কোভিড-১৯ যোদ্ধাদের ধন্যবাদ জানাতে রবিবার হাসপাতালে পাপড়ি বর্ষণ করবে সেনা

কোভিড-১৯ যোদ্ধাদের ধন্যবাদ জানাতে রবিবার হাসপাতালের উপরে আকাশপথ থেকে পাপড়ি বর্ষণ করবে সেনা। আলোকসজ্জায় সজ্জিত করা হবে জাহাজগুলিকে।

কোভিড-১৯ যোদ্ধাদের ধন্যবাদ জানাতে রবিবার হাসপাতালে পাপড়ি বর্ষণ করবে সেনা

শুক্রবার সন্ধ্যায় এই ঘোষণা করেন জেনারেল বিপিন রাওয়াত।

কোভিড-১৯ (COVID-19) যোদ্ধাদের ধন্যবাদ জানাতে রবিবার দেশের হাসপাতালগুলির উপরে আকাশপথ থেকে পাপড়ি বর্ষণ করবে সেনা (Armed Forces)। আলোকসজ্জায় সজ্জিত করা হবে জাহাজগুলিকে। চিকিৎসক, স্বাস্থ্য কর্মী ও অন্যান্য করোনা-যোদ্ধাদের শ্রদ্ধা জানাতেই এমন করা হবে বলে শুক্রবার সন্ধ্যায় জানিয়েছেন চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ জেনারেল বিপিন রাওয়াত (Bipin Rawat)। তাঁর সঙ্গে ছিলেন তিন সেনাপ্রধান। দেশব্যাপী লকডাউন দু'সপ্তাহের জন্য বাড়ানো হচ্ছে, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক এই ঘোষণা করার ঠিক আগে এই ঘোষণাটি করেন বিপিন রাওয়াত।

জেনারেল বিপিন রাওয়াত জানান, ‘‘আমরা আমাদের কৃতজ্ঞতা জানাতে চাই প্রত্যেক করোনা যোদ্ধা এবং দেশের সমস্ত নাগরিককে। ৩ মে সেনাবাহিনীর তিন শাখার তরফ থেকে বিশেষ সম্মান প্রদর্শন করা হবে।'' তিনি আরও বলেন, ‘‘দেশ একত্রে সংঘবদ্ধ হয়েছে। এই সঙ্কট থেকে বেরিয়ে আসার সংকল্প দেখিয়েছে। আমাদের দেশে, সকলেই জানেন দেশের বিষয়ে সকলকে সংঘবদ্ধ হতে হয়।''

দেশব্যাপী লকডাউনের মেয়াদ বাড়ল, ৪ মে থেকে আরও দু'সপ্তাহ

এই বিশেষ সম্মান প্রদর্শনের অন্যতম হল বায়ুসেনার ‘ফ্লাই পাস্ট'। আকাশপথে কাশ্মীর থেকে কন্যাকুমারী এবং উত্তর-পূর্বের অসম থেকে গুজরাতের কচ্ছ পর্যন্ত পাড়ি দেওয়া। এদিকে নৌবাহিনী জাহাজগুলিকে আলোকসজ্জায় সজ্জিত করবে ভারতীয় উপকূলে। এমনটাই জানিয়েছেন জেনারেল বিপিন রাওয়াত।

এছাড়াও হেলিকপ্টারে হাসপাতালগুলির উপরে ফুলের পাঁপড়ি বর্ষণ করা হবে। হাসপাতালের বাইরে সেনাবাহিনীর তরফে ব্যান্ড বাজানো হবে অধিকাংশ জেলার হাসপাতালের সামনে।

পরিযায়ীদের পৌঁছে দিতে শুরু হল বিশেষ ট্রেন পরিষেবা, বজায় রাখতে হবে সামাজিক দূরত্ব

এই প্রথম সরকার সৃষ্ট নতুন পদ চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ এবং তিন শাখার সেনাপ্রধানকে একসঙ্গে সাংবাদিক সম্মেলনে কথা বলতে দেখা গেল।

গত সপ্তাহে, জেনারেল রাওয়াত জানিয়েছিলেন, কোভিড-১৯ সংক্রমণের এই পরিস্থিতিতে সেনাকে সম্ভাব্য সমস্ত পথে সরকার ও জনতাকে সহায়তা করতে হবে। তিনি আরও বলেন, ‘নিয়মানুবর্তিতা ও ধৈর্য' সেনাকে সাহায্য করেছে করোনা সংক্রমণ রুখতে। তিনি জানান, সেনার মধ্যে করোনা খুব সামান্য প্রকোপ ছড়াতে পেরেছে।

গত ১৫ দিনে দেশের করোনা ভাইরাস হটস্পটের সংখ্যা ২৩ শতাংশ কমেছে বলে শুক্রবার কেন্দ্রীয় সরকার জানিয়েছে। ১৫ এপ্রিল যেখানে হটস্পট ছিল ১৭০, সেখান‌ে ৩০ এপ্রিল তা কমে দাঁড়িয়েছে ১৩০। দেশের সাতটি বড় শহর ‘রেড জোন' হয়ে রয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে রাজধানী দিল্লিও। মুম্বই ও দিল্লিতে সংক্রমণ ১০,০০০ ছাড়িয়েছে।

ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৩৫,০০০ ছাড়িয়েছে। মারা গিয়েছেন ১,১৪৭ জন।

এদিকে আগামী ৪ মে থেকে পরবর্তী দু'সপ্তাহ লকডাউন জারি থাকবে বলে সরকারের তরফে জানানো হয়েছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক নতুন গাইডলাইন তৈরি করেছে এই সময়কালের জন্য। ‘রেড', ‘অরেঞ্জ' ও ‘গ্রিন' জোন অনুসারে এই গাইডলাইন তৈরি করা হয়েছে।