কলকাতা মেট্রোর ঘটনায় লোকসভায় মুলতুবি প্রস্তাব তৃণমূলের

১৩ জুলাই পার্ক স্ট্রিট স্টেশনে মেট্রের দরজায় হাত আটকে যায় সজল কুমার কাঞ্জিলালের(Sajal Kanjilal)।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
কলকাতা মেট্রোর ঘটনায় লোকসভায় মুলতুবি প্রস্তাব তৃণমূলের

সোমবার লোকসভায় মুলতুবি প্রস্তাব আনেন তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়।(ফাইল)


নয়াদিল্লি: 

কলকাতা মেট্রোয় হাত আটকে সজল কাঞ্জিলালের মৃত্যুর ঘটনায় গাফিলতির অভিযোগ তুলে লোকসভায় মুলতুবি প্রস্তাব আনলেন তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়। ১৩ জুলাই পার্ক স্ট্রিট স্টেশনে মেট্রের দরজায় হাত আটকে যায় সজল কুমার কাঞ্জিলালের(Sajal Kanjilal)। সেই অবস্থায় সুড়ঙ্গপথে বেশ কিছুটা গড়িয়ে যায় ট্রেনটি।পরে মেট্রোর অন্যান্য কর্মী ও যাত্রীরা অ্যালার্ম বাজালে ট্রেনটি দাঁড়িয়ে পড়ে।তরিঘরি সজল কাঞ্জিলালকে উদ্ধার করে এসএসকেএম হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। ঘটনায় একটি উচ্চ পর্যায়ের তদন্ত কমিশন বসানো হয়েছে। মেট্রোর দরজায় হাত আটকে সজল কাঞ্জিলালের (Sajal Kanjilal) হাত আটকে মৃত্যু হওয়ার ঘটনায় পুলিশি তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও।

হাত আটকে মৃত্যুর ঘটনায় মেট্রো রেলের বিরুদ্ধে এফআইআর

এদিকে, সজল কাঞ্জিলালের মৃত্যুর ঘটনায় রবিবার, মেট্রো রেল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে অপরাধমূলক অবহেলার অভিযোগে পার্ক স্ট্রিট থানায় এফআইআর দায়ের করা হয়েছে বলে জানান সজল কাঞ্জিলালের(Sajal Kanjilal) আত্মীয় রাজকুমার মুখোপাধ্যায়। তিনি বলেন, “যাই হোক না কেন, এই ঘটনাটিকে আমরা মেট্রো রেলের সর্বোচ্চ কর্তৃপক্ষের কাছে নিয়ে যাব”।এক পুলিশ আধিকারিকের কথায়, “অপরাধমূলক গাফিলতির অভিযোগে, সজল কাঞ্জিলালের আত্মীয়ের দায়ের করা অভিযোগের ভিত্তিতে মেট্রো রেলের বিরুদ্ধে একটি এফআইআর দায়ের করা হয়েছে”।

মেট্রোর দরজায় হাত আটকে ভয়াবহ মৃত্যু ঘটল যাত্রীর

ইতিমধ্যেই ঘটনার তদন্তের জন্য মেট্রো রেলের তরফে, কমিশনার অফ রেলওয়ে সেফটিকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন এক আধিকারিক। তিনি জানান, নতুন রেকে এই দুর্ঘটনা ঘটেছে। ২০ মাস আগে রেকটি দেওয়া হয়। পড়ে থাকার পর, কয়েকমাস আগে সেটি পরিষেবা দিতে শুরু করে। কমিশনার রেলওয়ে সুরক্ষা, এই দুর্ঘটনার তদন্ত করে দ্রুত রিপোর্ট জমা দেবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

ওই আধিকারিকের কথায়, “সেন্সরের প্রযুক্তি নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে, বলা হচ্ছে, সেন্সর কাজ না করায়, সজল কাঞ্জিলালের(Sajal Kanjilal) হাত বের করা যায়নি। তবে তদন্তের পরেই আসল চিত্র সামনে আসবে”।

শনিবারের ঘটনাকে “অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক” বলে মন্তব্য করে পুলিশি তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)


পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................