করোনার সঙ্গে যুঝে মৃত্যু এড়াতে সক্ষম হচ্ছে ভারতীয়রা, বলছে WHO

Coronavirus India :এই রোগ থেকে মৃত্যুর হার এদেশে অনেকটাই কমে এসেছে, যা আশার আলো দেখাচ্ছে স্বাস্থ্য বিজ্ঞানীদের

করোনার সঙ্গে যুঝে মৃত্যু এড়াতে সক্ষম হচ্ছে ভারতীয়রা, বলছে WHO

Coronavirus: বিশ্বের করোনা পরিস্থিতির দিকে নজর রাখছেন হু-এর আধিকারিক ডেভিড নাবারো

হাইলাইটস

  • ভারতের করোনা পরিস্থিতি বর্তমানে চরমে পৌঁছেছে
  • হু-এর আধিকারিকের পূর্বাভাস মিলে গেছে
  • তবে তিনি একথাও বলেছেন যে, করোনার সঙ্গে লড়তে শিখে যাচ্ছেন ভারতীয়রা
নয়া দিল্লি:

গোটা বিশ্বের মতোই ভারতেও এখন আতঙ্কের সবচেয়ে বড় নাম করোনা ভাইরাস। প্রতিদিনই লাফিয়ে লাফিয়ে এদেশে বাড়ছে সংক্রমিতের (Coronavirus) সংখ্যা। সকলেরই একটাই প্রার্থনা, করোনাকে রুখতে খুব তাড়াতাড়ি চলে আসুক একটি ভ্যাকসিন (Corona Vaccine)। ভারতে ৩ টি ভ্যাকসিনের পরীক্ষামূলক ব্য়বহার চললেও এখনও পাকাপাকিভাবে কোনও ভ্যাকসিনেই শিলমোহর পড়েনি। ফলে চিন্তা বাড়াচ্ছে কোভিড-১৯ (Covid-19) পরিস্থিতি। তবে এর মধ্যেও আশার কথা শোনাচ্ছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা হু। এই সংস্থার অন্যতম আধিকারিক ডেভিড নাবারো (David Nabarro) আগেই বলেছিলেন যে জুলাইয়ের শেষ সপ্তাহ থেকে ভারতের করোনা পরিস্থিতি চরম পর্যায়ে পৌঁছে যাবে। তবে তিনি একথাও বলেন যে, এরপরেই পরিস্থিতি ধীরে ধীরে নিয়ন্ত্রণে আসবে। বাস্তবেও কিন্তু দেখা যাচ্ছে, ভারতে এখন প্রতিদিনই রেকর্ড হারে করোনা সংক্রমণ ছড়াচ্ছে। তবে একথাও ঠিক যে, এই রোগ থেকে মৃত্যুর হার এদেশে অনেকটাই কমে এসেছে।

বর্তমানে দৈনিক সংক্রমণের হিসাবে বিশ্বের অন্য সমস্ত দেশকে ছাড়িয়ে গেছে ভারত। প্রতিদিন যেভাবে সংক্রমিতের সংখ্যা বাড়ছে তাতে খুব তাড়াতাড়িই হয়তো ব্রাজিলকে পিছনে ফেলে বিশ্ব তালিকায় দ্বিতীয় নম্বরে পৌঁছে যাবে এদেশ। এমনকী এও মনে করা হচ্ছে, বর্তমানে সংক্রমণের হিসাবে শীর্ষে থাকা আমেরিকাকেও টপকে যাবে ভারত।

তবে সংক্রমণের বাড়বাড়ন্তের মধ্যেও আশা জাগাচ্ছে একটি পরিসংখ্যান। তাতে দেখা যাচ্ছে যে ভারতে করোনার কারণে মৃত্যুর হার কমছে। পাশাপাশি এই রোগ থেকে সুস্থতার হারও লাগাতার বেড়ে চলেছে। বর্তমানে করোনা পুনরুদ্ধারের হার ৭৪% এরও বেশি, যা বিশ্বের অন্য দেশগুলোর তুলনায় অনেকটাই বেশি।

ভারতের বর্তমান করোনা পরিসংখ্যান দেখে এটা বোঝা যাচ্ছে যে এখানকার মানুষজন ধীরে ধীরে এই ভয়ঙ্কর রোগটির সঙ্গে যুঝতে শিখে যাচ্ছেন। কারণ কিছুদিন আগেও যেখানে এদেশে করোনার কারণে মৃত্যুর হার ছিল ২.৪% তা এখন নেমে এসে হয়েছে  ১.৯%। সেই সঙ্গে দেখা যাচ্ছে যেসব করোনা রোগীর মৃত্যু হচ্ছে তাঁদের বেশিরভাগের মৃত্যুর আসল কারণ কোমর্বিডিটি অর্থাৎ অন্য কোনও জটিল রোগের প্রভাব। আরও দেখা যাচ্ছে যে, ভারতের যুবসমাজ এই রোগের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে অনেকটাই এগিয়ে রয়েছেন। সারা বিশ্বের তুলনায় ভারতীয় যুবা সম্প্রদায়ের করোনা থেকে মৃত্যুর হারও যথেষ্ট কম।