গত দু'দিন প্রায় ১৫ ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ রিয়াকে! রবিবারও সিবিআই হাজিরা অভিনেত্রীর

শনিবার বেলা প্রায় দেড়টা নাগাদ সান্তাক্রুজের ডিআরডিও গেস্ট হাউসে পৌঁছন রিয়া। রাত নয়টা নাগাদ ভাইকে সঙ্গে নিয়ে তাঁকে বেরোতে দেখা গিয়েছে

তিনটি কেন্দ্রীয় সংস্থা রিয়ার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগের তদন্ত করছে।

মুম্বই:

শুক্রবার ও শনিবারের পর রবিবারেও মুম্বইয়ের ডিআরডিও অফিসে হাজিরা দেবেন রিয়া চক্রবর্তী। এই অফিসেই সিবিআই সুশান্ত সিং মৃত্যু রহস্যের তদন্তে প্রত্যক্ষদর্শীদের জবানবন্দি রেকর্ড ডাকা হচ্ছে। জানা গিয়েছে, দুই দিন মিলিয়ে মোট ১৫ ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে এই অভিনেত্রী-সহ তাঁর ভাই শৌভিক চক্রবর্তীকে। এদিকে, রিয়ার আর্জি মেনে যাতায়াতের পথে তাঁকে পুলিশি নিরাপত্তা দিতে মুম্বই পুলিশকে অনুরোধ করেছে সিবিআই। শনিবার বেলা প্রায় দেড়টা নাগাদ সান্তাক্রুজের ডিআরডিও গেস্ট হাউসে পৌঁছন রিয়া। রাত নয়টা নাগাদ ভাইকে সঙ্গে নিয়ে তাঁকে বেরোতে দেখা গিয়েছে।

hthsdst4

রিয়ার গাড়ি ঘিরে স্থানীয় সাংবাদিকদের উৎসাহ। 

বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের অস্বাভাবিক মৃত্যু রহস্যের তদন্তে নেমে জোরদার তৎপরতা দেখাচ্ছে সিবিআই। শুক্রবারই এই মামলায় অভিযুক্ত সুশান্তের বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তীকে  প্রায় ১০ ঘণ্টা ধরে জিজ্ঞাসাবাদ করেন তদন্ত সংস্থার আধিকারিকরা। তবে এখন জানা যাচ্ছে, এবার রিয়া চক্রবর্তীর পলিগ্রাফ টেস্ট করতে পারে তদন্তকারী সংস্থাটি (CBI)। ২-৩ রাউন্ড জিজ্ঞাসাবাদের পরে শেষে সিবিআই এখন রিয়ার পলিগ্রাফ পরীক্ষা করার প্রস্তুতি নিচ্ছে। যদিও এর জন্য আদালতের অনুমতি নিতে হবে সিবিআইকে। এছাড়াও, অনুমতি নিতে হবে খোদ রিয়ার কাছ থেকেও। 

শুক্রবার সকাল ১০ টা নাগাদ রিয়া চক্রবর্তী সিবিআইয়ের জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হতে নিজের বাড়ি থেকে ডিআরডিও অতিথি নিবাসে যেখানে সিবিআইয়ের আধিকারিকরা রয়েছেন, সেখানের দিকে রওনা দেন। দিনভর তাঁকে নানা প্রশ্ন করেন সিবিআই কর্তারা। রাত ৯টা নাগাদ ডিআরডিওর ওই অতিথি নিবাস থেকে বেরিয়ে ফের বাড়ির দিকে রওনা হন রিয়া। জানা গেছে, আজ অর্থাৎ শনিবারও আরেক প্রকস্থ সিবিআইয়ের জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হবেন রিয়া চক্রবর্তী।

Newsbeep

গত ১৪ জুন বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতকে তাঁর বান্দ্রার বাড়িতে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায়। তাঁর মৃত্যুর মাত্র ৬ দিন আগে গত একবছর ধরে সুশান্তের সঙ্গে লিভ টুগেদার করা রিয়া ওই বাড়ি ছেড়ে চলে যান। পরবর্তীতে ২৮ বছর বয়সী অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে সুশান্ত সিং রাজপুতকে মানসিকভাবে হয়রানি করা, তাঁর টাকাপয়সা হাতিয়ে নেওয়া এবং তাঁকে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার মতো মারাত্মক অভিযোগ আনে মৃত অভিনেতার পরিবার। সুশান্তের লিভিং পার্টনারের বিরুদ্ধে বর্তমানে সিবিআই, এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট এবং মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ ব্যুরো বা এনসিবি একযোগে তদন্ত করছে।