CAA: "হোক বিতর্ক", মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, রাহুল গান্ধিকে অমিত শাহের চ্যালেঞ্জ

Citizenship Amendment Act: বিরোধী রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বদের দিকে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন নিয়ে নাগরিক বিতর্ক সভা আয়োজনের চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেন রাষ্ট্রমন্ত্রী

CAA:

বিতর্কিত নাগরিকত্ব আইন নিয়ে জন সচেতনতা গড়তে এক সভায় যোগ দেন Amit Shah

হাইলাইটস

  • সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের পক্ষে জোর গলায় সওয়াল অমিত শাহের
  • কোনওভাবেই এই আইনটিকে প্রত্যাহার করা হবে না, সাফ জানালেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
  • মমতা, রাহুল, অখিলেশ সহ বিরোধীদের উদ্দেশে নাগরিক বিতর্কের চ্যালেঞ্জ তাঁর
লখনউ:

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের (CAA) সমর্থনে আয়োজিত সভা থেকে এবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধি এবং সপা প্রধান অখিলেশ যাদবের উদ্দেশে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়লেন অমিত শাহ। প্রয়োজনে মানুষের সামনে এই আইনটি নিয়ে বিতর্ক সভায় যোগ দিন তাঁরা, বললেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী (Amit Shah)। লখনউতে বিতর্কিত নাগরিকত্ব আইনের সমর্থনে মঙ্গলবার এক সভার আয়োজন করা হয়। সেই সভায় যোগ দিয়েই বিরোধী রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বদের দিকে সিএএ (Citizenship Amendment Act) নিয়ে নাগরিক বিতর্ক সভা আয়োজনের চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেন অমিত শাহ। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে দেশ জুড়ে বিরোধী আন্দোলন শুরু হয়েছে। একেবারে সামনে দাঁড়িয়ে এই আইনের বিরোধিতা করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেছেন যে, তিনি (Mamata Banerjee) বেঁচে থাকতে রাজ্যে এই আইন প্রয়োগ করতে দেওয়া হবে না।

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের মাধ্যমে ধর্মের ভিত্তিতে নাগরিকত্ব দেওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে বলে তোপ দাগেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধিও (Rahul Gandhi)। এই আইনের বিরোধিতায় দেশ জুড়ে সরব হন অখিলেশ যাদব সহ বিরোধী রাজনৈতিক দলের অনেক নেতাই।

কোনও রাজ্য ব‌লতে পারে না সংসদে পাস হওয়া আইন মেনে চলব না: কপিল সিবাল

মঙ্গলবার লখনউয়ের সভামঞ্চ থেকে রীতিমতো হুঙ্কার ছেড়ে অমিত শাহকে বলতে শোনা যায় যে, যাই-ই হয়ে যাক না কেন সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন দেশে প্রয়োগ করা হবেই।

ওই সভা থেকে বিরোধীদের উদ্দেশে তোপ দাগেন মোদি মন্ত্রিসভার প্রথম সারির মুখ অমিত শাহ। বিরোধীরা এই আইনের "প্রয়োজনীয়তা দেখতে পাচ্ছেন না কারণ তাঁদের চোখ ভোটব্যাঙ্ক রাজনীতির মুখোশে আটকা রয়েছে", বলেন তিনি।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, "এই কথা সকলকে জানিয়ে রাখি, এই আইনটি কোনওভাবেই প্রত্যাহার করা হবে না, যে যতই প্রতিবাদ করুন না কেন... আমরা বিরোধীদের ভয় পাই না, আমরা বিরোধীদের প্রতিবাদের মধ্যেই জন্মগ্রহণ করেছি"।

সব রাজ্যকে CAA বাতিলের প্রস্তাব আনতে আর্জি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনে আফগানিস্তান, পাকিস্তান, বাংলাদেশ থেকে ২০১৫ সালের আগে আগত অমুসলিম শরণার্থীদের নাগরিকত্ব দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। বিরোধীদের মতে, এই আইন বৈষম্যমূলক এবং সংবিধানে বর্ণিত দেশের ধর্মনিরপেক্ষ ভাবমূর্তির পরিপন্থী।

কেরল সরকার দেশের প্রথম রাজ্য সরকার হিসেবে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছে।

শুক্রবার পঞ্জাবের বিধানসভায় সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন বাতিলের প্রস্তাব পাস হয়। কেরলের পর দ্বিতীয় রাজ্য হিসেবে এই আইন তাদের রাজ্যে কার্যকর না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা।

সুপ্রিম কোর্টে এই আইনের বিষয়ে ৬০টি পিটিশন জমা পড়েছে। 

Listen to the latest songs, only on JioSaavn.com