This Article is From Aug 22, 2020

ঘটনার পুনর্নির্মাণে সুশান্তের আবাসনে সিবিআই! রয়েছেন সিদ্ধার্থ পিঠানি ও রাঁধুনি

রিপোর্ট খতিয়ে দেখে জানা গিয়েছে, গলায় মোটা দড়ির দাগ রয়েছে। অর্থাৎ শ্বাসরোধ হয়ে মৃত্যু। এটা নিশ্চিত করা গিয়েছে।

ঘটনার পুনর্নির্মাণে সুশান্তের আবাসনে সিবিআই! রয়েছেন সিদ্ধার্থ পিঠানি ও রাঁধুনি

সিবিআইয়ের একটা দল সুশান্ত সিং রাজপুতের বান্দ্রার আবাসনে।

মুম্বই/নয়াদিল্লি:

সুশান্তের বান্দ্রার ফ্ল্যাটের দুই আবাসিককে নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে সিবিআই। শনিবার সকালে তদন্তকারী দলের সঙ্গে ছিলেন প্রয়াত অভিনেতার বন্ধু তথা রুমমেট সিদ্ধার্থ পিঠানি এবং তাঁদের রাঁধুনি। এদিন সেন্ট্রাল ফরেন্সিক ল্যাবের সদস্যরাও ছিলেন। ১৩ জুন থেকে ১৪ জুন দুপুর পর্যন্ত ঠিক কী হয়েছিল, তা পুননির্মাণ করতে এদিন প্রয়াত অভিনেতার আবাসনে অভিযান চালায় সিবিআই। ইতিমধ্যে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশের পর এই ঘটনার তদন্তে নেমে সিদ্ধার্থ পিঠানিও এই রাঁধুনির বয়ান রেকর্ড করেছেন গোয়েন্দারা। ডিআরডিও'র মুম্বই অফিস এখন সিবিআইয়ের ওয়্যার হাউস। বয়ান রেকর্ড থেকে তদন্ত পরিচালনা এই অফিস থেকেই চালাচ্ছে তারা। এদিকে, প্রয়াত অভিনেতার ময়না তদন্তের রিপোর্ট হাতে পেয়েছেন গোয়েন্দারা। কুপার হাসপাতালের তরফে সেই রিপোর্ট হস্তান্তর করা হয়েছে সিবিআইকে।

রিপোর্ট খতিয়ে দেখে জানা গিয়েছে, গলায় মোটা দড়ির দাগ রয়েছে। অর্থাৎ শ্বাসরোধ হয়ে মৃত্যু। এটা নিশ্চিত করা গিয়েছে। তাও এই রিপোর্ট এইমসের বিশেষজ্ঞ দল দিয়ে পর্যবেক্ষণ করাতে চায় সিবিআই। তাই আগামী সপ্তাহে মুম্বই পাড়ি দিচ্ছে এইমসের ফরেন্সিক দল। তাদের মন্তব্য, "আমরা খুনের দিকটা খতিয়ে দেখবো। সেটা প্রমাণিত না হলে, মৃত্যুর অন্য কারণ খতিয়ে দেখা হবে।"

এদিকে, সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুরহস্যের তদন্ত করার কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থাকে দিন দুয়েক আগেই অনুমতি দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। তদন্তভার হাতে নিয়ে শুক্রবার সকালেই মুম্বইয়ে পৌঁছেছে সিবিআইয়ের আধিকারিকরা। জানা গেছে, মুম্বইয়ে পৌঁছেই তদন্তের কাজ শুরু করে দিয়েছেন আধিকারিকরা, অভিনেতার বাড়ির এক রাঁধুনিকেও জিজ্ঞাসাবাদও করেছেন তাঁরা। পাশাপাশি মুম্বই পুলিশের সঙ্গে দেখা করে অভিনেতার ময়না তদন্তের রিপোর্ট সহ তদন্তের অন্যান্য নথিও সংগ্রহ করেন সিবিআই আধিকারিকরা। পুলিশ সুপার নূপুর প্রসাদের নেতৃত্বে ১০ সদস্যের তদন্তকারী দলটি সুশান্ত মৃত্যু রহস্যের তদন্ত শুরু করতে গত রাতেই মুম্বই পৌঁছয়। সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর ঘটনার অন্যতম সাক্ষী, তাঁর বাড়ির রাঁধুনিকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছেন সিবিআই আধিকারিকরা।

সিবিআইয়ের ওই তদন্তকারী দলের সঙ্গে থাকা সেন্ট্রাল ফরেনসিক সায়েন্স ল্যাবরেটরির ফরেনসিক বিশেষজ্ঞরাও আজ (শুক্রবার) অভিনেতার বাড়ি ঘুরে দেখবেন।

গত ১৪ জুন বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতকে তাঁর বাড়িতে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায়। প্রাথমিক তদন্তের পর মুম্বই পুলিশ জানায় যে, সুশান্ত আত্মহত্যা করেছেন। যদিও তাঁর বাবা ছেলের মৃত্যুর পর অভিযোগের কাঠগড়ায় তুলেছেন সুশান্তের বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তীকে।