রিয়া চক্রবর্তীকে গত ৩ দিন গড়ে ৮ ঘণ্টা করে জিজ্ঞাসাবাদ সিবিআইয়ের, সোমবার ফের তলব

Sushant Singh Rajput death case: সুশান্তের মৃত্যুর তদন্তে রিয়াকে শুক্রবার ১০ ঘণ্টা, শনিবার ৭ ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদের পর রবিবারও জিজ্ঞাসাবাদ করে সিবিআই

Rhea Chakraborty: মুম্বইয়ে ডিআরডিও হাউসে সিবিআইয়ের আধিকারিকদের প্রশ্নের জিজ্ঞাসাবাদের সম্মুখীন হন রিয়া

মুম্বই:

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর ঘটনার তদন্তে (Sushant Singh Rajput death case) রবিবার নিয়ে টানা ৩ দিন সিবিআইয়ের জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হতে হয় অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তীকে, আজ (সোমবার) ফের তাঁকে তলব করেছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থাটি (CBI)। মুম্বইয়ে ডিআরডিও সরকারি অতিথিশালায় তদন্তের জন্য আপাতত রয়েছেন সিবিআইয়ের আধিকারিকরা, সেখানেই রবিবার দেখা যায় প্রায় ৮ ঘণ্টা গোয়েন্দাদের বাঘা বাঘা প্রশ্নের ঝড় সামলে রাতের দিকে নিজের বাড়ির উদ্দেশে রওনা হন সুশান্তের (Sushant Singh Rajput) লিভিং পার্টনার (Rhea Chakraborty)। এক সিবিআই কর্তা জানিয়েছেন, রিয়ার ভাই শৌভিক চক্রবর্তীকেও এই মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য এই নিয়ে পর পর ৪ দিন তলব করে কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থাটি। তিনি আরও জানান, রবিবার সকাল সাড়ে দশটা নাগাদ ভাইকে সঙ্গে নিয়েই রিয়া সান্তাক্রুজের কালিনার ডিআরডিও গেস্ট হাউসে পৌঁছন, সেখানে তদন্তকারী আধিকারিকরা তাঁদের জিজ্ঞাসাবাদ করা শুরু করেন। মুম্বই পুলিশের একটি গাড়ি তাঁদের গাড়িটিকে এসকর্ট করে নিয়ে যায়।

রবিবার আরেক প্রকস্থ জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় সুশান্ত সিং রাজপুতের ম্যানেজার স্যামুয়েল মিরান্ডা এবং পরিচারক কেশবকেও।

এর আগে শুক্রবার যখন ডিআরডিও গেস্ট হাউসেই জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিয়ার সকাল সাড়ে ১০ টায় হাজিরা দেওয়ার কথা ছিল, তখন তিনি সময়মতো সেখানে হাজিরা দিতে পারেননি, কারণ সংবাদমাধ্যমকর্মীদের ভিড় তাঁর বাড়ির দরজায় সামনে জড়ো হওয়ায় বেরোনোর পথ প্রায় অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছিলো। অভিনেত্রী এই সময় মুম্বই পুলিশের কাছে সহায়তা চান এবং তাঁকে এসকর্ট করে বাড়ি থেকে বের করে আনা হয়। তার পর থেকে যতবারই রিয়া চক্রবর্তী সিবিআইয়ের জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হতে বাড়ি থেকে রওনা হয়েছেন সবসময়ই মুম্বই পুলিশের একটি গাড়ি তাঁকে এসকর্ট করে সেখানে পৌঁছে দিয়েছে।

গত ১৪ জুন বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতকে (Sushant Singh Rajput) তাঁর বান্দ্রার বাড়িতে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায়। তাঁর মৃত্যুর মাত্র ৬ দিন আগে গত একবছর ধরে সুশান্তের সঙ্গে লিভ টুগেদার করা রিয়া ওই বাড়ি ছেড়ে চলে যান। পরবর্তীতে ২৮ বছর বয়সী অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে সুশান্ত সিং রাজপুতকে মানসিকভাবে হয়রানি করা, তাঁর টাকাপয়সা হাতিয়ে নেওয়া এবং তাঁকে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার মতো মারাত্মক অভিযোগ আনে মৃত অভিনেতার পরিবার। সুশান্তের লিভিং পার্টনারের বিরুদ্ধে বর্তমানে সিবিআই, এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট এবং মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ ব্যুরো বা এনসিবি একযোগে তদন্ত করছে।

Newsbeep

যদিও গত বৃহস্পতিবার এনডিটিভিকে এক সাক্ষাৎকার দেওয়ার সময় রিয়া যদিও সুশান্তের বাবার তোলা সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেন। সুশান্তের বাবা যেভাবে তাঁর বিরুদ্ধে তাঁর ছেলেকে বিষ দেওয়ার কথা বলেছেন এবং টাকা নয়ছয় করার মতো অভিযোগ তুলেছেন তাতে যে তিনি গভীরভাবে মর্মাহত একথাও বলেন রিয়া।

রিয়া চক্রবর্তী ওষুধের নাম করে বিষ মেশানোর অভিযোগ তো অস্বীকার করেইছেন এবং সেইসঙ্গে জোর গলায় বলেছেন যে তিনি প্রয়াত অভিনেতার কাছ থেকে কখনও এক টাকাও নেননি। রিয়া আরও দাবি করেছে যে সুশান্ত রাজপুত বহুদিন ধরেই গাঁজার নেশায় আসক্ত ছিলেন এবং তিনি অভিনেতার ওই নেশা ছাড়ানোর আপ্রাণ চেষ্টা করেছেন। এমনকী সুশান্তের এই চরম পরিণতির জন্য ঘুরিয়ে অভিনেতার পরিবারকেই দায়ী করেন রিয়া।