মহারাষ্ট্রে সরকার গড়ছে সেনা-এনসিপি-কংগ্রেস, শনিবারই সরকার গঠনের দাবি

Maharashtra: ওই তিনদলই নূন্যতম বিষয়গুলি নিয়ে আলোচনা করে একমত হয়েছে, বললেন এনসিপি প্রধান

মহারাষ্ট্রে সরকার গড়ছে সেনা-এনসিপি-কংগ্রেস, শনিবারই সরকার গঠনের দাবি

"আমরা সকলেই নিশ্চিত করব যে এই (শিবসেনা-এনসিপি-কংগ্রেস) সরকার পাঁচ বছর মহারাষ্ট্র চালাবে", বলেন Sharad Pawar

হাইলাইটস

  • মধ্যবর্তী কোনও নির্বাচন দেখবে না রাজ্য, সাফ জানালেন শরদ পাওয়ার
  • শিবসেনা-এনসিপি-কংগ্রেস মিলেই সরকার গঠন করা হবে মহারাষ্ট্রে
  • এই সরকার ৬ মাসের বেশি চলবে না, কটাক্ষ দেবেন্দ্র ফড়নবিশের
মুম্বই:

শেষপর্যন্ত সরকার পেতে চলেছে মহারাষ্ট্রবাসী। বহু আলোচনা, অনেক টানাপোড়েনের পর একসঙ্গে সরকার গড়তে সম্মত হল শিবসেনা-এনসিপি এবং কংগ্রেস। কোনও দলই সংখ্যাগরিষ্ঠতার প্রমাণ না দিতে পারায় বর্তমানে সে রাজ্যে (Maharashtra) রাষ্ট্রপতি শাসন জারি রয়েছে। ন্যাশনালিস্ট কংগ্রেস পার্টির (NCP) প্রধান শরদ পাওয়ার বলেছেন, এবার শিবসেনার (Shiv Sena) সঙ্গে এনসিপি-কংগ্রেস জোট হাতে হাত ধরে সরকার গঠন করবে মহারাষ্ট্রে। যদিও প্রথমে কিছুতেই শিবসেনার সঙ্গে সরকার গড়তে রাজি ছিল না কংগ্রেস (Congress)। তবে শেষপর্যন্ত আদর্শগতভাবে শিবসেনার সঙ্গে মতভেদ থাকলেও একজোট হয়ে ওই ৩ দল পূর্ণ মেয়াদের সরকার চালাবে বলেও আত্মবিশ্বাসী তিনি। জানা গেছে, শনিবার রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করে সরকার গঠনের জন্যে অনুমতি চাইবে ওই তিন দল।

"এই সরকার গঠিত হবে এবং এটি পাঁচ বছরের পূর্ণ মেয়াদের সরকার হবে। আমরা সকলেই এই সরকারের পাঁচ বছর থাকা অবশ্যই নিশ্চিত করব", বলেন শরদ পাওয়ার।  

গত সপ্তাহেই শিবসেনা-এনসিপি-কংগ্রেস মিলে সরকার গড়লে সেই সরকার ৬ মাসের বেশি চলবে না বলে পূর্বাভাস দেন বিজেপি নেতা তথা মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়নবিশ। সেই কথাকে কটাক্ষ করে এনসিপি প্রধান পাওয়ার বলেন, "আমি বেশ কয়েক বছর ধরে দেবেন্দ্রজিকে চিনি। তবে আমি জানতাম না যে তিনি জ্যোতিষেরও ছাত্র"। 

রাজ্যপালের রিপোর্টের পরেই মহারাষ্ট্রে জারি রাষ্ট্রপতি শাসন

শিবসেনা চাইছে তাঁদের দলের থেকেই পূর্ণ মেয়াদের মুখ্যমন্ত্রী হোন, এই পরিপ্রেক্ষিতে শরদ পাওয়ারকে প্রশ্ন করা হলে তিনি জবাব দেন, "যদি কেউ মুখ্যমন্ত্রী পদ দাবী করেন, আমরা সে বিষয়ে নিশ্চয়ই ভাবব"।  শরদ পওয়ার নিজে একসময় মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন। জানা গেছে, শিবসেনাকে সমর্থন দেওয়ার প্রশ্নে শরদ পাওয়ারের দল থেকে নাকি শিবসেনাকে তাঁদের দলের থেকেও একজনকে মুখ্যমন্ত্রী হতে দিতে হবে বলে শর্ত দেওয়া হয়। অর্থাৎ ঠিক যেমন ফর্মূলা শিবসেনা বিজেপিকে দিয়েছিল, সেই একই সমীকরণ প্রয়োগ করতে চায় এনসিপিও। অর্থাৎ মহারাষ্ট্রে আড়াই বছর করে মেয়াদে দুই দল থেকে দুজন মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার সম্ভাবনার কথাও উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না।

রাজনীতি অনেকটা ক্রিকেট খেলার মতো, যখন তখন যা কিছু হতে পারে: নীতিন গডকড়ি

যদিও এনসিপির আরেক নেতা নবাব মল্লিক ইঙ্গিত দেন যে, পুরো পাঁচ বছরের জন্য শিবসেনারই কেউ মুখ্যমন্ত্রী পদে থাকবেন এবং এনসিপি এবং কংগ্রেস ঘুরিয়ে ফিরিয়ে উপ-মুখ্যমন্ত্রী পদে বসবেন। যদিও পরে বিষয়টি সম্বন্ধে নিশ্চিত ভাবে জানাননি কিছু।

শনিবার বেলা তিনটের সময় শিবসেনা-এনসিপি এবং কংগ্রেস প্রতিনিধি দল মিলে মহারাষ্ট্রের রাজ্যপাল ভগৎ সিং কোশিয়ারির সঙ্গে সাক্ষাৎ করে সরকার গঠনের দাবি জানাবে বলে খবর।

More News