নীতিশ কুমার ও বিজেপির সুশীল মোদীকে ‘ইফতার’-এ অংশ নেওয়ায় খোঁচা গিরিরাজ সিংহর, অমিত শাহর তিরস্কার নেতাকে

আজ সকালে একটি টুইটে গিরিরাজ বিজেপির জোটসঙ্গীদের একহাত নেন। এর মধ্যে তাঁর দলীয় সতীর্থ সুশীল মোদীও রয়েছেন।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS

ছবিতে দেখা যাচ্ছে, উপ মুখ্যমন্ত্রী বিজেপির সুশীল মোদী, জোটসঙ্গী নীতিশ কুমার, রামবিলাস পাসোয়ান ও তাঁর ছেলে চিরাগ পাসোয়ানকে।


নয়াদিল্লি: 

হাইলাইটস

  1. আজ সকালে একটি টুইটে গিরিরাজ বিজেপির জোটসঙ্গীদের একহাত নেন।
  2. তাঁর মন্তব্যে দুই জোটসঙ্গীই বিব্রত হবে।
  3. গত সপ্তাহে নীতিশ কুমার বলেছিলেন, তাঁর দল সরকারে যোগ দেবে না।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গিরিরাজ সিংহকে (Giriraj Singh) স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী ও দলের সভাপতি অমিত শাহ (Amit Shah) একহাত নিলেন। দলের সতীর্থ সুশীল মোদী এবং জোটসঙ্গী নীতিশ কুমার ইফতার পার্টিতে যাওয়ায় তাঁদের খোঁচা দেন গিরিরাজ। অমিত শাহ তাঁকে ফোন করে বলেন, এই ধরনের মন্তব্য থেকে বিরত থাকতে। এই ধরনের মন্তব্য আগেও করেছেন গিরিরাজ। তাঁকে এমন মন্তব্য আর কখনও না করতে বলেন অমিত, এমনটাই জানা যাচ্ছে। ওই টুইটে বিজেপি নেতা ও জোটসঙ্গীদের ছবি পোস্ট করে তিনি হিন্দিতে লেখেন, ‘‘কী সুন্দর লাগত এই ছবিটা, যদি নবরাত্রির ফলাহারও এমনই ভাবে আয়োজিত হত। কেন আমরা নিজেদের ধর্ম থেকে পিছিয়ে থাকি এবং দেখনদারিতে এগিয়ে থাকি?'' ছবিতে দেখা যাচ্ছে, উপ মুখ্যমন্ত্রী বিজেপির সুশীল মোদী, জোটসঙ্গী নীতিশ কুমার, রামবিলাস পাসোয়ান ও তাঁর ছেলে চিরাগ পাসোয়ানকে। এছাড়াও ছবিতে দেখা যাচ্ছে ওই পার্টির আহ্বায়ক জিতনরাম মাঞ্ঝিকেও। জিতনরাম হিন্দুস্তান আওয়াম মোর্চার সদস্য। তিনি বিরোধী জোটের নেতা।

‘‘গিরিরাজ এমন মন্তব্য ইচ্ছাকৃত করেন, যাতে আপনারা (সংবাদমাধ্যম) সেটা নিয়ে খবর করেন।'' কয়েক ঘণ্টা পরে নীতিশ কুমার তাঁর প্রতিক্রিয়া জানান। তিনি এমনিতেই হতাশ রয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর মন্ত্রিসভায় একটির বেশি মন্ত্রক না পেয়ে।

বলার আগে ভাবুন, কী বলতে চাইছেন, মুখ্যমন্ত্রী মমতাকে পরামর্শ অপর্ণা সেনের

মন্ত্রীর দলীয় সহকর্মী সুশীল মোদীও তীক্ষ্ণ উত্তর দিয়েছেন, ‘‘আমি গর্বিত আমি হিন্দু। আমি হোলিতেও অংশ নিই, কেবল ইফতারে নয়। ২৫ বছর ধরে আমি ইফতার উদযাপনে অংশ নিই। যে লোকেরা কখনও হোলি মিলন পার্টির আয়োজন করেনি, তারাই আজ প্রশ্ন তুলছে।''

বিতর্কিত ও কটূ কথা বলার জন্য পরিচিত গিরিরাজ। এবার মোদীর মন্ত্রিসভায় তিনি পশু খাদ্য, দুগ্ধ ও মৎস মন্ত্রীর দায়িত্বে রয়েছেন। অনেকেই ভেবেছিলেন বিহারের বেগুসরাই কেন্দ্রে কানহাইয়া কুমার তাঁকে প্রবল প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ফেলবেন। কিন্তু অনেকেরই ভবিষ্যদ্বাণী মিথ্যে প্রমাণ করে চার লক্ষেরও বেশি ভোটে জয়লাভ করেন তিনি।

নিখোঁজ বায়ুসেনা বিমান এএন-৩২-র বিপদ-সংকেত জ্ঞাপক যন্ত্র ১৪ বছরের পুরনো

গিরিরাজ সিংহ দলের সমালোচকদের ‘গো টু পাকিস্তান' বলে থাকেন। তাঁর মন্তব্য নিঃসন্দেহে মন্ত্রিসভার আসন বণ্টন নিয়ে মতবিরোধের মধ্যে নতুন করে বিতর্ক তৈরি করল।

গত সপ্তাহে নীতিশ কুমার বলেছিলেন, তাঁর জনতা দল ইউনাইটেড মোদী সরকারে যোগ দেবে না, কারণ মন্ত্রিসভায় একটিই আসন দেওয়া হয়েছে তাদের।

তাঁর দল ও বিজেপি ৪০ আসনের বিহারে ১৭টি করে আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিল। বাকিটুকু দেওয়া হয়েছিল অন্য জোটসঙ্গীদের। বিজেপি সব গুলিতেই জয়ী হয়। নীতিশের দল জেতে ১৬টিতে।



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................