"কোনও দিন মাদক সেবন করেনি রিয়া", দাবি অভিনেত্রীর আইনজীবীর

ইডি রিয়া চক্রবর্তীর একাধিক হোয়্যাটসঅ্যাপ চ্যাট হাতে পেয়েছে। সেই চ্যাটকে অর্থ নয়ছয়ের তদন্তে প্রমাণ হিসেবে ব্যবহার করতে চাইছে কেন্দ্রীয় এই তদন্তকারী সংস্থা

ফাইল ছবি।

মুম্বই:

সুশান্ত সিং তদন্তে রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে মাদক সেবনের এক তত্ত্ব উঠেছে। সেদিক খতিয়ে দেখতে এনসিবিকে সুপারিশ পাঠিয়েছে সিবিআই। এই পরিস্থিতিতে রিয়া চক্রবর্তীকে ক্লিনচিট দিতে এগিয়ে এলেন তাঁর আইনজীবী। "এখনও পর্যন্ত মাদক সেবন করেনি এই অভিনেত্রী। প্রয়োজনে রক্তপরীক্ষা করতে প্রস্তুত আমার মক্কেল।" এমন দাবি করেছেন ওই আইনজীবী। ইতিমধ্যে ইডি রিয়া চক্রবর্তীর একাধিক হোয়্যাটসঅ্যাপ চ্যাট হাতে পেয়েছে। সেই চ্যাটকে অর্থ নয়ছয়ের তদন্তে প্রমাণ হিসেবে ব্যবহার করতে চাইছে কেন্দ্রীয় এই তদন্তকারী সংস্থা। সেই চ্যাট সিবিআইকেও মেল করা হয়েছে। এদিকে, রিয়াকে জেরা করতে তাঁকে সমন পাঠিয়েছে সিবিআই সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর রহস্যভেদে এবার মনস্তাত্ত্বিক ময়নাতদন্ত করবে সিবিআই, সোমবার গভীর রাতে একটি সূত্র একথা জানিয়েছে।

অভিনেতার মৃত্যুর পর তাঁর পরিবারের তরফে সুশান্তের বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে আর্থিক জালিয়াতি ও আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগ করে তাঁর বিরুদ্ধে পাটনায় একটি মামলা দায়ের করে। পরবর্তীতে এই মামলা সিবিআইয়ের কাছে গেলে সুপ্রিম কোর্টও তাতে সায় দেয়। গত সপ্তাহে সুপ্রিম কোর্ট তার রায়দানের পর শুক্রবার মুম্বইয়ে আসে কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থাটির একটি বিশেষ দল। তারপর থেকেই চলছে তদন্ত। এই মনস্তাত্ত্বিক ময়নাতদন্তে কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থার সিএফএসএল (সেন্ট্রাল ফরেনসিক সায়েন্স ল্যাবরেটরি) খতিয়ে দেখবে সুশান্ত সিং রাজপুতের জীবনের খুঁটিনাটি। তাঁর সোশ্যাল মিডিয়া পোস্ট থেকে শুরু করে হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট এবং পরিবার, বন্ধুবান্ধব এবং অন্যদের সঙ্গে তাঁর নানা কথোপকথন সবই খতিয়ে দেখা হবে।

মৃত্যুর আগে অভিনেতার মেজাজের পরিবর্তন, হাবভাব এবং এমনকি ব্যক্তিগত নানা ভাবনা সম্পর্কেও তথ্য পেতে সিবিআই তদন্ত চালাবে। সিবিআই চায় মৃত্যুর আগের দিনগুলিতে সুশান্তের মানসিক অবস্থার একটি সম্মিলিত ছবি পেতে।

জানিয়ে রাখি এই মনস্তাত্ত্বিক ময়নাতদন্ত পদ্ধতিটি এই নিয়ে কেবলমাত্র তৃতীয়বার ব্যবহার করা হবে; এর আগে এই তদন্ত পদ্ধতিটি সুনন্দা পুস্কর মৃত্যু মামলা ও ২০১৮ সালের দিল্লির বুরারি গণ-আত্মহত্যার মামলায় ব্যবহার করা হয়েছিলো।

Newsbeep

এদিকে, সিবিআইকে এই তদন্তে সহায়তা করার জন্য অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অফ মেডিকেল সায়েন্সেসের (এআইএমএস) চার সদস্যের একটি বিশেষ ফরেন্সিক দল গঠন করা হয়েছে যাঁরা রাজপুতের ময়নাতদন্তের রিপোর্টিও পরীক্ষা করবে