This Article is From Feb 24, 2020

পিঠে চাপড় মারতেই রেগে আগুন নবজাতক! চোখগরম ডাক্তারবাবুকেই?

অনেকে ঠাট্টা করে বলছেন, সিজার করে নির্দিষ্ট সময়ের সাত দিন আগে অর্থাৎ ২০ ফেব্রুয়ারি ভূমিষ্ঠ হওয়ার ফলেই কি এত্তো রাগ তার?

পিঠে চাপড় মারতেই রেগে আগুন নবজাতক! চোখগরম ডাক্তারবাবুকেই?

রাগ দেখিয়ে রাতারাতি সুপারস্টার সদ্যোজাত! 

রিও দে জেনেরিও:

কী দিনকাল পড়ল! নবজাতককে কাঁদানোর জন্য ডাক্তারবাবু পিঠে চাপড় মারলে রেগে গিয়ে তাঁকেই চোখগরম করছে সদ্যোজাত?  সম্ভবত বিশ্বের নবম আশ্চর্য বিষয় হতে চলেছে ব্রাজিলের (Brazil) রিও দে জেনেরিও (Rio de Janeiro)-র এই ঘটনা। সেখানকার এক হাসপাতালে ১৩ ফেব্রুয়ারি সদ্যোজাত কন্যা জন্মেছিল। এবং জন্মের পর কিছুতেই কঁদছিল না সে। তখনই তাকে কাঁদাতে পিঠে চাপড় মারতে শুরু করেন ডাক্তারবাবু। ওমা! কাঁদার বদলে রীতিমতো রেগে ওঠে সে। কটমট করে তাকাতে থাকে ডাক্তারের দিকে। নবজাতকের এই অভিব্যক্তি ভাইরাল সোশ্যালে ডাক্তারবাবুরা পর্যন্ত হতবাক সেই দেখে। রাগ দেখিয়ে রাতারাতি সুপারস্টার সেই সদ্যোজাত কন্যা! 

বোমায় উড়েছে হাত, হাড়কে আঙুল বানিয়ে বিশ্বজয় মহীয়সীর! তারপর?

অনেক সময়েই জন্মের সঙ্গে সঙ্গে কাঁদে না নবজাতক। তখন তাঁদের কাঁদাতে এই পদ্ধতিই অবলম্বন করেন চিকিৎসকেরা। একেও তাই-ই করেছিলেন। কিন্তু, ব্যতিক্রম এই শিশু। কান্নার বদলে ভয়ানক রেগে ওঠে সে।অনেকে ঠাট্টা করে বলছেন, সিজার করে নির্দিষ্ট সময়ের সাত দিন আগে অর্থাৎ ২০ ফেব্রুয়ারি ভূমিষ্ঠ হওয়ার ফলেই কি এত্তো রাগ তার?

হাতের মুঠোয় এ কোন প্রাণির বাচ্চা? আসলে ছবির মধ্যে লুকিয়ে তাজ্জব করা এক সত্য!

মা ডায়ান ডি জিসেস বারবোসা নবজাতকের ছবি স্মরণীয় করতে একজন ফটোগ্রাফারের ভাড়া করেছিলেন। তিনিই ছবিগুলি ফেসবুকে শেয়ার করেছেন।

ফটোগ্রাফার জানান, এই অভিব্যক্তি দেখে তড়িঘড়ি নাড়ি কাটেন উপস্থিত ডাক্তারবাবু। তারপরেই নাকি কাঁদতে শুরু করে সেই নবজাতক। মা আদরে করে তাঁর রাগী মেয়ের নাম রেখেছেন ইসাবেল পেরেরা ডি জিসাস। এমন ভিডিও সোশ্যালে শেয়ার হতেই সঙ্গে সঙ্গে ভাইরাল।

Click for more trending news