Nitish Kumar


'Nitish Kumar' - 67 News Result(s)

  • বিহারের ব্রিটিশ আমলের প্রতিষ্ঠানকে ঘিরে আবারও তুঙ্গে নীতীশ-বিজেপি সংঘাত! 

    বিহারের ব্রিটিশ আমলের প্রতিষ্ঠানকে ঘিরে আবারও তুঙ্গে নীতীশ-বিজেপি সংঘাত! 

    কেন্দ্রীয় রেলমন্ত্রী পীযূষ গয়ালকে লেখা চিঠিতে নীতীশ কুমার জানিয়েছেন, ১৩২ বছরের পুরনো ওই ভবন কেবল রেলের নয়, বিহারেরও ঐতিহ্যের স্মারক।

  • করোনা নিয়ে সর্বদলীয় বৈঠকে তেজস্বী যাদবের খোঁচার উত্তরে চমকপ্রদ প্রস্তাব নীতীশ কুমারের

    করোনা নিয়ে সর্বদলীয় বৈঠকে তেজস্বী যাদবের খোঁচার উত্তরে চমকপ্রদ প্রস্তাব নীতীশ কুমারের

    বিজেপি করোনা পরিস্থিতি সামলাতে নীতীশ কুমারের ব্যর্থতার অভিযোগ তুলেছে। অন্য রাজ্যগুলি যেখানে নিজেদের রাজ্যের পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরানোর ব্যাপারে আর্জি জানিয়েছেন, সেখানে নীতীশ কুমার জানিয়ে দিয়েছিলেন, কারও ফেরার দরকার নেই এই মুহূর্তে।

  • ‘‘উত্তরপ্রদেশের থেকে শিক্ষা নিন’’: নীতীশ কুমারকে কটাক্ষ বিজেপি নেতার

    ‘‘উত্তরপ্রদেশের থেকে শিক্ষা নিন’’: নীতীশ কুমারকে কটাক্ষ বিজেপি নেতার

    যদিও পোস্টে কোথাও নীতীশ কুমারের নাম নেননি সঞ্জয়, তবুও তাঁর আক্রমণের কেন্দ্রে যে বিহারের মুখ্যমন্ত্রীই রয়েছেন তা বুঝতে কারও অসুবিধা হচ্ছে না।

  • পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরাতে নারাজ নীতীশ কুমার এবার চাইছেন বিশেষ ট্রেন

    পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরাতে নারাজ নীতীশ কুমার এবার চাইছেন বিশেষ ট্রেন

    বুধবার বিকেল পর্যন্ত নীতীশ কুমার (Nitish Kumar) তাঁর রাজ্যের পরিযায়ী শ্রমিকদের (Migrants) রাজ্যে ফিরিয়ে আনার বিরুদ্ধে ছিলেন। তিনি বলেছিলেন, এতে লকডাউনের নীতির প্রতি অন্যায় করা হয়। গত সপ্তাহেই তিনি একথা জানিয়েছিলেন। বড় রাজ্যগুলির মধ্যে একমাত্র বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমারই অন্যত্র আটকে পড়া রাজ্যের পরিযায়ী শ্রমিকদের ফিরিয়ে আনার পক্ষপাতী নন। কিন্তু অবশেষে মত বদলেছেন তিনি। তিনি একটি ট্রেনের ব্যবস্থা করতে চাইছেন, যার দ্বারা বিহারে ফিরিয়ে আনা হবে পরিযায়ী শ্রমিকদের। রাজ্যের উপমুখ্যমন্ত্রী সুশীলকুমার মোদি টুইট করে জানিয়েছেন, কেন্দ্রের উচিত বিশেষ ট্রেনের ব্যবস্থা করা, যে ট্রেনে পরিযায়ী শ্রমিকদের ফিরিয়ে আনা হবে।

  • বিহারের অভিবাসী শ্রমিকদের আটকে রাখার ‘ভীতিপ্রদ’ ভিডিও প্রকাশ প্রশান্ত কিশোরের

    বিহারের অভিবাসী শ্রমিকদের আটকে রাখার ‘ভীতিপ্রদ’ ভিডিও প্রকাশ প্রশান্ত কিশোরের

    এক শ্রমিক আর্জি জানান, ‘‘দয়া করে আমাদের বেরোতে সাহায্য করুন। কিচ্ছু চাই না। কেবল আমাদের যেতে দিন।’’ আশপাশে থাকা অন্য শ্রমিকদের কাঁদতে দেখা যায়।

  • "পরিযায়ী শ্রমিকদের রাজ্যে ফেরালে কার্যসিদ্ধি হবে না লকডাউনের," সমালোচনার জবাবে বললেন নীতীশ কুমার

    "পরিযায়ী শ্রমিকদের রাজ্যে ফেরালে কার্যসিদ্ধি হবে না লকডাউনের," সমালোচনার জবাবে বললেন নীতীশ কুমার

    ইতিমধ্যে এই খাতে ১০০ কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে বিহার সরকার। জানা গিয়েছে, জেলা প্রশাসন কিংবা কোনও অলাভজনক সংস্থা এই ব্যাপারে উদ্যোগ নিলে আর্থিক দায়ভার রাজ্যের। এদিন স্পষ্ট করে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। 

  • "কেন বিহার ...?" নীতীশ কুমারের উদ্দেশে কঠিন প্রশ্ন ছুঁড়লেন প্রশান্ত কিশোর

    "কেন বিহার ...?" নীতীশ কুমারের উদ্দেশে কঠিন প্রশ্ন ছুঁড়লেন প্রশান্ত কিশোর

    রাজনৈতিক কৌশলবিদ থেকে মূল রাজনীতির দুনিয়ায় পা রাখা প্রশান্ত কিশোরের ধারালো প্রশ্নের মুখোমুখি জেডিইউ (Janata Dal United) নেতা তথা বিহার মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার। কিছুদিন আগে দলবিরোধী কার্যকলাপের অভিযোগে জনতা দল ইউনাইটেড থেকে বহিষ্কার করা হয় প্রশান্ত কিশোরকে, তাতে কী, দল থেকে বের করে দেওয়া হলেও নীতীশকে ছাড় দিতে রাজি নন তিনি। বিহারের রাজনীতির দিকে সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে এবার টুইটারে (Prashant Kishor's Twitter) একাধিক অস্বস্তিকর প্রশ্নে সে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে (Nitish Kumar) আক্রমণ করলেন ওই ক্ষুরধার বুদ্ধির রাজনৈতিক কৌশলবিদ (Prashant Kishor)।

  • "জনতাই আসল মালিক;" দিল্লি ভোটের ফল বিশ্লেষণ তিন শব্দে করলেন নীতিশ কুমার

    "জনতাই আসল মালিক;" দিল্লি ভোটের ফল বিশ্লেষণ তিন শব্দে করলেন নীতিশ কুমার

    পাটনায় দীন দয়াল উপাধ্যায় স্মরণে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিহারের মুখ্যমন্ত্রী (Bihar CM)  নীতিশ কুমার। সেই অনুষ্ঠানের শেষে তাঁকে দিল্লি ভোটের ফল (Delhi Election Result 2020) নিয়ে প্রশ্ন করা হয়েছিল। মঙ্গলবার নীতিশ কুমারের (Nitish Kumar) তিন শব্দের জবাব' "জনতাই আসল মালিক।" মাথায় হাত ঠেকিয়ে এমন প্রত্যুত্তর (People is Supreme) দিয়ে সভাস্থল ছাড়েন তিনি।

  • ‘‘ধন্যবাদ নীতীশ কুমার। শুভাকাঙ্ক্ষা রইল’’: বহিষ্কৃত হয়ে প্রশান্ত কিশোর

    ‘‘ধন্যবাদ নীতীশ কুমার। শুভাকাঙ্ক্ষা রইল’’: বহিষ্কৃত হয়ে প্রশান্ত কিশোর

    পবন ভার্মা ও প্রশান্ত কিশোরকে বহিষ্কার করা হল বিহারের শাসক দল জনতা দল ইউনাইটেড থেকে। গত কয়েক সপ্তাহ ধরে মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমারের সঙ্গে তাঁদের মতবিরোধের পর অবশেষে দল থেকে সরে যেতে হল তাঁদের। মঙ্গলবারই নীতীশ কুমার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন। অবশেষে সেটাই সত্যি হল। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন নিয়ে দলের অবস্থান নিয়ে মতবিরোধ চলছিল দু’জনের। ২০১৮ সাল থেকে জেডিইউয়ের সহ সভাপতি ছিলেন প্রশান্ত কিশোর। দলের গুরুত্বের বিচারে নীতীশ কুমারের পরেই তাঁর অবস্থান ছিল। বুধবার সকালে এক দলীয় নেতা প্রশান্ত কিশোরের সঙ্গে মারাত্মক করোনা ভাইরাসের তুলনা করে জানিয়েছিলেন, তাঁর কাউন্ট ডাউন শুরু হয়ে গিয়েছে। এদিন প্রশান্ত কিশোর টুইট করে জানান, ‘‘ধন্যবাদ নীতীশ কুমার। ’’

  • ‘‘থাকলেও ঠিক আছে, না থাকলেও ঠিক আছে’’: প্রশান্ত কিশোরকে বিঁধে নীতীশ কুমার

    ‘‘থাকলেও ঠিক আছে, না থাকলেও ঠিক আছে’’: প্রশান্ত কিশোরকে বিঁধে নীতীশ কুমার

    বিহারের (Bihar) মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার (Nitish Kumar) তাঁর ঘনিষ্ঠ দলীয় সতীর্থ প্রশান্ত কিশোরকে (Prashant Kishor) কার্যত দল থেকে বেরিয়ে যাওয়ার ইঙ্গিত দিলেন। সম্প্রতি প্রশান্ত কিশোর সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (CAA) নিয়ে বিহারের মুখ্যমন্ত্রীকে বিঁধেছেন। আক্রমণ করেছেন তাঁদের জোটসঙ্গী বিজেপিকে। মঙ্গলবার দলীয় নেতা ও বিধায়কদের সঙ্গে বৈঠকের পর নীতীশ কুমার প্রশান্ত কিশোর সম্পর্কে বললেন, ‘‘রহেগা তো ঠিক, নেহি রহেগা তো ঠিক।’’ প্রশান্তকে হুঁশিয়ারি দিয়ে প্রবীণ নেতা বলেন, ‘‘উনি এরই মধ্যে অন্য দলের কৌশলী হিসেবে কাজ করেছেন। কিন্তু আমি একটা বিষয় পরিষ্কার করে দিতে চাই। যদি উনি দলে থাকতে চান, তাহলে তাঁকে দলের গঠন সম্পর্কে অবগত থাকতে হবে।’’ জেডিইউয়ে কার্যত দ্বিতীয় ব্যক্তি প্রশান্ত কিশোর। তিনি দলের নির্বাচনী কৌশলীও। এদিন প্রশান্তকে বিঁধে নীতীশ কুমার জানান, ‘‘জানেন উনি কী করে দলে এসেছিলেন? অমিত শাহ আমাকে বলেন ওঁকে নিতে। উনি নিশ্চয়ই কিছু ভাবছেন। সম্ভবত উনি বেরিয়ে যেতে চান।’’

  • একে অপরের গায়ে কাদা ছেটাতে ব্যস্ত Prashant Kishor ও সুশীল মোদি!

    একে অপরের গায়ে কাদা ছেটাতে ব্যস্ত Prashant Kishor ও সুশীল মোদি!

    বিহার (Bihar) এখন উত্তপ্ত ক্ষমতাসীন জোট সরকারের দুই প্রভাবশালী ব্যক্তিত্বের মধ্যে চলতে থাকা বাগযুদ্ধ ঘিরে। বিজেপি এবং জেডিউ সরকারের উপ-মুখ্যমন্ত্রী সুশীল কুমার মোদির সঙ্গে প্রবল দ্বন্দ্ব চলছে জেডিইউর জাতীয় সহ-সভাপতি তথা রাজনৈতিক কৌশলবিদ প্রশান্ত কিশোরের (Prashant Kishor)। সম্প্রতি সুশীল মোদি (Sushil Kumar Modi) একটি টুইটে জেডিইউয়ের কিছু নেতাকে ইঙ্গিত করে বলেন যে তাঁরা জেডিইউ প্রধান তথা বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমারের (Nitish Kumar) সঙ্গে বেইমানি করছেন।

  • কেন রেগে গিয়ে সাংবাদিকদের সামনে হাত জোড় করলেন Nitish Kumar!

    কেন রেগে গিয়ে সাংবাদিকদের সামনে হাত জোড় করলেন Nitish Kumar!

    জানা গেছে, দিন দুয়েক আগে নীতিশ ঘনিষ্ঠ জেডিইউ (JDU) নেতা পবন ভার্মা বিহারের মুখ্যমন্ত্রীর এক গোপন চিঠি ফাঁস করেছিলেন। সেই চিঠিতে, জেডিইউ শরিক বিজেপির (BJP) ওপর ক্ষোভ উগড়ে দলীয় নেতৃত্বকে লিখেছিলেন বিহারের মুখ্যমন্ত্রী। তার মধ্যেই সংবাদ মাধ্যম সে চিঠি নিয়ে হইচই শুরু করেছে। এই 'অতি সক্রিয়তা' দেখে নীতিশ কুমারের মনে হয়েছে 'কাজ কম, কথা বেশি বলছেন সাংবাদিকরা।' তাই এদিনের অনুষ্ঠান থেকে কপালে হাত ঠেকিয়ে নিজের ক্ষোভ উগড়ে দিলেন জেডিইউ প্রধান তথা বিহারের মুখ্যমন্ত্রী (Bihar CM)।

  • JDU: "যাঁর যেখানে খুশি যেতে পারেন", দলের মধ্যে দ্বন্দ্ব প্রসঙ্গে নীতীশ কুমার

    JDU: "যাঁর যেখানে খুশি যেতে পারেন", দলের মধ্যে দ্বন্দ্ব প্রসঙ্গে নীতীশ কুমার

    দলের মধ্যে থাকা বিক্ষুব্ধ নেতাদের কোনওভাবেই রেয়াত করা হবে না, বৃহস্পতিবার সংবাদমাধ্যমের সামনে উপস্থিত হয়ে এমনই বার্তা দিলেন জেডিইউ প্রধান তথা বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার। মনে করা হচ্ছে ঘুরিয়ে তিনি (CM Nitish Kumar) জেডিইউ নেতা পবন কুমার ভার্মাকেই ওই বার্তা দিলেন। এর আগে আসন্ন দিল্লি বিধানসভা নির্বাচনে (Delhi Election 2020) জেডিউ এবং বিজেপি জোট নিয়ে প্রশ্ন তোলেন জেডিইউ-র প্রবীণ নেতা পবন (Pawan Varma) । সেই প্রসঙ্গেই নীতিশ কুমার বলেন, যাঁর যেখানে ইচ্ছে চলে যেতে পারেন। অর্থাৎ চাইলে পবন কুমার ভার্মা জেডিইউ ছেড়ে অন্য দলে যোগ দিতে পারেন, এমনটাই বলে দিলেন জনতা দল ইউনাইটেডের সুপ্রিমো।

  • ‘‘গুজবের সমাপ্তি ঘটাতে চাই’’: বিহার নির্বাচনের প্রচারে এসে Amit Shah

    ‘‘গুজবের সমাপ্তি ঘটাতে চাই’’: বিহার নির্বাচনের প্রচারে এসে Amit Shah

    অমিত শাহ দাবি করেন, নীতীশ কুমারের জনতা দল ইউনাইটেডের সঙ্গে তাঁদের দলের জোট ‘অভঙ্গুর’। এবং কখনওই এই জোট ভাঙবে না।

  • প্রথম এনডিএ শরিক হিসেবে সিএএ পর্যালোচনার ডাক দিলেন নীতীশ কুমার!

    প্রথম এনডিএ শরিক হিসেবে সিএএ পর্যালোচনার ডাক দিলেন নীতীশ কুমার!

    বিহার বিধানসভার বিশেষ অধিবেশনে এদিন বিরোধী কংগ্রেস আর আরজেডি, সিএএ'র সমালোচনায় সরব হয়েছিল। প্রশ্ন তোলা হয়েছিল বিহার মুখ্যমন্ত্রীর নীরব থাকা নিয়ে। সেই সমালোচনার জবাবে সোমবার রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী তথা জেডিইউ প্রধান বলেন, "যদি সবাই চায়, তাহলে বিধানসভায় সিএএ নিয়ে আলোচনা হওয়া উচিত। আর এনআরসি প্রসঙ্গে বলতে চাই, এর কোনও যৌক্তিকতা নেই. বিহারে এই প্রক্রিয়া লাগু করার প্রশ্নও নেই।"

'Nitish Kumar' - 67 News Result(s)

  • বিহারের ব্রিটিশ আমলের প্রতিষ্ঠানকে ঘিরে আবারও তুঙ্গে নীতীশ-বিজেপি সংঘাত! 

    বিহারের ব্রিটিশ আমলের প্রতিষ্ঠানকে ঘিরে আবারও তুঙ্গে নীতীশ-বিজেপি সংঘাত! 

    কেন্দ্রীয় রেলমন্ত্রী পীযূষ গয়ালকে লেখা চিঠিতে নীতীশ কুমার জানিয়েছেন, ১৩২ বছরের পুরনো ওই ভবন কেবল রেলের নয়, বিহারেরও ঐতিহ্যের স্মারক।

  • করোনা নিয়ে সর্বদলীয় বৈঠকে তেজস্বী যাদবের খোঁচার উত্তরে চমকপ্রদ প্রস্তাব নীতীশ কুমারের

    করোনা নিয়ে সর্বদলীয় বৈঠকে তেজস্বী যাদবের খোঁচার উত্তরে চমকপ্রদ প্রস্তাব নীতীশ কুমারের

    বিজেপি করোনা পরিস্থিতি সামলাতে নীতীশ কুমারের ব্যর্থতার অভিযোগ তুলেছে। অন্য রাজ্যগুলি যেখানে নিজেদের রাজ্যের পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরানোর ব্যাপারে আর্জি জানিয়েছেন, সেখানে নীতীশ কুমার জানিয়ে দিয়েছিলেন, কারও ফেরার দরকার নেই এই মুহূর্তে।

  • ‘‘উত্তরপ্রদেশের থেকে শিক্ষা নিন’’: নীতীশ কুমারকে কটাক্ষ বিজেপি নেতার

    ‘‘উত্তরপ্রদেশের থেকে শিক্ষা নিন’’: নীতীশ কুমারকে কটাক্ষ বিজেপি নেতার

    যদিও পোস্টে কোথাও নীতীশ কুমারের নাম নেননি সঞ্জয়, তবুও তাঁর আক্রমণের কেন্দ্রে যে বিহারের মুখ্যমন্ত্রীই রয়েছেন তা বুঝতে কারও অসুবিধা হচ্ছে না।

  • পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরাতে নারাজ নীতীশ কুমার এবার চাইছেন বিশেষ ট্রেন

    পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরাতে নারাজ নীতীশ কুমার এবার চাইছেন বিশেষ ট্রেন

    বুধবার বিকেল পর্যন্ত নীতীশ কুমার (Nitish Kumar) তাঁর রাজ্যের পরিযায়ী শ্রমিকদের (Migrants) রাজ্যে ফিরিয়ে আনার বিরুদ্ধে ছিলেন। তিনি বলেছিলেন, এতে লকডাউনের নীতির প্রতি অন্যায় করা হয়। গত সপ্তাহেই তিনি একথা জানিয়েছিলেন। বড় রাজ্যগুলির মধ্যে একমাত্র বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমারই অন্যত্র আটকে পড়া রাজ্যের পরিযায়ী শ্রমিকদের ফিরিয়ে আনার পক্ষপাতী নন। কিন্তু অবশেষে মত বদলেছেন তিনি। তিনি একটি ট্রেনের ব্যবস্থা করতে চাইছেন, যার দ্বারা বিহারে ফিরিয়ে আনা হবে পরিযায়ী শ্রমিকদের। রাজ্যের উপমুখ্যমন্ত্রী সুশীলকুমার মোদি টুইট করে জানিয়েছেন, কেন্দ্রের উচিত বিশেষ ট্রেনের ব্যবস্থা করা, যে ট্রেনে পরিযায়ী শ্রমিকদের ফিরিয়ে আনা হবে।

  • বিহারের অভিবাসী শ্রমিকদের আটকে রাখার ‘ভীতিপ্রদ’ ভিডিও প্রকাশ প্রশান্ত কিশোরের

    বিহারের অভিবাসী শ্রমিকদের আটকে রাখার ‘ভীতিপ্রদ’ ভিডিও প্রকাশ প্রশান্ত কিশোরের

    এক শ্রমিক আর্জি জানান, ‘‘দয়া করে আমাদের বেরোতে সাহায্য করুন। কিচ্ছু চাই না। কেবল আমাদের যেতে দিন।’’ আশপাশে থাকা অন্য শ্রমিকদের কাঁদতে দেখা যায়।

  • "পরিযায়ী শ্রমিকদের রাজ্যে ফেরালে কার্যসিদ্ধি হবে না লকডাউনের," সমালোচনার জবাবে বললেন নীতীশ কুমার

    "পরিযায়ী শ্রমিকদের রাজ্যে ফেরালে কার্যসিদ্ধি হবে না লকডাউনের," সমালোচনার জবাবে বললেন নীতীশ কুমার

    ইতিমধ্যে এই খাতে ১০০ কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে বিহার সরকার। জানা গিয়েছে, জেলা প্রশাসন কিংবা কোনও অলাভজনক সংস্থা এই ব্যাপারে উদ্যোগ নিলে আর্থিক দায়ভার রাজ্যের। এদিন স্পষ্ট করে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। 

  • "কেন বিহার ...?" নীতীশ কুমারের উদ্দেশে কঠিন প্রশ্ন ছুঁড়লেন প্রশান্ত কিশোর

    "কেন বিহার ...?" নীতীশ কুমারের উদ্দেশে কঠিন প্রশ্ন ছুঁড়লেন প্রশান্ত কিশোর

    রাজনৈতিক কৌশলবিদ থেকে মূল রাজনীতির দুনিয়ায় পা রাখা প্রশান্ত কিশোরের ধারালো প্রশ্নের মুখোমুখি জেডিইউ (Janata Dal United) নেতা তথা বিহার মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার। কিছুদিন আগে দলবিরোধী কার্যকলাপের অভিযোগে জনতা দল ইউনাইটেড থেকে বহিষ্কার করা হয় প্রশান্ত কিশোরকে, তাতে কী, দল থেকে বের করে দেওয়া হলেও নীতীশকে ছাড় দিতে রাজি নন তিনি। বিহারের রাজনীতির দিকে সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে এবার টুইটারে (Prashant Kishor's Twitter) একাধিক অস্বস্তিকর প্রশ্নে সে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে (Nitish Kumar) আক্রমণ করলেন ওই ক্ষুরধার বুদ্ধির রাজনৈতিক কৌশলবিদ (Prashant Kishor)।

  • "জনতাই আসল মালিক;" দিল্লি ভোটের ফল বিশ্লেষণ তিন শব্দে করলেন নীতিশ কুমার

    "জনতাই আসল মালিক;" দিল্লি ভোটের ফল বিশ্লেষণ তিন শব্দে করলেন নীতিশ কুমার

    পাটনায় দীন দয়াল উপাধ্যায় স্মরণে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিহারের মুখ্যমন্ত্রী (Bihar CM)  নীতিশ কুমার। সেই অনুষ্ঠানের শেষে তাঁকে দিল্লি ভোটের ফল (Delhi Election Result 2020) নিয়ে প্রশ্ন করা হয়েছিল। মঙ্গলবার নীতিশ কুমারের (Nitish Kumar) তিন শব্দের জবাব' "জনতাই আসল মালিক।" মাথায় হাত ঠেকিয়ে এমন প্রত্যুত্তর (People is Supreme) দিয়ে সভাস্থল ছাড়েন তিনি।

  • ‘‘ধন্যবাদ নীতীশ কুমার। শুভাকাঙ্ক্ষা রইল’’: বহিষ্কৃত হয়ে প্রশান্ত কিশোর

    ‘‘ধন্যবাদ নীতীশ কুমার। শুভাকাঙ্ক্ষা রইল’’: বহিষ্কৃত হয়ে প্রশান্ত কিশোর

    পবন ভার্মা ও প্রশান্ত কিশোরকে বহিষ্কার করা হল বিহারের শাসক দল জনতা দল ইউনাইটেড থেকে। গত কয়েক সপ্তাহ ধরে মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমারের সঙ্গে তাঁদের মতবিরোধের পর অবশেষে দল থেকে সরে যেতে হল তাঁদের। মঙ্গলবারই নীতীশ কুমার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন। অবশেষে সেটাই সত্যি হল। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন নিয়ে দলের অবস্থান নিয়ে মতবিরোধ চলছিল দু’জনের। ২০১৮ সাল থেকে জেডিইউয়ের সহ সভাপতি ছিলেন প্রশান্ত কিশোর। দলের গুরুত্বের বিচারে নীতীশ কুমারের পরেই তাঁর অবস্থান ছিল। বুধবার সকালে এক দলীয় নেতা প্রশান্ত কিশোরের সঙ্গে মারাত্মক করোনা ভাইরাসের তুলনা করে জানিয়েছিলেন, তাঁর কাউন্ট ডাউন শুরু হয়ে গিয়েছে। এদিন প্রশান্ত কিশোর টুইট করে জানান, ‘‘ধন্যবাদ নীতীশ কুমার। ’’

  • ‘‘থাকলেও ঠিক আছে, না থাকলেও ঠিক আছে’’: প্রশান্ত কিশোরকে বিঁধে নীতীশ কুমার

    ‘‘থাকলেও ঠিক আছে, না থাকলেও ঠিক আছে’’: প্রশান্ত কিশোরকে বিঁধে নীতীশ কুমার

    বিহারের (Bihar) মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার (Nitish Kumar) তাঁর ঘনিষ্ঠ দলীয় সতীর্থ প্রশান্ত কিশোরকে (Prashant Kishor) কার্যত দল থেকে বেরিয়ে যাওয়ার ইঙ্গিত দিলেন। সম্প্রতি প্রশান্ত কিশোর সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (CAA) নিয়ে বিহারের মুখ্যমন্ত্রীকে বিঁধেছেন। আক্রমণ করেছেন তাঁদের জোটসঙ্গী বিজেপিকে। মঙ্গলবার দলীয় নেতা ও বিধায়কদের সঙ্গে বৈঠকের পর নীতীশ কুমার প্রশান্ত কিশোর সম্পর্কে বললেন, ‘‘রহেগা তো ঠিক, নেহি রহেগা তো ঠিক।’’ প্রশান্তকে হুঁশিয়ারি দিয়ে প্রবীণ নেতা বলেন, ‘‘উনি এরই মধ্যে অন্য দলের কৌশলী হিসেবে কাজ করেছেন। কিন্তু আমি একটা বিষয় পরিষ্কার করে দিতে চাই। যদি উনি দলে থাকতে চান, তাহলে তাঁকে দলের গঠন সম্পর্কে অবগত থাকতে হবে।’’ জেডিইউয়ে কার্যত দ্বিতীয় ব্যক্তি প্রশান্ত কিশোর। তিনি দলের নির্বাচনী কৌশলীও। এদিন প্রশান্তকে বিঁধে নীতীশ কুমার জানান, ‘‘জানেন উনি কী করে দলে এসেছিলেন? অমিত শাহ আমাকে বলেন ওঁকে নিতে। উনি নিশ্চয়ই কিছু ভাবছেন। সম্ভবত উনি বেরিয়ে যেতে চান।’’

  • একে অপরের গায়ে কাদা ছেটাতে ব্যস্ত Prashant Kishor ও সুশীল মোদি!

    একে অপরের গায়ে কাদা ছেটাতে ব্যস্ত Prashant Kishor ও সুশীল মোদি!

    বিহার (Bihar) এখন উত্তপ্ত ক্ষমতাসীন জোট সরকারের দুই প্রভাবশালী ব্যক্তিত্বের মধ্যে চলতে থাকা বাগযুদ্ধ ঘিরে। বিজেপি এবং জেডিউ সরকারের উপ-মুখ্যমন্ত্রী সুশীল কুমার মোদির সঙ্গে প্রবল দ্বন্দ্ব চলছে জেডিইউর জাতীয় সহ-সভাপতি তথা রাজনৈতিক কৌশলবিদ প্রশান্ত কিশোরের (Prashant Kishor)। সম্প্রতি সুশীল মোদি (Sushil Kumar Modi) একটি টুইটে জেডিইউয়ের কিছু নেতাকে ইঙ্গিত করে বলেন যে তাঁরা জেডিইউ প্রধান তথা বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমারের (Nitish Kumar) সঙ্গে বেইমানি করছেন।

  • কেন রেগে গিয়ে সাংবাদিকদের সামনে হাত জোড় করলেন Nitish Kumar!

    কেন রেগে গিয়ে সাংবাদিকদের সামনে হাত জোড় করলেন Nitish Kumar!

    জানা গেছে, দিন দুয়েক আগে নীতিশ ঘনিষ্ঠ জেডিইউ (JDU) নেতা পবন ভার্মা বিহারের মুখ্যমন্ত্রীর এক গোপন চিঠি ফাঁস করেছিলেন। সেই চিঠিতে, জেডিইউ শরিক বিজেপির (BJP) ওপর ক্ষোভ উগড়ে দলীয় নেতৃত্বকে লিখেছিলেন বিহারের মুখ্যমন্ত্রী। তার মধ্যেই সংবাদ মাধ্যম সে চিঠি নিয়ে হইচই শুরু করেছে। এই 'অতি সক্রিয়তা' দেখে নীতিশ কুমারের মনে হয়েছে 'কাজ কম, কথা বেশি বলছেন সাংবাদিকরা।' তাই এদিনের অনুষ্ঠান থেকে কপালে হাত ঠেকিয়ে নিজের ক্ষোভ উগড়ে দিলেন জেডিইউ প্রধান তথা বিহারের মুখ্যমন্ত্রী (Bihar CM)।

  • JDU: "যাঁর যেখানে খুশি যেতে পারেন", দলের মধ্যে দ্বন্দ্ব প্রসঙ্গে নীতীশ কুমার

    JDU: "যাঁর যেখানে খুশি যেতে পারেন", দলের মধ্যে দ্বন্দ্ব প্রসঙ্গে নীতীশ কুমার

    দলের মধ্যে থাকা বিক্ষুব্ধ নেতাদের কোনওভাবেই রেয়াত করা হবে না, বৃহস্পতিবার সংবাদমাধ্যমের সামনে উপস্থিত হয়ে এমনই বার্তা দিলেন জেডিইউ প্রধান তথা বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার। মনে করা হচ্ছে ঘুরিয়ে তিনি (CM Nitish Kumar) জেডিইউ নেতা পবন কুমার ভার্মাকেই ওই বার্তা দিলেন। এর আগে আসন্ন দিল্লি বিধানসভা নির্বাচনে (Delhi Election 2020) জেডিউ এবং বিজেপি জোট নিয়ে প্রশ্ন তোলেন জেডিইউ-র প্রবীণ নেতা পবন (Pawan Varma) । সেই প্রসঙ্গেই নীতিশ কুমার বলেন, যাঁর যেখানে ইচ্ছে চলে যেতে পারেন। অর্থাৎ চাইলে পবন কুমার ভার্মা জেডিইউ ছেড়ে অন্য দলে যোগ দিতে পারেন, এমনটাই বলে দিলেন জনতা দল ইউনাইটেডের সুপ্রিমো।

  • ‘‘গুজবের সমাপ্তি ঘটাতে চাই’’: বিহার নির্বাচনের প্রচারে এসে Amit Shah

    ‘‘গুজবের সমাপ্তি ঘটাতে চাই’’: বিহার নির্বাচনের প্রচারে এসে Amit Shah

    অমিত শাহ দাবি করেন, নীতীশ কুমারের জনতা দল ইউনাইটেডের সঙ্গে তাঁদের দলের জোট ‘অভঙ্গুর’। এবং কখনওই এই জোট ভাঙবে না।

  • প্রথম এনডিএ শরিক হিসেবে সিএএ পর্যালোচনার ডাক দিলেন নীতীশ কুমার!

    প্রথম এনডিএ শরিক হিসেবে সিএএ পর্যালোচনার ডাক দিলেন নীতীশ কুমার!

    বিহার বিধানসভার বিশেষ অধিবেশনে এদিন বিরোধী কংগ্রেস আর আরজেডি, সিএএ'র সমালোচনায় সরব হয়েছিল। প্রশ্ন তোলা হয়েছিল বিহার মুখ্যমন্ত্রীর নীরব থাকা নিয়ে। সেই সমালোচনার জবাবে সোমবার রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী তথা জেডিইউ প্রধান বলেন, "যদি সবাই চায়, তাহলে বিধানসভায় সিএএ নিয়ে আলোচনা হওয়া উচিত। আর এনআরসি প্রসঙ্গে বলতে চাই, এর কোনও যৌক্তিকতা নেই. বিহারে এই প্রক্রিয়া লাগু করার প্রশ্নও নেই।"

Your search did not match any documents
A few suggestions
  • Make sure all words are spelled correctly
  • Try different keywords
  • Try more general keywords
Check the NDTV Archives:https://archives.ndtv.com

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

Listen to the latest songs, only on JioSaavn.com