Bjp


'Bjp' - 746 News Result(s)

  • বিজেপির বিক্ষোভের মুখে তৃণমূলের রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সি

    বিজেপির বিক্ষোভের মুখে তৃণমূলের রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সি

    উত্তরবঙ্গ যাওয়ার পথে বিজেপি কর্মীদের বিক্ষোভের মুখে পড়লেন তৃণমূলের রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সি। তৃণমূলের বিরুদ্ধে রাজ্যে সন্ত্রাস নিয়ন্ত্রণ করতে না পারার অভিযোগ তুলে, তাঁর গাড়ি ঘেরাও করে গো ব্যাক ধ্বনি দিতে থাকেন বিজেপি কর্মীরা, পাশাপাশি তাঁকে কালো পতাকাও দেখানো হয়। এদিন কোচবিহারের শীতলকুচিতে দলীয় সভায় যোগ দিতে যাচ্ছিলেন সুব্রত বক্সি।

  • বাংলায় দুষ্কৃতীদের খতম করতে আনা হবে “ইউপি মডেল”: বিজেপি

    বাংলায় দুষ্কৃতীদের খতম করতে আনা হবে “ইউপি মডেল”: বিজেপি

    এ রাজ্যে ক্ষমতায় এলে দুষ্কৃতীদের খতম করতে “ইউপি মডেল” (UP Model) বা “উত্তরপ্রদেশ মডেল” ফলো করবে দল, যার মাধ্যমে সমাজবিরোধীদের এনকাউন্টারে খতম করতে পুলিশকে অবাধ স্বাধীনতা দেওয়া হবে, বিজেপি (BJP) নেতার এই মন্তব্যে নতুন করে ফের বাকযুদ্ধে জড়াল কেন্দ্র ও রাজ্যের শাসকদল।

  • আরও এক তৃণমূল বিধায়কের বিজেপিতে যোগ, “এটা শুধুমাত্র ট্রেলার”: মুকুল রায়

    আরও এক তৃণমূল বিধায়কের বিজেপিতে যোগ, “এটা শুধুমাত্র ট্রেলার”: মুকুল রায়

    সোমবার বিজেপিতে যোগ দিলেন আরও এক তৃণমূল (TMC) বিধায়ক এবং জেলা পরিষদের ১০ জন সদস্য। আর তাতেই উচ্ছ্বসিত গেরুয়া শিবির এবং দলের অন্যতম নেতা মুকুল রায়। সোমবার তাঁদের যোগদানের পরেই তিনি বললেন, “এটা শুধুমাত্র ট্রেলার, এখনও পুরো ছবি বাকি”। তৃণমূল তথা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শিবিরে ধাক্কা দিয়ে সোমবার বিজেপিতে যোগ দিলেন দক্ষিণ দিনাজপুরের কালচিনির তিনবারের বিধায়ক উইলসন চম্প্রামারি (Wilson Champramary) এবং জেলা পরিষদের সভাধিপতি লিপিকা রায়সহ ১০ সদস্য। নয়াদিল্লিতে দলের সদর দফতরে তাঁদের যোগদানের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মুকুল রায়, কৈলাশ বিজয়বর্গীয় সহ বিজেপি (BJP) নেতারা। এদিন উইলসন চম্প্রামারির সঙ্গে বিজেপিতে যোগদান করেন জোড়াফুল শিবিরেই অন্যতম নেতা বিপ্লব মিত্রও।

  • স্বাভাবিক হচ্ছে ভাটপাড়া, তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষের ঘটনায় এখনও পর্যন্ত গ্রেফতার ৮

    স্বাভাবিক হচ্ছে ভাটপাড়া, তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষের ঘটনায় এখনও পর্যন্ত গ্রেফতার ৮

    ক্রমশই স্বাভাবিক হচ্ছে উত্তর ২৪ পরগনার ভাটপাড়ার (Bhatpara) পরিস্থিতি। গত সপ্তাহে রাজনৈতিক হিংসার জেরে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে ওই অঞ্চল। ঘটনার তদন্তে নেমে ইতিমধ্যেই ৮ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানা গেছে। সোমবার ভাটপাড়ায় (Bhatpara) খুলেছে বিদ্যালয়, স্বাভাবিক হয়েছে গণ পরিবহনও ব্যবস্থাও। তবে এলাকার শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখতে ব্যারাকপুরের পুলিশ কমিশনার মনোজ কুমার বর্মার নেতৃত্বে চলে রুটমার্চ।  পাশাপাশি বিভিন্ন বিদ্যালয় সংলগ্ন এলাকার নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে সেখানেও টহল  দিয়েছে পুলিশ বাহিনী।পুলিশ কমিশনার মনোজ কুমার বর্মা বলেন, “আমরা ইতিমধ্যেই ৮ জনকে গ্রেফতার করেছি, রবিবার ৬০ টি দেশি বোমাও উদ্ধার করেছি। পরিস্থিতি ক্রমশই স্বাভাবিক হচ্ছে, বন্ধ বিদ্যালয়গুলি খোলা হয়েছে এবং বাস চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে”।

  • আনুষ্ঠানিকভাবে বিজেপিতে যোগ দিলেন বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর

    আনুষ্ঠানিকভাবে বিজেপিতে যোগ দিলেন বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর

    সোমবার আনুষ্ঠানিকভাবে বিজেপিতে যোগ দিলেন ভারতের বিদেশমন্ত্রী (Foreign Minister) তথা, প্রাক্তন বিদেশসচিব এস জয়শঙ্কর(S Jaishankar )। এদিন সংসদ ভবনে দলের সভাপতি জেপি নাড্ডার উপস্থিতিতে গেরুয়া শিবিরে যোগ দিলেন তিনি। ১৯৭৭ ব্যাচের আইএফএস অফিসার এস জয়শঙ্কর। দেশের বিদেশ সচিব হিসেবে কাজ করেছেন তিনি। লোকসভা নির্বাচনের পর, নরেন্দ্র মোদির মন্ত্রিসভায় চমক হিসাবে তিনি থাকবেন বলে শোনা যাচ্ছিল। গুজরাটের রাজ্যসভা থেকে ডঃ জয়শঙ্করকে(S Jaishankar ) প্রার্থী করা হতে পারে। নিয়ম অনুযায়ী, শপথগ্রহণের ৬ মাসের মধ্যে তাঁকে সংসদের সদস্য হতে হবে। সংবাদ সংস্থা এএনআই জানিয়েছে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত এস জয়শঙ্কর এবং বিদেশ নীতির ক্ষেত্রে তিনি প্রধানমন্ত্রীর “ক্রাইসিস ম্যানেজার” বলে পরিচিত। নরেন্দ্র মোদি ক্ষমতায় আসার পর, ২০১৫-এ বিদেশ সচিব হন তিনি, ২০১৮ পর্যন্ত এই পদে ছিলেন এস জয়শঙ্কর।

  • কলকাতার বুদ্ধিজীবীরা ভীতু আর সুবিধাবাদী: তোপ দিলীপ ঘোষের

    কলকাতার বুদ্ধিজীবীরা ভীতু আর সুবিধাবাদী: তোপ দিলীপ ঘোষের

    বিজেপি রাজ্য সভাপতির এই মন্তব্যে স্বাভাবিকভাবেই ক্ষুব্ধ মেদিনীপুর পৌরসভার নবনির্বাচিত বিধায়ক এবং স্থানীয় মানুষ। একই সঙ্গে কলকাতার মেয়র এবং শাসকদলের প্রথম সারির নেতা ফিরহাদ হাকিমের দাবি, এমন উস্কানিমূলক মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চাইতে হবে দিলীপ ঘোষকে। 

  • বিজেপি যেন ‘জঙ্গি সংগঠন, গুন্ডা ভাড়া করে এনেছে রাজ্যে’: তৃণমূল

    বিজেপি যেন ‘জঙ্গি সংগঠন, গুন্ডা ভাড়া করে এনেছে রাজ্যে’: তৃণমূল

    বিজেপি যেন ‘‘একটা জঙ্গি সংগঠন’’। তারা ভিন রাজ্য থেকে ‘‘গুন্ডা ভাড়া করে এনে’’ রাজ্যের পরিবেশ অশান্ত করে তুলছে। এভাবেই তৃণমূল কংগ্রেস আক্রমণ করল বিজেপিকে।

  • পুলিশের গুলিতে আহত দলের দুই কর্মী ও এক কিশোর, অভিযোগ বিজেপির

    পুলিশের গুলিতে আহত দলের দুই কর্মী ও এক কিশোর, অভিযোগ বিজেপির

    বাঁকুড়ায় রাজনৈতিক সংঘর্ষে পুলিশের গুলিতে তাদের দলের দুই কর্মী এবং একজন নাবালক আহত হয়েছে বলে অভিযোগ করল রাজ্য বিজেপি (BJP)। গেরুয়া শিবিরের নেতাদের দাবি, শনিবার বাঁকুড়ার পাত্রসায়রে শুভেন্ধু আধিকারির সভা থেকে বাড়ি ফিরছিলেন তৃণমূল (TMC) কর্মীরা। সেই সময় তাঁদের সামনেই “জয় শ্রী রাম” স্লোগান দেন তিনজন। আর তাতেই তৃণমূল কর্মীদের সঙ্গে বিজেপির সংঘর্ষের সূত্রপাত। এরপরেই দুই দলের মধ্যে সংঘর্ষ বাঁধে। বিজেপির (BJP) অভিযোগ ভিড় হঠাতে গুলি চালিয়েছে পুলিশ। যদিও সেই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস (TMC)  এবং পুলিশ। এক পুলিশ আধিকারিক বলেন, “আমাদের কর্মীদের  লক্ষ্য করে পাথর ছোঁড়া শুরু হওয়ায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আমরা লাঠিচার্জ করি এবং কাঁদানে গ্যাসের সেল ফাটাই”।

  • শ্যামাপ্রসাদের মৃত্যুদিনে বিজেপির আক্রমণ কংগ্রেস ও জওহরলাল নেহরুকে

    শ্যামাপ্রসাদের মৃত্যুদিনে বিজেপির আক্রমণ কংগ্রেস ও জওহরলাল নেহরুকে

    ভারতীয় জন সঙ্ঘের প্রতিষ্ঠাতা শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের (Syama Prasad Mookerjee) মৃত্যুর পরে তাঁর আত্মীয়দের অনুরোধ সত্ত্বেও মৃত্যুর তদন্ত না করার জন্য প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহরুর (Jawaharlal Nehru) দিকে অভিযোগের আঙুল তুলল বিজেপি (BJP)। দলের দায়িত্বপ্রাপ্ত সভাপতি জেপি নাড্ডা ও কর্নাটকের রাজ্য বিজেপির প্রধান বিএস ইয়েদুরাপ্পা রবিবার এই প্রসঙ্গে অভিযুক্ত করলেন কংগ্রেসকে। শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের মৃত্যুবার্ষিকীতে সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে ইয়েদুরাপ্পা জানান, ‘‘রহস্যময় ভাবে ওঁর মৃত্যু হয়েছিল। তৎকালীন জওহরলাল নেহরুর কংগ্রেস সরকার কোনও তদন্তই করেনি। শোকগ্রস্ত শ্যামাপ্রসাদের মায়ের লেখা চিঠির কোনও উত্তর দেননি নেহরু।''

  • পুলিশের গুলিতেই বৃহস্পতিবার মৃত্যু হয় ২ জনের, দাবি বিজেপির

    পুলিশের গুলিতেই বৃহস্পতিবার মৃত্যু হয় ২ জনের,  দাবি বিজেপির

    শনিবার উত্তর ২৪ পরগনার ভাটপাড়ার (Bhatpara) পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে সেখানে যায় বিজেপির (BJP) ৩ সদস্যের প্রতিনিধি দল। বৃহস্পতিবার দুই গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষ চলাকালীন পুলিশের গুলিতেই মৃত্যু হয়েছে ২ জনের, বলে দাবি করে গেরুয়া প্রতিনিধি দলটি। প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা বিজেপি সাংসদ আলহুওয়ালিয়ার নেতৃত্বে ওই প্রতিনিধি দলে ছিলেন আরও ২ সদস্য, সাংসদ সত্যপাল সিং, বি ডি রাম সহ বিজেপির রাজ্য নেতৃত্ব।“আমরা মৃত ও আহতদের পরিবার এবং স্থানীয় লোকজনের সঙ্গে কথা বলে দেখেছি।আমরা পুলিশের ব্যবহৃত স্বয়ংক্রিয় রাইফেলের বুলেটের অংশবিশেষও পেয়েছি। এই ঘটনা প্রমাণ করছে যে বৃহস্পতিবার বিজেপি কর্মীদের মারতেই গুলি চালিয়েছিল পুলিশ”,অভিযোগ আলুয়ালিয়ার।

  • ফের অশান্ত ভাটপাড়া! বিজেপির প্রতিনিধি দল পরিস্থিতি দেখতে যাওয়ার পরেই সংঘর্ষ

    ফের অশান্ত ভাটপাড়া! বিজেপির প্রতিনিধি দল পরিস্থিতি দেখতে যাওয়ার পরেই সংঘর্ষ

    রাজনৈতিক সংঘর্ষের পর ভাটপাড়ার (Bhatpara) পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী এস এস আহলুয়ালিয়ার নেতৃত্বে শনিবার সেখানে যায় বিজেপির ৩ সদস্যের প্রতিনিধি দল। আর এর পরেই নতুন করে ফের সংঘর্ষ বাধে ওই এলাকায়। 

  • উত্তপ্ত ভাটপাড়ায় যাচ্ছে বিজেপির প্রতিনিধি দল

    উত্তপ্ত ভাটপাড়ায় যাচ্ছে বিজেপির প্রতিনিধি দল

    রাজনৈতিক সংঘর্ষে বৃহস্পতিবার উত্তপ্ত হয়ে উঠেছিল উত্তর ২৪ পরগনার ভাটপাড়া। ঘটনায় এক কিশোরসহ দুজনের মৃত্যু হয় এবং অনেকেই আহত হন। সেখানকার সামগ্রিক পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে শনিবার সুরিন্দর সিং আলুয়ালিয়ার নেতৃত্বে তিনজনের প্রতিনিধি দল পাঠানো হবে বলে জানাল বিজেপি। দলের জাতীয় সম্পাদক কৈলাশ বিজয়বর্গীয়কে উদ্ধৃত করে সংবাদসংস্থা পিটিআই জানিয়েছে, “এসএস আলুয়ালিয়াসহ প্রতিনিধি দলে থাকবেন সত্যপাল সিং, বিডি রাম, তাঁদের সঙ্গে থাকবেন রাজ্য নেতারা”। দলীয় সূত্রের দাবি, তিনজনের প্রতিনিধি দল ভাটপাড়ার সামগ্রিক পরিস্থিতি খতিয়ে দেবে একটি রিপোর্ট তৈরি করবে এবং তা তুলে দেওয়া হবে, বিজেপি সভাপতি তথা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের হাতে।

  • ভাটপাড়ায় হিংসা, অশান্তির বলি ২, অমিত শাহের দ্বারস্থ হচ্ছে বিজেপি: ১০টি তথ্য

    ভাটপাড়ায় হিংসা, অশান্তির বলি ২, অমিত শাহের দ্বারস্থ হচ্ছে বিজেপি: ১০টি তথ্য

    ফের রক্তাক্ত বাংলা বৃহস্পতিবার ফের রাজনৈতিক হিংসার বলি হতে হল দুইজনকে, আহত আরও তিনজন।কলকাতা থেকে ৩০ কিমি দূরে ভাটপাড়ায় ঘটল ঐ হিংসার ঘটনা।লোকসভা নির্বাচন চলাকালীন এই ভাটপাড়াই উঠে এসেছিল সংবাদের শিরোনামে।কী কারণে এই হানাহানি, তা এখনও স্পষ্ট না হলেও স্থানীয় সূত্রে খবর, এই হিংসার ঘটনার সময় বোমাবাজির পাশাপাশি চালানো হয় গুলিও। পরিস্থিতি সামাল দিতে কাঁদানে গ্যাস ছোঁড়ে পুলিশ, কারও কারও মতে শূন্যে গুলিও ছোঁড়ে তাঁরা। এর আগে লাগাতার রাজনৈতিক হিংসার ঘটনায় রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা রক্ষার প্রশ্নে কেন্দ্র নিশানা করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে(MAMATA BANERJEE), কেন্দ্রীয় চাপের মুখে থাকা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী(CM) এদিনের ঘটনার পর এলাকায় বৃহত্তর সমাবেশে নিষেধাজ্ঞা জারির নির্দেশ দিয়েছেন। বিরোধী দল বিজেপি (BJP) ভাটপাড়ার হিংসার ঘটনায় তৃণমূল কংগ্রেসকেই (TMC) অভিযোগের কাঠগড়ায় তুলেছে। পাশাপাশি এই ঘটনার বিস্তারিত রিপোর্ট কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে(AMIT SHAH) পাঠাতে চলেছে তাঁরা।

  • এসেই যথেচ্ছাচার চালাচ্ছেন; বিশ্বজিৎ দাসকে নিয়ে প্রবল আপত্তি গেরুয়া শিবিরে

    এসেই যথেচ্ছাচার  চালাচ্ছেন; বিশ্বজিৎ দাসকে নিয়ে প্রবল আপত্তি গেরুয়া শিবিরে

    দলীয় কর্মী-সদস্যদের মতে, দল পরিবর্তন করেই তিনি যথেচ্চাচার করছেন। তাঁর কথা শোনার জন্য রীতিমতো অত্যাচার চালাচ্ছেন কর্মীদের ওপর। অবিলম্বে তাঁকে সরিয়ে নেওয়ার অনুরোধ জানাচ্ছেন তাঁরা। প্রসঙ্গত, বাগনান উত্তর থেকে দু-বার জিতে আসা বিধায়ক বিশ্বজিত দল বদল করেন সম্প্রতি।

  • মমতার ইগো, রাজ্যের উন্নয়নে ব্যাঘাত ঘটাচ্ছে, তৃণমূলের সময় হয়ে গেছে: কৈলাশ বিজয়বর্গীয়

    মমতার ইগো, রাজ্যের উন্নয়নে ব্যাঘাত ঘটাচ্ছে, তৃণমূলের সময় হয়ে গেছে: কৈলাশ বিজয়বর্গীয়

    বিজেপির (BJP) সাধারণ সম্পাদক কৈলাস বিজয়বর্গীয় (Kailash Vijayvargiya) বুধবার পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) বিরুদ্ধে অভিযোগ আনলেন যে, মুখ্যমন্ত্রী রাজ্যের উন্নয়নকে আটকে দিচ্ছেন নিজের অহংকে তুষ্ট করতে গিয়ে। এদিন দলের কর্মীদের একটি অন্তর্বর্তী বৈঠকে কৈলাস ক্ষোভ উগরে দিলেন মমতার (Mamata Banerjee) প্রতি। তিনি বলেন, ‘‘উনি জনতার সেবা করার থেকে নিজের চেয়ার বাঁচাতেই বেশি ব্যস্ত। উনি সুপ্রিম কোর্ট, নির্বাচন কমিশন, নীতি আয়োগ, প্রধানমন্ত্রী, কেন্দ্রীয় সরকার কাউকেই মানেন না। উনি এমন ভাব করছেন যেন বাংলা দেশের একটা অংশ নয়, আলাদা দেশ। নিজের অহংকে তুষ্ট করতে গিয়ে মমতা দেশের স্বার্থের ক্ষতি করছেন।'' মঙ্গলবার মমতা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ডাকা সর্বদলীয় বৈঠকে যাবেন না বলে জানিয়ে দিয়েছিলেন। ওই বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী প্রস্তাবিত ‘এক দেশ এক নির্বাচন' নিয়ে আলোচনা হওয়ার কথা ছিল। মমতা সেখানে না গিয়ে জানিয়ে দেন একটি ‘শ্বেতপত্র' প্রকাশ করুক কেন্দ্র। তারপর তা নিয়ে আলোচনা হবে।

'Bjp' - 746 News Result(s)

  • বিজেপির বিক্ষোভের মুখে তৃণমূলের রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সি

    বিজেপির বিক্ষোভের মুখে তৃণমূলের রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সি

    উত্তরবঙ্গ যাওয়ার পথে বিজেপি কর্মীদের বিক্ষোভের মুখে পড়লেন তৃণমূলের রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সি। তৃণমূলের বিরুদ্ধে রাজ্যে সন্ত্রাস নিয়ন্ত্রণ করতে না পারার অভিযোগ তুলে, তাঁর গাড়ি ঘেরাও করে গো ব্যাক ধ্বনি দিতে থাকেন বিজেপি কর্মীরা, পাশাপাশি তাঁকে কালো পতাকাও দেখানো হয়। এদিন কোচবিহারের শীতলকুচিতে দলীয় সভায় যোগ দিতে যাচ্ছিলেন সুব্রত বক্সি।

  • বাংলায় দুষ্কৃতীদের খতম করতে আনা হবে “ইউপি মডেল”: বিজেপি

    বাংলায় দুষ্কৃতীদের খতম করতে আনা হবে “ইউপি মডেল”: বিজেপি

    এ রাজ্যে ক্ষমতায় এলে দুষ্কৃতীদের খতম করতে “ইউপি মডেল” (UP Model) বা “উত্তরপ্রদেশ মডেল” ফলো করবে দল, যার মাধ্যমে সমাজবিরোধীদের এনকাউন্টারে খতম করতে পুলিশকে অবাধ স্বাধীনতা দেওয়া হবে, বিজেপি (BJP) নেতার এই মন্তব্যে নতুন করে ফের বাকযুদ্ধে জড়াল কেন্দ্র ও রাজ্যের শাসকদল।

  • আরও এক তৃণমূল বিধায়কের বিজেপিতে যোগ, “এটা শুধুমাত্র ট্রেলার”: মুকুল রায়

    আরও এক তৃণমূল বিধায়কের বিজেপিতে যোগ, “এটা শুধুমাত্র ট্রেলার”: মুকুল রায়

    সোমবার বিজেপিতে যোগ দিলেন আরও এক তৃণমূল (TMC) বিধায়ক এবং জেলা পরিষদের ১০ জন সদস্য। আর তাতেই উচ্ছ্বসিত গেরুয়া শিবির এবং দলের অন্যতম নেতা মুকুল রায়। সোমবার তাঁদের যোগদানের পরেই তিনি বললেন, “এটা শুধুমাত্র ট্রেলার, এখনও পুরো ছবি বাকি”। তৃণমূল তথা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শিবিরে ধাক্কা দিয়ে সোমবার বিজেপিতে যোগ দিলেন দক্ষিণ দিনাজপুরের কালচিনির তিনবারের বিধায়ক উইলসন চম্প্রামারি (Wilson Champramary) এবং জেলা পরিষদের সভাধিপতি লিপিকা রায়সহ ১০ সদস্য। নয়াদিল্লিতে দলের সদর দফতরে তাঁদের যোগদানের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মুকুল রায়, কৈলাশ বিজয়বর্গীয় সহ বিজেপি (BJP) নেতারা। এদিন উইলসন চম্প্রামারির সঙ্গে বিজেপিতে যোগদান করেন জোড়াফুল শিবিরেই অন্যতম নেতা বিপ্লব মিত্রও।

  • স্বাভাবিক হচ্ছে ভাটপাড়া, তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষের ঘটনায় এখনও পর্যন্ত গ্রেফতার ৮

    স্বাভাবিক হচ্ছে ভাটপাড়া, তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষের ঘটনায় এখনও পর্যন্ত গ্রেফতার ৮

    ক্রমশই স্বাভাবিক হচ্ছে উত্তর ২৪ পরগনার ভাটপাড়ার (Bhatpara) পরিস্থিতি। গত সপ্তাহে রাজনৈতিক হিংসার জেরে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে ওই অঞ্চল। ঘটনার তদন্তে নেমে ইতিমধ্যেই ৮ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানা গেছে। সোমবার ভাটপাড়ায় (Bhatpara) খুলেছে বিদ্যালয়, স্বাভাবিক হয়েছে গণ পরিবহনও ব্যবস্থাও। তবে এলাকার শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখতে ব্যারাকপুরের পুলিশ কমিশনার মনোজ কুমার বর্মার নেতৃত্বে চলে রুটমার্চ।  পাশাপাশি বিভিন্ন বিদ্যালয় সংলগ্ন এলাকার নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে সেখানেও টহল  দিয়েছে পুলিশ বাহিনী।পুলিশ কমিশনার মনোজ কুমার বর্মা বলেন, “আমরা ইতিমধ্যেই ৮ জনকে গ্রেফতার করেছি, রবিবার ৬০ টি দেশি বোমাও উদ্ধার করেছি। পরিস্থিতি ক্রমশই স্বাভাবিক হচ্ছে, বন্ধ বিদ্যালয়গুলি খোলা হয়েছে এবং বাস চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে”।

  • আনুষ্ঠানিকভাবে বিজেপিতে যোগ দিলেন বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর

    আনুষ্ঠানিকভাবে বিজেপিতে যোগ দিলেন বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর

    সোমবার আনুষ্ঠানিকভাবে বিজেপিতে যোগ দিলেন ভারতের বিদেশমন্ত্রী (Foreign Minister) তথা, প্রাক্তন বিদেশসচিব এস জয়শঙ্কর(S Jaishankar )। এদিন সংসদ ভবনে দলের সভাপতি জেপি নাড্ডার উপস্থিতিতে গেরুয়া শিবিরে যোগ দিলেন তিনি। ১৯৭৭ ব্যাচের আইএফএস অফিসার এস জয়শঙ্কর। দেশের বিদেশ সচিব হিসেবে কাজ করেছেন তিনি। লোকসভা নির্বাচনের পর, নরেন্দ্র মোদির মন্ত্রিসভায় চমক হিসাবে তিনি থাকবেন বলে শোনা যাচ্ছিল। গুজরাটের রাজ্যসভা থেকে ডঃ জয়শঙ্করকে(S Jaishankar ) প্রার্থী করা হতে পারে। নিয়ম অনুযায়ী, শপথগ্রহণের ৬ মাসের মধ্যে তাঁকে সংসদের সদস্য হতে হবে। সংবাদ সংস্থা এএনআই জানিয়েছে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত এস জয়শঙ্কর এবং বিদেশ নীতির ক্ষেত্রে তিনি প্রধানমন্ত্রীর “ক্রাইসিস ম্যানেজার” বলে পরিচিত। নরেন্দ্র মোদি ক্ষমতায় আসার পর, ২০১৫-এ বিদেশ সচিব হন তিনি, ২০১৮ পর্যন্ত এই পদে ছিলেন এস জয়শঙ্কর।

  • কলকাতার বুদ্ধিজীবীরা ভীতু আর সুবিধাবাদী: তোপ দিলীপ ঘোষের

    কলকাতার বুদ্ধিজীবীরা ভীতু আর সুবিধাবাদী: তোপ দিলীপ ঘোষের

    বিজেপি রাজ্য সভাপতির এই মন্তব্যে স্বাভাবিকভাবেই ক্ষুব্ধ মেদিনীপুর পৌরসভার নবনির্বাচিত বিধায়ক এবং স্থানীয় মানুষ। একই সঙ্গে কলকাতার মেয়র এবং শাসকদলের প্রথম সারির নেতা ফিরহাদ হাকিমের দাবি, এমন উস্কানিমূলক মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চাইতে হবে দিলীপ ঘোষকে। 

  • বিজেপি যেন ‘জঙ্গি সংগঠন, গুন্ডা ভাড়া করে এনেছে রাজ্যে’: তৃণমূল

    বিজেপি যেন ‘জঙ্গি সংগঠন, গুন্ডা ভাড়া করে এনেছে রাজ্যে’: তৃণমূল

    বিজেপি যেন ‘‘একটা জঙ্গি সংগঠন’’। তারা ভিন রাজ্য থেকে ‘‘গুন্ডা ভাড়া করে এনে’’ রাজ্যের পরিবেশ অশান্ত করে তুলছে। এভাবেই তৃণমূল কংগ্রেস আক্রমণ করল বিজেপিকে।

  • পুলিশের গুলিতে আহত দলের দুই কর্মী ও এক কিশোর, অভিযোগ বিজেপির

    পুলিশের গুলিতে আহত দলের দুই কর্মী ও এক কিশোর, অভিযোগ বিজেপির

    বাঁকুড়ায় রাজনৈতিক সংঘর্ষে পুলিশের গুলিতে তাদের দলের দুই কর্মী এবং একজন নাবালক আহত হয়েছে বলে অভিযোগ করল রাজ্য বিজেপি (BJP)। গেরুয়া শিবিরের নেতাদের দাবি, শনিবার বাঁকুড়ার পাত্রসায়রে শুভেন্ধু আধিকারির সভা থেকে বাড়ি ফিরছিলেন তৃণমূল (TMC) কর্মীরা। সেই সময় তাঁদের সামনেই “জয় শ্রী রাম” স্লোগান দেন তিনজন। আর তাতেই তৃণমূল কর্মীদের সঙ্গে বিজেপির সংঘর্ষের সূত্রপাত। এরপরেই দুই দলের মধ্যে সংঘর্ষ বাঁধে। বিজেপির (BJP) অভিযোগ ভিড় হঠাতে গুলি চালিয়েছে পুলিশ। যদিও সেই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস (TMC)  এবং পুলিশ। এক পুলিশ আধিকারিক বলেন, “আমাদের কর্মীদের  লক্ষ্য করে পাথর ছোঁড়া শুরু হওয়ায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আমরা লাঠিচার্জ করি এবং কাঁদানে গ্যাসের সেল ফাটাই”।

  • শ্যামাপ্রসাদের মৃত্যুদিনে বিজেপির আক্রমণ কংগ্রেস ও জওহরলাল নেহরুকে

    শ্যামাপ্রসাদের মৃত্যুদিনে বিজেপির আক্রমণ কংগ্রেস ও জওহরলাল নেহরুকে

    ভারতীয় জন সঙ্ঘের প্রতিষ্ঠাতা শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের (Syama Prasad Mookerjee) মৃত্যুর পরে তাঁর আত্মীয়দের অনুরোধ সত্ত্বেও মৃত্যুর তদন্ত না করার জন্য প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহরুর (Jawaharlal Nehru) দিকে অভিযোগের আঙুল তুলল বিজেপি (BJP)। দলের দায়িত্বপ্রাপ্ত সভাপতি জেপি নাড্ডা ও কর্নাটকের রাজ্য বিজেপির প্রধান বিএস ইয়েদুরাপ্পা রবিবার এই প্রসঙ্গে অভিযুক্ত করলেন কংগ্রেসকে। শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের মৃত্যুবার্ষিকীতে সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে ইয়েদুরাপ্পা জানান, ‘‘রহস্যময় ভাবে ওঁর মৃত্যু হয়েছিল। তৎকালীন জওহরলাল নেহরুর কংগ্রেস সরকার কোনও তদন্তই করেনি। শোকগ্রস্ত শ্যামাপ্রসাদের মায়ের লেখা চিঠির কোনও উত্তর দেননি নেহরু।''

  • পুলিশের গুলিতেই বৃহস্পতিবার মৃত্যু হয় ২ জনের, দাবি বিজেপির

    পুলিশের গুলিতেই বৃহস্পতিবার মৃত্যু হয় ২ জনের,  দাবি বিজেপির

    শনিবার উত্তর ২৪ পরগনার ভাটপাড়ার (Bhatpara) পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে সেখানে যায় বিজেপির (BJP) ৩ সদস্যের প্রতিনিধি দল। বৃহস্পতিবার দুই গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষ চলাকালীন পুলিশের গুলিতেই মৃত্যু হয়েছে ২ জনের, বলে দাবি করে গেরুয়া প্রতিনিধি দলটি। প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা বিজেপি সাংসদ আলহুওয়ালিয়ার নেতৃত্বে ওই প্রতিনিধি দলে ছিলেন আরও ২ সদস্য, সাংসদ সত্যপাল সিং, বি ডি রাম সহ বিজেপির রাজ্য নেতৃত্ব।“আমরা মৃত ও আহতদের পরিবার এবং স্থানীয় লোকজনের সঙ্গে কথা বলে দেখেছি।আমরা পুলিশের ব্যবহৃত স্বয়ংক্রিয় রাইফেলের বুলেটের অংশবিশেষও পেয়েছি। এই ঘটনা প্রমাণ করছে যে বৃহস্পতিবার বিজেপি কর্মীদের মারতেই গুলি চালিয়েছিল পুলিশ”,অভিযোগ আলুয়ালিয়ার।

  • ফের অশান্ত ভাটপাড়া! বিজেপির প্রতিনিধি দল পরিস্থিতি দেখতে যাওয়ার পরেই সংঘর্ষ

    ফের অশান্ত ভাটপাড়া! বিজেপির প্রতিনিধি দল পরিস্থিতি দেখতে যাওয়ার পরেই সংঘর্ষ

    রাজনৈতিক সংঘর্ষের পর ভাটপাড়ার (Bhatpara) পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী এস এস আহলুয়ালিয়ার নেতৃত্বে শনিবার সেখানে যায় বিজেপির ৩ সদস্যের প্রতিনিধি দল। আর এর পরেই নতুন করে ফের সংঘর্ষ বাধে ওই এলাকায়। 

  • উত্তপ্ত ভাটপাড়ায় যাচ্ছে বিজেপির প্রতিনিধি দল

    উত্তপ্ত ভাটপাড়ায় যাচ্ছে বিজেপির প্রতিনিধি দল

    রাজনৈতিক সংঘর্ষে বৃহস্পতিবার উত্তপ্ত হয়ে উঠেছিল উত্তর ২৪ পরগনার ভাটপাড়া। ঘটনায় এক কিশোরসহ দুজনের মৃত্যু হয় এবং অনেকেই আহত হন। সেখানকার সামগ্রিক পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে শনিবার সুরিন্দর সিং আলুয়ালিয়ার নেতৃত্বে তিনজনের প্রতিনিধি দল পাঠানো হবে বলে জানাল বিজেপি। দলের জাতীয় সম্পাদক কৈলাশ বিজয়বর্গীয়কে উদ্ধৃত করে সংবাদসংস্থা পিটিআই জানিয়েছে, “এসএস আলুয়ালিয়াসহ প্রতিনিধি দলে থাকবেন সত্যপাল সিং, বিডি রাম, তাঁদের সঙ্গে থাকবেন রাজ্য নেতারা”। দলীয় সূত্রের দাবি, তিনজনের প্রতিনিধি দল ভাটপাড়ার সামগ্রিক পরিস্থিতি খতিয়ে দেবে একটি রিপোর্ট তৈরি করবে এবং তা তুলে দেওয়া হবে, বিজেপি সভাপতি তথা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের হাতে।

  • ভাটপাড়ায় হিংসা, অশান্তির বলি ২, অমিত শাহের দ্বারস্থ হচ্ছে বিজেপি: ১০টি তথ্য

    ভাটপাড়ায় হিংসা, অশান্তির বলি ২, অমিত শাহের দ্বারস্থ হচ্ছে বিজেপি: ১০টি তথ্য

    ফের রক্তাক্ত বাংলা বৃহস্পতিবার ফের রাজনৈতিক হিংসার বলি হতে হল দুইজনকে, আহত আরও তিনজন।কলকাতা থেকে ৩০ কিমি দূরে ভাটপাড়ায় ঘটল ঐ হিংসার ঘটনা।লোকসভা নির্বাচন চলাকালীন এই ভাটপাড়াই উঠে এসেছিল সংবাদের শিরোনামে।কী কারণে এই হানাহানি, তা এখনও স্পষ্ট না হলেও স্থানীয় সূত্রে খবর, এই হিংসার ঘটনার সময় বোমাবাজির পাশাপাশি চালানো হয় গুলিও। পরিস্থিতি সামাল দিতে কাঁদানে গ্যাস ছোঁড়ে পুলিশ, কারও কারও মতে শূন্যে গুলিও ছোঁড়ে তাঁরা। এর আগে লাগাতার রাজনৈতিক হিংসার ঘটনায় রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা রক্ষার প্রশ্নে কেন্দ্র নিশানা করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে(MAMATA BANERJEE), কেন্দ্রীয় চাপের মুখে থাকা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী(CM) এদিনের ঘটনার পর এলাকায় বৃহত্তর সমাবেশে নিষেধাজ্ঞা জারির নির্দেশ দিয়েছেন। বিরোধী দল বিজেপি (BJP) ভাটপাড়ার হিংসার ঘটনায় তৃণমূল কংগ্রেসকেই (TMC) অভিযোগের কাঠগড়ায় তুলেছে। পাশাপাশি এই ঘটনার বিস্তারিত রিপোর্ট কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে(AMIT SHAH) পাঠাতে চলেছে তাঁরা।

  • এসেই যথেচ্ছাচার চালাচ্ছেন; বিশ্বজিৎ দাসকে নিয়ে প্রবল আপত্তি গেরুয়া শিবিরে

    এসেই যথেচ্ছাচার  চালাচ্ছেন; বিশ্বজিৎ দাসকে নিয়ে প্রবল আপত্তি গেরুয়া শিবিরে

    দলীয় কর্মী-সদস্যদের মতে, দল পরিবর্তন করেই তিনি যথেচ্চাচার করছেন। তাঁর কথা শোনার জন্য রীতিমতো অত্যাচার চালাচ্ছেন কর্মীদের ওপর। অবিলম্বে তাঁকে সরিয়ে নেওয়ার অনুরোধ জানাচ্ছেন তাঁরা। প্রসঙ্গত, বাগনান উত্তর থেকে দু-বার জিতে আসা বিধায়ক বিশ্বজিত দল বদল করেন সম্প্রতি।

  • মমতার ইগো, রাজ্যের উন্নয়নে ব্যাঘাত ঘটাচ্ছে, তৃণমূলের সময় হয়ে গেছে: কৈলাশ বিজয়বর্গীয়

    মমতার ইগো, রাজ্যের উন্নয়নে ব্যাঘাত ঘটাচ্ছে, তৃণমূলের সময় হয়ে গেছে: কৈলাশ বিজয়বর্গীয়

    বিজেপির (BJP) সাধারণ সম্পাদক কৈলাস বিজয়বর্গীয় (Kailash Vijayvargiya) বুধবার পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) বিরুদ্ধে অভিযোগ আনলেন যে, মুখ্যমন্ত্রী রাজ্যের উন্নয়নকে আটকে দিচ্ছেন নিজের অহংকে তুষ্ট করতে গিয়ে। এদিন দলের কর্মীদের একটি অন্তর্বর্তী বৈঠকে কৈলাস ক্ষোভ উগরে দিলেন মমতার (Mamata Banerjee) প্রতি। তিনি বলেন, ‘‘উনি জনতার সেবা করার থেকে নিজের চেয়ার বাঁচাতেই বেশি ব্যস্ত। উনি সুপ্রিম কোর্ট, নির্বাচন কমিশন, নীতি আয়োগ, প্রধানমন্ত্রী, কেন্দ্রীয় সরকার কাউকেই মানেন না। উনি এমন ভাব করছেন যেন বাংলা দেশের একটা অংশ নয়, আলাদা দেশ। নিজের অহংকে তুষ্ট করতে গিয়ে মমতা দেশের স্বার্থের ক্ষতি করছেন।'' মঙ্গলবার মমতা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ডাকা সর্বদলীয় বৈঠকে যাবেন না বলে জানিয়ে দিয়েছিলেন। ওই বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী প্রস্তাবিত ‘এক দেশ এক নির্বাচন' নিয়ে আলোচনা হওয়ার কথা ছিল। মমতা সেখানে না গিয়ে জানিয়ে দেন একটি ‘শ্বেতপত্র' প্রকাশ করুক কেন্দ্র। তারপর তা নিয়ে আলোচনা হবে।

Your search did not match any documents
A few suggestions
  • Make sure all words are spelled correctly
  • Try different keywords
  • Try more general keywords
Check the NDTV Archives:http://archives.ndtv.com

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................