কলকাতা থেকে গ্রেফতার প্রতারক, দিল্লিতে প্রচুর মানুষকে প্রতারণার অভিযোগ

Delhi Housing Fraud: দ্বারকার বাসিন্দা জয় প্রকাশ সায়নী, পাঁচটি প্রতারণার মামলায় অভিযুক্ত তিনি, ৭.২১ কোটি টাকা প্রতারণার অভিযোগ তাঁর বিরুদ্ধে।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
কলকাতা থেকে গ্রেফতার প্রতারক, দিল্লিতে প্রচুর মানুষকে প্রতারণার অভিযোগ

Delhi Housing Fraud: ২০১৬ সাল থেকে নিখোঁজ ওই ব্যক্তি মিথ্যা পরিচয় দিয়ে কলকাতায় বাস করছিল। (প্রতীকী ছবি)


নয়া দিল্লি: 

দেখতে নিপাট ভদ্রলোক, অথচ কথার জালে একের পর এক ব্যক্তিকে প্রতারণা করছিলেন এক যুবক। শুক্রবার পুলিশ জানিয়েছে দিল্লির বখতাওয়ার পুর এলাকায় একটি সমবায় সমিতির (Delhi Housing Fraud) নামে ফ্ল্যাট দেওয়ার অজুহাতে ৭০০ জনেরও বেশি লোককে প্রতারণার অভিযোগ ওঠে, তারপরেই কলকাতায় ফাঁদ পেতে গ্রেফতার (Arrest) করা হল দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এম.কম. করা ৩৯ বছর বয়সী ওই ব্যক্তিকে। পুলিশ জানিয়েছে, অভিযুক্ত তাঁর শাগরেদদের সঙ্গে নিয়ে নিখোঁজ হওয়ার আগে লোকজনের কাছ থেকে প্রচুর পরিমানে অর্থ সংগ্রহ করেন। ২০১৬ সাল থেকে নিখোঁজ ওই ব্যক্তি মিথ্যা পরিচয় দিয়ে কলকাতায় বাস করছিলেন বলে জানা গেছে। দিল্লির (Delhi) দ্বারকার বাসিন্দা জয় প্রকাশ সায়নী নামে ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে পাঁচটি প্রতারণার মামলা দায়ের রয়েছে। তাঁর বিরুদ্ধে ৭.২১ কোটি টাকা প্রতারণার অভিযোগ উঠেছে।

কলকাতার এক মহিলাকে প্রতারণার দায়ে নাইজেরিয়ানের ৬ মাসের কারাদণ্ড

"২০১৬ সালের জানুয়ারিতে, আমরা একটি অভিযোগ পাই যে, সায়নী তাঁর শাগরেদদের সঙ্গে নিয়ে বখতাওয়ারপুরে বেদান্ত ওয়েলফেয়ার সোসাইটি নামে একটি সমবায় সমিতি তৈরি করেছে। অভিযুক্ত নিজের এজেন্টদের মাধ্যমে ফ্ল্যাটের সদস্যপদ দেওয়ার অজুহাতে লোকজনকে ওই সমবায় সমিতিতে বিনিয়োগ করার বিষয়ে প্ররোচিত করেন। অভিযোগকারী সহ ৭০০ জনেরও বেশি মানুষ ওই সমবায় সমিতির সদস্যপদ নিয়ে ফ্ল্যাট বুক করেন", জানান অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (অপরাধ) অজিত কুমার সিঙ্গলা।

অভিযোগকারী চারটি ফ্ল্যাট বুক করেছিলেন এবং অভিযুক্ত জয় প্রকাশ সায়নীকে প্রায় ৩৪ লক্ষ টাকা দিয়েছিলেন। "অর্থ সংগ্রহের পরে, সায়নী ও তাঁর এজেন্টরা নিখোঁজ হয়ে যায়। একইভাবে আরও ৪৭ জন ভুক্তভোগীও একই  অভিযোগ দায়ের করেন। এরপরেই মামলাটি অর্থনৈতিক অপরাধ শাখায় পাঠানো হয়। এরকম করে সায়নী অন্ততপক্ষে ৪.৩৫ কোটি টাকা প্রতারণা করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে", বলেন দিল্লির অপরাধ দমন শাখার অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার ।

ছ'টি মিসড কলের জেরে ব্যবসায়ীর অ্যাকাউন্ট থেকে উধাও ১.৮৬ কোটি টাকা

তদন্তে আরও জানা গেছে যে রাজধানীর অন্যান্য অংশেও একই রকম ভাবে জালিয়াতির কাজে জড়িত ছিলেন জয় প্রকাশ সায়নী।

পুলিশ সম্প্রতি গোপন সূত্রে খবর পায় যে ত্রৈলোক সিং সিন্ধু নামে মিথ্যা পরিচয় দিয়ে সায়নী কলকাতায় বাস করছেন। তখনই কলকাতায় একটি দল পাঠায় দিল্লি পুলিশ, ওই দলটিই সায়নীকে কলকাতার আস্তানা থেকে ধরে নিয়ে যায়।



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)


পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................