উপনির্বাচনেও অশান্তি! বিজেপি প্রার্থী জয়প্রকাশ মজুমদারকে লাথি মেরে ফেলে দেওয়া হল ঝোপে!

Jayprakash Majumdar: করিমগঞ্জ (Karimpur) রয়েছে তৃণমূলের দখলে, খড়গপুর (Kharagpur) বিজেপির এবং কালিয়াগঞ্জ (Kaliaganj) কংগ্রেসের। তবে সংঘর্ষের খবর মিলছে সব জায়গাতেই।

করিমপুরের বিজেপি প্রার্থী Jay Prakash Majumdar-কে লাথি মেরে ফেলে দেওয়া হয়েছে রাস্তার পাশের ঝোপে

হাইলাইটস

  • করিমগঞ্জ, কালিয়াগঞ্জ, খড়গপুরে চলছে উপনির্বাচন
  • করিমগঞ্জ রয়েছে তৃণমূলের দখলে, খড়গপুর বিজেপির এবং কালিয়াগঞ্জ কংগ্রেসের
  • বিজেপির ক্রমবর্ধমান চাপে রয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়
কলকাতা:

পশ্চিমবঙ্গে তিনটি বিধানসভা আসনে চলছে উপ নির্বাচন (Bypolls)। এই রাজ্যে লোকসভা নির্বাচনের বিজেপির চমকপ্রদ ফলাফলের ঠিক ছয় মাস পরে তিনটি আসনে ভোটপর্বেও নানা অশান্তির খবর উড়ে আসছে সব কেন্দ্র থেকেই। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বারেবারে পশ্চিমবঙ্গে রাজনৈতিক হিংসা ছড়ানোর অভিযোগ তুলেছেন শাসকদল তৃণমূলের বিরুদ্ধে। এই রাজ্যে বিজেপির লোকসভা আসনের সংখ্যা ২ থেকে এক লাফে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৮ তে! ক্ষমতাসীন তৃণমূল কংগ্রেসের দখলে থাকা আসনের সংখ্যা নেমে এসেছে ২২-এ। আজ সোমবার যে তিনটি আসনে ভোটগ্রহণ হচ্ছে, তা অবশ্য বিভিন্ন দলের হাতেই রয়েছে। করিমপুর (Karimpur) রয়েছে তৃণমূলের দখলে, খড়গপুর (Kharagpur) বিজেপির এবং কালিয়াগঞ্জ (Kaliaganj) কংগ্রেসের। তবে সংঘর্ষের খবর মিলছে সব জায়গাতেই। করিমপুরের বিজেপি প্রার্থী (BJP candidate in Karimpur) জয় প্রকাশ মজুমদারকে (Jay Prakash Majumdar) কোমরে লাথি মেরে রাস্তার পাশে ঝোপে ফেলে দেওয়ার ঘটনাইয় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। এই আক্রমণের পিছনে তৃণমূল কর্মীদেরই দায়ী করেছেন জয়প্রকাশ মজুমদার। তার কথায়, এই আক্রমণটি “বাংলায় গণতন্ত্রের অবসানের সুস্পষ্ট লক্ষণ।” বাংলায় বিজেপির সহ-সভাপতি (Bengal BJP Vice President) জয়প্রকাশ অবশ্য বলছেন, “এতে আমার মোটেও মন খারাপ হবে না এবং আমি সমস্ত বুথ ঘুরে দেখব। আমি নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ করেছি।”

তবে তৃণমূল পাল্টা সুর চড়িয়ে জানিয়েছে জয়প্রকাশ মজুমদার নির্বাচনের পরিবেশ ‘খারাপ' করছিলেন, সেই কারণেই তাকে আক্রমণ করা হয়েছিল। নির্বাচন কমিশন এই বিষয়ে একটি প্রতিবেদন চেয়েছে।

অন্যদিকে, কালিয়াগঞ্জ আসনের একটি ভোটগ্রহণ কেন্দ্রে বিজেপি প্রার্থী তার স্ত্রীকে ভোট দিতে সাহায্য করার ঘটনা প্রকাশ্যে আসায় ওই কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসারকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

বিধায়ক প্রমথ নাথ রায়ের মৃত্যুর পরে কালিয়াগঞ্জের আসনটি খালি পড়ে রয়েছে। এপ্রিল-মে মাসে নির্বাচনে দুই বিধায়ক (তৃণমূলের মহুয়া মৈত্র এবং বিজেপির দিলীপ ঘোষ) সাংসদ নির্বাচিত হওয়ার পরে অন্য দু'টি আসনও খালি হয়ে যায়।

k2uhbss

পশ্চিমবঙ্গে তিনটি বিধানসভা আসনে চলছে উপ নির্বাচন

এই উপনির্বাচনে বাম ও কংগ্রেস একটি সমঝোতায় পৌঁছেছে। করিমপুর আসন থেকে বামেরা প্রার্থী দিয়েছে এবং কংগ্রেস অন্য দু'ই আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে।

যদিও মাত্র তিনটি আসনে ভোটগ্রহণ হলেও, তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষে এই উপনির্বাচনও সমান গুরুত্বপূর্ণ। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যে ক্রমশ প্রভাব বিস্তারকারী বিজেপির চাপের মুখেই রয়েছেন। রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনে আর ১৮ মাস বাকি। এরই মধ্যে এই উপনির্বাচন সেই মূল নির্বাচনের ভাবগতিক বুঝতে সাহায্য করতে পারে।