শিবসেনাকে সমর্থন দিলে মুখ্যমন্ত্রী পদেরও দাবি জানাবে এনসিপি: সূত্র

Maharashtra Government Formation: এর আগে বিজেপির সঙ্গে সরকার গড়ার আলোচনা চলাকালীন ঠিক এনসিপির মতোই একই দাবি করেছিল শিবসেনা

শিবসেনাকে সমর্থন দিলে মুখ্যমন্ত্রী পদেরও দাবি জানাবে এনসিপি: সূত্র

রাষ্ট্রপতি শাসন জারি হওয়ায় সরকার গড়ার ব্যাপারে আরও সময় পেল শিবসেনা, মনে করেন Sharad Pawar

হাইলাইটস

  • রাষ্ট্রপতি শাসন জারি হওয়ায় সরকার গড়ার ব্যাপারে আরও সময় পেল শিবসেনা
  • সূত্রের খবর, শিবসেনাকে সমর্থন জানালে মুখ্যমন্ত্রী পদের দাবি জানাবে এনসিপি
  • বিজেপির সঙ্গে সরকার গড়ার আলোচনা চলাকালীন এই একই দাবি করে শিবসেনা
মুম্বই:

মঙ্গলবার মহারাষ্ট্রে রাষ্ট্রপতি শাসন জারির সুপারিশ করেছে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা। কিন্তু তা সত্ত্বেও এখনও সে রাজ্যে (Maharashtra) সরকার গড়ার আশা ছা়ড়েনি শিবসেনা। এখনও শরদ পাওয়ারের (Sharad Pawar) এনসিপি এবং কংগ্রেসের সাহায্য নিয়ে সরকার গড়ার জন্যে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে উদ্ধব ঠাকরের দল (Shiv Sena)। তবে সূত্রের খবর, যদি শেষ পর্যন্ত ন্যাশনালিস্ট কংগ্রেস পার্টি ও কংগ্রেসের সমর্থনে সরকার গঠন করতে সমর্থ হয় তাহলে মুখ্যমন্ত্রী পদের বিষয়েও দাবি জানাবে এনসিপি। জানা গেছে, শিবসেনাকে সমর্থনের প্রশ্নে যে শর্তগুলি শরদ পাওয়ারের দল দিয়েছে তার মধ্যে অন্যতম হল শিবসেনার সঙ্গে ঘুরিয়ে ফিরিয়ে মুখ্যমন্ত্রী পদে বসতে দিতে হবে তাঁদের প্রতিনিধিকেও।

সূত্র মতে, শিবসেনার ৫৬ টি আসন থেকে মাত্র ২টি আসন কম থাকায় এনসিপি মনে করছে যে মহারাষ্ট্রে কংগ্রেস ও তাঁদের সমর্থনে উদ্ধব ঠাকরের দল সরকার গড়লে মুখ্যমন্ত্রী পদের দাবিদার হবে তাঁরাও। মহারাষ্ট্রে সরকার গড়তে ১৪৫ জন বিধায়কের সমর্থন প্রয়োজন, যেখানে কংগ্রেস ও এনসিপি যদি শিবসেনার হাত ধরে তবে তাঁদের মোট বিধায়কের সংখ্যা হবে ১৫৪ জন।

সুপ্রিম কোর্টে শিবসেনা, “বিজেপির পক্ষে কাজ করছেন রাজ্যপাল”, তোপ উদ্ধব ঠাকরের দলের

এর আগে বিজেপির সঙ্গে সরকার গড়ার সময় ঠিক এনসিপির মতোই একই দাবি করেছিল শিবসেনা। তাঁরাও বলে যে শুধু বিজেপির প্রতিনিধিই নন, আড়াই বছর-আড়াই বছর করে মুখ্যমন্ত্রী পদের মেয়াদে ওই আসনে বসতে চান শিবসেনার প্রতিনিধিও। যদিও সেই দাবি খারিজ করে দেয় বিজেপি, ফলে ভেঙে যায় বিজেপি-শিবসেনার সুখের সংসার।

মহারাষ্ট্রে রাষ্ট্রপতি শাসন জারি হওয়ার পর, এনসিপি ও কংগ্রেসের সঙ্গে জোট গড়ে সরকার গঠনের আশা ধরে রাখেন শিবসেনা প্রধান উদ্ধব ঠাকর । দীর্ঘদিনের বিরোধী এবং আদর্শগতভাবেও ভিন্ন দল কংগ্রেসের সঙ্গে মতপার্থক্য সরিয়ে রেখে, তিনি বলেন, একসঙ্গে কাজ করার পথ বের করেছিল মেহবুবা মুফতির পিপিডি এবং বিজেপি, বর্তমান পরিস্থিতিতে এটাও সম্ভব। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তিনি সাংবাদিকদের বলেন, “আমি খুঁজে বের করছি, কীভাবে ভিন্ন আদর্শের দলগুলি বিজেপির সঙ্গে জোট করে”, তিনি আরও বলেন, “আমরা একসঙ্গে কাজ করার পথ বের করব...আমাদের ৬ মাস সময় রয়েছে, এবং আমি বিজেপিকে আদর্শের প্রশ্ন করতে চাই...কী করে তারা নীতিশ কুমার, পাসোয়ান, পিডিপি এবং নাইডুর সঙ্গে যেতে পারে”।

“একসঙ্গে কাজ করার পথ বের করা হবে”, কংগ্রেস এনসিপি নিয়ে বললেন উদ্ধব ঠাকরে

শিবসেনা, এনসিপি ও কংগ্রেসের মধ্যে বারেবারে আলোচনার সমাপ্তি ঘটে সোমবার, শেষ মুহুর্তে. যে সময়ে সমর্থনের চিঠি নিয়ে রাজ্যপালের কাছে যাওয়ার উদ্যোগ নিচ্ছিল শিবসেনা, কংগ্রেস জানিয়ে দেয়, কোনও সিদ্ধান্ত নেয়নি তারা এবং শরদ পাওয়ারের সঙ্গে আলোচনা প্রয়োজন। কঠিন পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে ধীরে চলার বার্তা দিয়েছেন সনিয়া গান্ধি—ফলে শরদ পাওয়ারের দলকে সরকার গঠনে আহ্বান জানিয়েছেন রাজ্যপাল। সেই প্রস্তাবও কার্যকর হয়নি, শরদ পাওয়ার আরও সময় চাওয়ায়, এবং রাজ্যে রাষ্ট্রপতি শাসন জারি হয়।

More News