মিথ্যা হলফনামা দিয়েছেন অর্জুন সিং, তাঁর সাংসদ পদ বাতিল করা হোক: তৃণমূল

West Bengal: "অর্জুন সিং কোটি কোটি টাকার শেয়ার কিনেছিলেন কিন্তু নিজের হলফনামায় সেগুলোর কোনওকিছুই উল্লেখ করেননি তিনি", অভিযোগ তুলেছেন এক তৃণমূল নেতা

মিথ্যা হলফনামা দিয়েছেন অর্জুন সিং, তাঁর সাংসদ পদ বাতিল করা হোক: তৃণমূল

Arjun Singh: বিজেপির টিকিটে লোকসভা নির্বাচনে জয়লাভের পর সাংসদ হন এই নেতা (ফাইল চিত্র)

হাইলাইটস

  • বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিংয়ের বিরুদ্ধে তৃণমূল কংগ্রেসের আক্রমণ
  • মিথ্যে হলফনামা দিয়েছেন অর্জুন, দাবি রাজ্যের শাসক দলের
  • এই অভিযোগকে ভিত্তিহীন বলে পাল্টা দাবি করেছেন অর্জুন সিং
কলকাতা:

ফের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিংয়ের (Arjun Singh) বিরুদ্ধে তোপ দাগলো তৃণমূল কংগ্রেস। বুধবার ওই বিজেপি (BJP) নেতার লোকসভার সাংসদ পদ বাতিলের দাবি জানালো রাজ্যের (West Bengal) শাসক দল। ঘাসফুলের (TMC) দলের অভিযোগ, গত বছর লোকসভা নির্বাচনের আগে অর্জুন সিং একটি "মিথ্যা হলফনামা" দিয়েছিলেন। ২০১৯ সালে তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে গেরুয়া দলে যোগ দেন অর্জুন সিং। তারপর থেকেই পুরনো দলের তরফ থেকে তাঁকে সুযোগ পেলেই আক্রমণ করা হয়েছে। এবারেও তাই তৃণমূল কংগ্রেসের তোলা এই অভিযোগকে ভিত্তিহীন বলেই উড়িয়ে দিয়েছেন ওই বিজেপি নেতা। শুধু তাই নয়, তাঁর বিরুদ্ধে তোলা অভিযোগ প্রমাণ করার জন্যও রাজ্যের শাসক দলকে চ্যালেঞ্জ জানিয়েছেন অর্জুন সিং।

তৃণমূল কংগ্রেসের উত্তর ২৪ পরগনার জেলা শাখার প্রবীণ নেতা সোমন্ত শাম অর্জুন সিংয়ের বিরুদ্ধে ওই অভিযোগ তোলেন। তিনি বলেন, "অর্জুন সিং কোটি কোটি টাকার শেয়ার কিনেছিলেন কিন্তু নিজের হলফনামায় সেগুলোর কোনওকিছুই উল্লেখ করেননি তিনি। তিনি নির্বাচন কমিশনের সামনে মিথ্যা কথা বলেছিলেন।" শাম আরও বলেন, "আমরা খুব তাড়াতাড়ি এই বিষয়টি নিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হবো। আদালতে আমরা তাঁকে লোকসভার সাংসদ পদ থেকে বরখাস্ত করার অনুরোধ জানাবো। আমরা নির্বাচন কমিশনের কাছেও এবিষয়ে আবেদন করবো এবং তাঁর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য অনুরোধ করবো।" 

যদিও অর্জুন সিং তৃণমূলের তোলা সমস্ত অভিযোগকে "ভিত্তিহীন" বলে উল্লেখ করেছেন। ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদ বলেন, "তৃণমূল কংগ্রেসকে প্রথমে এই অভিযোগ আগে প্রমাণ করতে দিন। তারপরে তো তাঁরা আমার সাংসদ পদ কাড়ার চেষ্টা করবে। আসলে এই সব অভিযোগই ভিত্তিহীন।"

অর্জুন সিং বিজেপির টিকিটে লোকসভা নির্বাচনে জয়লাভের পর তাঁর নির্বাচনী এলাকার অন্তর্গত ভাটপাড়ায় বেশ কয়েকটি রাজনৈতিক সহিংসতার ঘটনা ঘটে। তিনি এর আগে তৃণমূল কংগ্রেসের বিধায়ক ছিলেন। পরে লোকসভা নির্বাচনের কিছুদিন আগে তিনি দলবদল করে বিজেপিতে আসেন।



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)