অসমে ভয়ঙ্কর ভূমিধস, মাটি চাপা পড়ে মৃত কমপক্ষে ২০ জন

Assam Landslide: গত কয়েকদিন ধরেও ওই এলাকা জুড়ে নাগাড়ে বৃষ্টি হয়ে চলেছে, প্রচণ্ড বৃষ্টির ফলেই ওই ভূমিধসের ঘটনা ঘটেছে বলে মনে করা হচ্ছে

অসমে ভয়ঙ্কর ভূমিধস, মাটি চাপা পড়ে মৃত কমপক্ষে ২০ জন

Assam: ভূমিধসের খবর পেয়ে উদ্ধারকারী দল দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে পৌঁছেছে

হাইলাইটস

  • গত কয়েকদিন ধরে নাগাড়ে বৃষ্টি চলছে অসমে
  • তার জেরে এবার ওই রাজ্যের দক্ষিণ অংশে ভূমিধসের ঘটনা ঘটলো
  • মাটি চাপা পড়ে ইতিমধ্যেই মৃত্যু হয়েছে ২০ জনের, ঘটনাস্থলে উদ্ধারকারী দল
গুয়াহাটি:

অসমে (Assam) ভয়ঙ্কর ভূমিধস, মাটি (Landslide) চাপা পড়ে মৃত কমপক্ষে ২০ জন, সেরাজ্যের দক্ষিণ অংশে ওই ভূমিধসের ঘটনায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে এলাকায়। জানা গেছে, যাঁরা ইতিমধ্যেই মারা গেছেন তাঁরা মূলত দক্ষিণ অসমের বারাক উপত্যকা অঞ্চলের ৩ জেলার বাসিন্দা। গত কয়েকদিন ধরেও ওই এলাকা জুড়ে নাগাড়ে বৃষ্টি হয়ে চলেছে। প্রচণ্ড বৃষ্টির ফলেই ওই ভূমিধসের (Assam Landslide) ঘটনা ঘটেছে বলে মনে করা হচ্ছে। নিহত ২০ জনের মধ্যে কাছার জেলার বাসিন্দা ৭ জন, আরও ৭ জন হাইলাকান্দি জেলার এবং করিমগঞ্জ জেলায় ৬ জন রয়েছেন বলে একটি সূত্র জানিয়েছে। ওই ঘটনায় আরও বহু মানুষ আহত হয়েছেন বলে খবর। ওই দুর্ঘটনার খবর পেয়ে উদ্ধারকারী দল দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে পৌঁছেছে এবং উদ্ধারকাজে হাত লাগিয়েছে।

এমনিতেই গত কয়েকদিন ধরে ভয়ঙ্কর প্রাকৃতিক দুর্যোগের সঙ্গে লড়াই করছে উত্তর-পূর্বাঞ্চলের ওই রাজ্য। অসমে মারাত্মক বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছেন কমপক্ষে ৩.৭২ লক্ষ মানুষ। সেখানকার গোয়ালপাড়া জেলা বন্যায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে, তারপরেই রয়েছে নাগাঁও এবং হোজাই জেলা।

অসমের বন্যায় সরকারি হিসাবে এখনও পর্যন্ত ৬ জন মানুষ মারা গেছেন এবং ৩৪৮ টি গ্রাম বন্যার জলে ডুবে রয়েছে। ওই রাজ্যের দুর্যোগ মোকাবিলা বাহিনী জানিয়েছে যে. অসমে প্রায় ২৭,০০০ হেক্টর জমির ফসল নষ্ট হয়ে গেছে প্রবল বন্যার কারণে। অর্থাৎ রীতিমতো জীবনের লড়াই লড়তে ব্যস্ত অসমবাসী।