন কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থার (CBI) প্রশ্নের, জানা গেছে প্রায় ১০ ঘণ্টা তাঁকে নানা প্রশ্ন করেন সিবিআইয়ের তদন্তকারী আধিকারিকরা। তবে শনিবার রিয়া দুপুর দেড়টা নাগাদ মুম্বইয়ের ডিআরডিও গেস্ট হাউসে পৌঁছন, এখানেই আপাতত রয়েছেন সিবিআইয়ের আধিকারিকরা। শুক্রবারও এই ডিআরডিও গেস্ট হাউসেই জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় তাঁকে। যদিও রিয়ার সকাল সাড়ে ১০ টায় হাজিরা দেওয়ার কথা ছিল, তবে তিনি কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থার কাছ থেকে কিছুটা সময় চেয়ে নেন কারণ সংবাদমাধ্যমকর্মীদের ভিড় তাঁর বাড়ির দরজায় সামনে জড়ো হওয়ায় বেরোনোর পথ প্রায় অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছিলো। অভিনেত্রী এই সময় মুম্বই পুলিশের কাছে সহায়তা চান এবং তাঁকে এসকর্ট করে বাড়ি থেকে বের করে আনা হয়।

গত ১৪ জুন বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতকে (Sushant Singh Rajput) তাঁর বান্দ্রার বাড়িতে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায়। তাঁর মৃত্যুর মাত্র ৬ দিন আগে গত একবছর ধরে সুশান্তের সঙ্গে লিভ টুগেদার করা রিয়া ওই বাড়ি ছেড়ে চলে যান। তারপরেই নানা ভাবে সন্দেহের তির ঘোরাফেরা করছে রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে। শুক্রবার যখন সিবিআইয়ের তলবে রিয়া তদন্তকারী সংস্থার আধিকারিকদের সামনে উপস্থিত হন তখন তাঁকে সুশান্ত রাজপুত এবং তার পরিবারের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ককে কেন্দ্র করে নানা প্রশ্ন করা হয়। কেন হঠাৎ তিনি সুশান্তের বাড়ি ছেড়ে চলে গেলেন এবং চলে যাওয়ার পরে তাঁর সঙ্গে রিয়ার কোনও যোগাযোগ হয় কিনা করা হয় এধরণের প্রশ্নও।

২৮ বছর বয়সী অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে সুশান্ত সিং রাজপুতকে মানসিকভাবে হয়রানি করা, তাঁর টাকাপয়সা হাতিয়ে নেওয়া এবং তাঁকে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার মতো মারাত্মক অভিযোগ এনেছে মৃত অভিনেতার পরিবার।

গত সপ্তাহে সুপ্রিম কোর্টের কাছ থেকে কেন্দ্রীয় তদন্তের ব্যাপারে সবুজ সংকেত পাওয়ার পরেই তদন্ত শুরু করে সিবিআই। এর আগে বিহার পুলিশের কাছে সুশান্তের পরিবার রিয়া চক্রবর্তী, তাঁর বাবা-মা এবং ভাই শৌভিকের বিরুদ্ধে যে এফআইআর দায়ের করেছিলো তার ভিত্তিতেই তদন্ত শুরু করেছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থাটি।

Newsbeep

রিয়াকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরুর আগে অভিনেত্রীর বাবা ও ভাইকেও জিজ্ঞাসাবাদ করেছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। সিবিআই আধিকারিকরা ৭ দিন ধরে জিজ্ঞাসাবাদ করেছেন সুশান্তের বন্ধু সিদ্ধার্থ পিঠানিকেও, নানা প্রশ্ন করা হয়েছে সুশান্তের বাড়ির রাঁধুনিকেও।

বৃহস্পতিবার রিয়া চক্রবর্তী একাধিক কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থার চাপে তাঁর ও তাঁর পরিবারকে যে অসহনীয় মানসিক নির্যাতনের মধ্য়ে দিয়ে যেতে হচ্ছে সেসম্পর্কে সংবাদমাধ্যমকেও জানিয়েছিলেন। ওই অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে বর্তমানে সিবিআই, এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট এবং মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ ব্যুরো বা এনসিবি তদন্ত করছে।

ইডি কোটি কোটি টাকার "সন্দেহজনক আর্থিক লেনদেন" সংক্রান্ত বিষয়গুলো খতিয়ে দেখছে, অন্যদিকে এনসিবি রিয়া চক্রবর্তীর ফোন থেকে পাওয়া হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাটের সূত্র ধরে মাদক-সম্পর্কিত অভিযোগের তদন্ত করছে।