স্ত্রী সুনন্দা পুষ্করের মৃত্যু মামলায় বিচারের সম্মুখীন হতে হবে শশী থারুরকে

স্ত্রী সুনন্দা পুষ্করের আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগে দিল্লি হাইকোর্ট আজ কংগ্রেস সাংসদ শশী থারুরকে জানিয়ে দিল তাঁকে এবার বিচারের সম্মুখীন হতে হবে।

2014 সালে দিল্লির পাঁচতারা হোটেল থেকে উদ্ধার করা হয় সুনন্দা পুষ্করের মৃতদেহ

হাইলাইটস

  • 2014 সালে দিল্লিতে মারা যান সুনন্দা পুষ্কর
  • আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগে শশী থারুরের নামে চার্জশিট
  • স্ত্রী'র প্রতি নিষ্ঠুরতার অভিযোগও রয়েছে তাঁর নামে
নিউ দিল্লি: স্ত্রী সুনন্দা পুষ্করের আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগে দিল্লি হাইকোর্ট আজ কংগ্রেস সাংসদ শশী থারুরকে জানিয়ে দিল তাঁকে এবার বিচারের সম্মুখীন হতে হবে। আগামী 7 জুলাই থেকে প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর বিচারপর্ব শুরু হবে আদালতে। পুলিশের চার্জশিটে এই ঘটনার মূল অভিযুক্ত হিসাবে তাঁর নাম ছিল।
স্ত্রী সুনন্দা পুষ্করের আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগে দিল্লি পুলিশ শশী থারুরের নামে চার্জশিটে অভিযোগ দায়ের করেছে। 2014 সালে দিল্লির একটি পাঁচতারা হোটেল থেকে সুনন্দা পুষ্করের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁর শেষ বার্তা এবং মেলগুলিকে পুলিশ তাঁর মৃত্যুকালীন ঘোষণা হিসাবেই ধরে নিয়েছে।
গত মাসে আদালতে পেশ করা পুলিশের চার্জশিটে কংগ্রেসের এই সাংসদের নামে স্ত্রী’র ওপর নিষ্ঠুরতার অভিযোগও করা হয়েছে।
পুলিশ জানিয়েছে তাঁর মৃত্যুর এক সপ্তাহ আগেই সুনন্দা পুষ্কর তাঁর স্বামীকে মেল করে জানিয়েছিলেন যে তিনি আর বেঁচে থাকতে আগ্রহবোধ করছে না। মৃত্যুর ন’দিন আগে, 8 জানুয়ারির মেলটিতে তিনি লেখেন, “আমার বেঁচে থাকার আর কোনও ইচ্ছা নেই…আমি কেবল নিজের মৃত্যুকামনা করছি”।
চার্জশিটে অভিযুক্ত শশী থারুর প্রসঙ্গে তদন্তকারী দলটির তরফ থেকে বলা হয়েছে, “স্বামী হিসাবে নিজের দায়িত্ব পালন করেননি থারুর। যে সময়ে সুনন্দা পুষ্কর অবসাদগ্রস্থ হয়ে পড়ে মুঠো মুঠো অ্যালপ্র্যাক্স খাচ্ছিলেন, সেই সময়েও থারুর তাঁর পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করেননি বিন্দুমাত্র”।  তাঁদের মধ্যে নিয়মিত ঝগড়া হত। তদন্ত রিপোর্টে বলা হয়েছে, “আঘাতের চিহ্নগুলি তত গুরুতর না হলেও তদন্ত করে দেকা গিয়েছে যে তাঁদের মধ্যে প্রায়শই ভয়াবহ ঝামেলা লাগত”।
একটি বিশেষ তদন্ত দল জানিয়েছে, শশী থারুর তাঁর স্ত্রী’র মৃত্যুর আগের দিন সমস্ত ফোন কল ুপেক্ষা করে অথবা কেটে দেয়। ডর সঙ্গে যোগাযোগ করার জন্য সোশ্যাল মিডিয়ার সহায়তা নিয়েছিলেন। চার্জশিটে বলা হয়েছে, সেই মেসেজগুলিকেও একইরকমভাবে উপেক্ষা করা হয়।
শশী থারুর এই অভিযোগকে ‘অসঙ্গতিপূর্ণ’ বলে দায় ঝেড়েছেন। তাঁর দল কংগ্রেস জানিয়েছে, এই চার্জশিট সম্পূর্ণভাবে ‘রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত’।