This Article is From Apr 21, 2020

রাষ্ট্রপতি ভবনেও করোনা মৃত্যুদূতের হানা, কোয়ারান্টাইন করা হল ১০০-রও বেশি মানুষকে

Coronavirus: রাষ্ট্রপতি ভবনের সচিব পর্যায়ের আধিকারিক এবং তাঁদের পরিবারকে এই পরিস্থিতিতে নিজেদের বাড়িতেই কোয়ারান্টাইন হয়ে থাকতে বলা হয়েছে

রাষ্ট্রপতি ভবনেও করোনা মৃত্যুদূতের হানা, কোয়ারান্টাইন করা হল ১০০-রও বেশি মানুষকে

India COVID-19 Cases: দিন চারেক আগে রাষ্ট্রপতি ভবনের এক সাফাই কর্মীর শরীরে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে

নয়াদিল্লি:

কিছুদিন আগেই প্রধানমন্ত্রী মোদি বলেছেন করোনা ভাইরাস (Coronavirus) জাত-ধর্ম-বর্ণ মানে না। তবে সে যে বিশিষ্ট মানুষজনকেও রেয়াত করে না তার বেশ কয়েকটি উদাহরণ অবশ্য বিশ্বের অন্যান্য দেশে মিলেছে। এমনকী ব্রিটেনের রাজপরিবারেও ঠেকানো যায়নি করোনার হানা। এবার আমাদের দেশেও সেই একই রূপে দেখা যাচ্ছে করোনাকে। সূত্রের খবর, এবার নাকি রাষ্ট্রপতি ভবনেও (India COVID-19 Cases) হানা দিয়েছে COVID- 19। ফলে দেশের প্রথম নাগরিকের স্বাস্থ্য সুরক্ষাই এখন রীতিমতো চ্যালেঞ্জের মুখে। জানা গেছে, রাষ্ট্রপতি ভবনে (Rashtrapati Bhavan) কর্মরত এক সাফাইকর্মীর শরীরেই নাকি মিলেছে করোনা পজিটিভ। স্বভাবতই ওই কর্মী রাষ্ট্রপতি ভবনে কর্মরত অন্যদের সংস্পর্শেও যেহেতু এসেছেন, তাই মনে করা হচ্ছে তাঁর থেকে সংক্রামক ওই ব্যধী অন্যদের শরীরেও ছড়িয়ে পড়তে পারে। তাই সাবধানের মার নেই মন্ত্রকে মনে রেখে আপাতত রাষ্ট্রপতি ভবন কমপ্লেক্সে কর্মরত প্রায় ১০০ জনকে কোয়ারান্টাইন করে রাখা হয়েছে। প্রায় দিন চারেক আগে রাষ্ট্রপতি ভবনের ওই সাফাই কর্মীর শরীরে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে বলে খবর। 

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে অভিবাসন দেওয়া "সাময়িকভাবে স্থগিত” করলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প

রাষ্ট্রপতি ভবনের একটি সূত্র জানিয়েছে, সচিব পর্যায়ের আধিকারিক এবং তাঁদের পরিবারকে এই পরিস্থিতিতে নিজেদের বাড়িতেই কোয়ারান্টাইন হয়ে থাকতে। তবে সেখানকার অন্য কর্মীদের মধ্য দিল্লির একটি কোয়ারান্টাইন সেন্টারে নিয়ে যাওয়া হয়েছে এবং সেখানেই চিকিৎসা পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। তবে আশার কথা এটাই যে, এখনও পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত ওই সাফাই কর্মী ছাড়া বাকিদের শরীরের নমুনা পরীক্ষার ফলাফল করোনা-নেগেটিভ এসেছে। 

"ভারতের নতুন এফডিআই নীতি বিভেদমূলক", অভিযোগ চিনের: ১০ টি তথ্য

এদিকে ভারতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা লাগাতার বেড়ে চলেছে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের হিসাব অনুযায়ী, মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত এদেশে করোনা আক্রান্ত মোট ১৮,৬০১ জন। এর মধ্যে আবার ৫৯০ জনের মৃত্যু হয়েছে ওই মারণ রোগের কারণে। গোটা দেশের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে রাজধানী দিল্লিতেও করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। দেশের মধ্যে সর্বাধিক করোনা আক্রান্তের খোঁজ মিলেছে মহারাষ্ট্রে। আর ঠিক তারপরেই রয়েছে দিল্লি। রাজধানীতে এখনও পর্যন্ত ২ হাজারেরও বেশি মানুষ করোনা ভাইরাসের সঙ্গে লড়াই করছেন।