জম্মু ও কাশ্মীরের বারামুল্লায় জঙ্গি হানা, নিহত ২ সিআরপিএফ ও ১ পুলিশকর্মী

Baramulla Attack: ক্রেড়ির একটি চেকপোস্টে সিআরপিএফ এবং জম্মু-কাশ্মীর পুলিশের একটি যৌথ দল টহল দিচ্ছিলো, সেই সময়েই এলোপাথাড়ি গুলি চালায় জঙ্গিরা

জম্মু ও কাশ্মীরের বারামুল্লায় জঙ্গি হানা, নিহত ২ সিআরপিএফ ও ১ পুলিশকর্মী

Baramulla Attack: গত এক সপ্তাহের মধ্যে এই নিয়ে নিরাপত্তাবাহিনীর উপর তৃতীয়বার হামলা হলো

বারামুল্লা, জম্মু ও কাশ্মীর:

সোমবার সকালে ফের একবার জম্মু ও কাশ্মীরে (Jammu and Kashmir) হামলা চালালো জঙ্গিরা। বারামুল্লা (Baramulla Attack) জেলায় হওয়া ওই জঙ্গি হানায় এখনও পর্যন্ত কেন্দ্রীয় রিজার্ভ পুলিশ ফোর্সের ২ কর্মী এবং জম্মু ও কাশ্মীর পুলিশের এক কর্মী মিলিয়ে মোট ৩ জন নিরাপত্তা কর্মী নিহত হয়েছেন। ক্রেড়ির একটি চেকপোস্টে সিআরপিএফ এবং জম্মু-কাশ্মীর পুলিশের একটি যৌথ দল টহল দিচ্ছিলো। সেই সময়েই হঠাৎ করে কিছু জঙ্গি এসে তাঁদের লক্ষ্য করে এলোপাথাড়ি গুলি (terror attack) চালায়। হামলার পরেই ঘটনাস্থল থেকে পালাতে সক্ষম হয় জঙ্গিরা। "ওই জঙ্গি হামলায় আমরা ৩ জওয়ানকে হারিয়েছি। দ্রুত ওই এলাকাটিকে ঘিরে ফেলা হয়েছে। আমরা গোটা ঘটনাটির তদন্ত করছি", বলেন পুলিশের মহাপরিদর্শক বিজয় কুমার।

এই নিয়ে কাশ্মীরে গত এক সপ্তাহে তৃতীয়বার নিরাপত্তা বাহিনীর উপর হামলা হলো।

গত ১৪ অগাস্ট শ্রীনগরের নওগাম এলাকায় পুলিশের টহলদারী ভ্যান লক্ষ্য করে হামলা চালায় জঙ্গিরা। ওই হামলায় নিহত হন দুই পুলিশ কর্মী। জঙ্গিদের হামলার গোটা ঘটনাটি স্থানীয় সিসিটিভিতে ধরা পড়ে। তাতে দেখা যায় যে, কর্তব্যরত জওয়ানদের উপর আচমকা ওই হামলা চালিয়েই হাপিস হয়ে যায় জঙ্গিরা। এখনও ওই জঙ্গিদের নাগাল মেলেনি। 

এর আগে শ্রীনগর-বারামুল্লা জাতীয় সড়কের কাছে হাইগামে সেনাদের উপর হামলা চালায় একদল জঙ্গি। ওই হামলায় ১ সেনা জওয়ান গুরুতর আহত হন।

অন্যদিকে, পাকিস্তানের তরফ থেকে ফের যুদ্ধবিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করে সীমান্তে গুলি চালানো হয়েছে। রবিবার সকাল সাড়ে ১০ টা থেকে ১১ টা ৪৫ মিনিটের মধ্যে বারামুল্লা জেলার উরি এলাকার কমলকোট সেক্টরের লোয়ার হাউস এবং আপার হাউস চেকপয়েন্ট লক্ষ্য করে গুলি চালায় পাক সেনা। যদিও ভারতীয় সেনাবাহিনীর তরফ থেকেও এর যোগ্য জবাব দেওয়া হয়েছে।