ব্যাঙ্ক জালিয়াতি মামলায় গ্রেফতার মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীর ভাইপো

অগস্টা ওয়েস্টল্যান্ড চপার কেলেঙ্কারি থেকে শুরু করে ট্যাক্স জালিয়াতি মামলার মতো চলতি মাসে একাধিক মামলায় নাম জড়িয়েছে Ratul Puri-র

মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী কমল নাথের ভাইপো রাতুল পুরি (Ratul Puri )

নয়াদিল্লি:

একাধিকবার গ্রেফতারি এড়ানোর চেষ্টার পর, আজ সকালে, গ্রেফতার হলেন মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী কমল নাথের ভাইপো কমল নাথের ভাইপো রাতুল পুরি (Ratul Puri )। ৩৫৪ কোটি টাকা ব্যাঙ্ক জালিয়াতি মামলায় রাতুল পুরিকে গ্রেফতার করে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। ইলেকট্রনিক্স সংস্থা মোসার বায়ের প্রাক্তন সিনিয়র এক্সিকিউটিভ রাতুল পুরি। তাঁর বিরুদ্ধে সিবিআইয়ের অভিযোগ, ২০০৯ থেকে একাধিক ব্যাঙ্ক থেকে ঋণ নিয়ে, সেই অর্থের অপব্যায় করেছিলেন রাতুল পুরি।তিনি এবং আরও চারজন ডিরেক্টরের বিরুদ্ধে নথি জালিয়াতি করে সেন্ট্রাল ব্যাঙ্ক থেকে ৩৫৪ কোটি টাকা জালিয়াতির অভিযোগ উঠেছে। তাঁর(Ratul Puri )বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সিবিআই এবং সোমবার ৬ জায়গায় তল্লাশি চালানো হয়।

অভিযোগ তোলা হয়েছে, মোসার বায়েরের ম্যানেজিং ডিরেক্টর দীপক পুরি এবং ডিরেক্টর নীতা পুরি, সঞ্জয় জৈন ও বিনিত শর্মার বিরুদ্ধে।

কমপ্যাক্ট ডিস্ক, DVD সহ বিভিন্ন ডিজিটাল ডেটা স্টোরেজ তৈরির কাজ করত মোসার বেয়ার। গত বছরে বন্ধ হয়ে যায় সংস্থাটি।

চলতি মাসে একাদিক মামলায় নাম জড়িয়েছে রাতুল পুরির। তারমধ্যে রেছে, কর জালিয়াতির মতো বিষয়ও। এছাড়াও UPA-1 আমলে, অগস্টা ওয়েস্টল্যান্ড চপার কেলেঙ্কারিতে, ২০০৭-এ ভারতের শীর্ষনেতৃত্বের জন্য একডজন হেলিকপ্টার কেনার ক্ষেত্রে সুবিধা পাইয়ে দিতে ৩,৬০০ কোটি টাকা ঘুষ নেওয়ারও অভিযোগ উঠেছে রাতুল পুরির (Ratul Puri ) বিরুদ্ধে।  যদিও নিজেকে বারবার নির্দোষ বলে দাবি করেছে রাতুল পুরি।

সোমবার, অগস্টা মামলায় তাঁকে ডেকে পাঠায় এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট এবং জানানো হয়, ব্যাঙ্ক জালিয়াতি মামলায় তাঁকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

সোমবার দিল্লির আদালতে তদন্তকারী সংস্থা জানায়, চপার কেলেঙ্কারিতে আর্থিক তছরুপের মামলায় তদন্ত এড়িয়ে চলছিলেন রাতুল পুরি।

Newsbeep

শনিবার, দিল্লি কোর্টে রাতুল পুরি জানান, চপার কেলেঙ্কারির তদন্তে সহযোগিতা করতে প্রস্তুত তিনি, সেই সময়েই জামিন অযোগ্য গ্রেফতারি পরোয়ানা বাতিলের আবেদন জানান রাতুল পুরি।

অভিযোগ, ২৬ জুলাই, তদন্ত চলাকালীন উঠে শৌচালয়ে যান ৪৭ বছর বয়সী এই ব্যবসায়ী। তারপর, তাঁর বাড়ি এবং অফিসে তল্লাশি চালায় ইডি। একদিন পর, আদালতে, গ্রেফতারি থেকে সুরক্ষার আর্জি জানান রাতুল পুরি (Ratul Puri )।

এক সপ্তাহ পর, তিনি সুরক্ষা পান।

৬ অগস্ট তাঁর (Ratul Puri ) আগাম জামিন খারিজ করে দেয় ওই আদালত, পাশাপাশি জামিন অযোগ্য গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হয়।