নেতাজি সুভাষের টুপি মোদির হাতে তুলে দিলেন বসু পরিবার। জানুন প্রধানমন্ত্রীর প্রতিক্রিয়া

ক্রান্তি মন্দির আসলে দেশের স্বাধীনতা যোদ্ধাদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে লালকেল্লায় নির্মিত একটি জাদুঘর।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
নেতাজি সুভাষের টুপি মোদির হাতে তুলে দিলেন বসু পরিবার। জানুন প্রধানমন্ত্রীর প্রতিক্রিয়া

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির হাতে নেতাজির টুপি তুলে দিলেন বসু পরিবার


নিউ দিল্লি: 

নেতাজির ব্যবহৃত একটি টুপি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির হাতে তুলে দিলেন সুভাষ চন্দ্র বসুর পরিবার। বুধবার তাঁর ১২২ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে দেশনায়ক নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর পরিবারকে ধন্যবাদও জানান মোদি। তিনি জানান, স্বয়ং নেতাজির ব্যবহার করা এই টুপিটি লালকেল্লায় স্থাপিত নেতাজির জাদুঘরের মূল্যবান সংযোজন হয়ে উঠল। মোদি টুইটে লেখেন, “আমি বসু পরিবারের কাছে কৃতজ্ঞ যে নেতাজি নিজে যে টুপি পরতেন তা বসু পরিবার আমার হাতে আজ তুলে দিয়েছেন। লালকেল্লা চত্বরে স্থাপিত ক্রান্তি মন্দিরের প্রদর্শনী গ্যালারিতে এই টুপিটি রাখা হল। আশা করি যুব প্রজন্ম আরও বেশি করে ক্রান্তি মন্দিরে আসবেন এবং অনুপ্রেরণা পাবেন।"

Subhash Chandra Bose: এক লক্ষ টাকার নোটে ছিল নেতাজির ছবি

ক্রান্তি মন্দির আসলে দেশের স্বাধীনতা যোদ্ধাদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে লালকেল্লায় নির্মিত একটি জাদুঘর। সুভাষ চন্দ্র বসুর ব্যবহৃত কাঠের চেয়ার, তাঁর ব্যবহৃত তরোয়ালের পাশাপাশি ভারতীয় জাতীয় সেনাবাহিনীতে (আইএনএ) থাকার সময় তাঁর নানা পদক, উর্দিও এই নয়া জাদুঘরে ঠাঁই পেয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী দিল্লির লালকেল্লাতে বুধবার নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু জাদুঘর উদ্বোধন করেন এবং তাঁর স্মৃতিতে ফুল উৎসর্গ করেন। ঐতিহাসিক জালিয়ানওয়ালা বাগ গণহত্যায় নিহতদের স্মৃতিতে নির্মিত ইয়াদ-এ-জালিয়ান-পরিদর্শন করেন তিনি। তিনি বলেন, “আজ যে জাদুঘর উদ্বোধন করা হল তা আমাদের গৌরবময় ইতিহাস এবং আমাদের যুব সম্প্রদায়ের মধ্যে সংযোগকে গভীরতর করবে, নাগরিকদের মধ্যে দেশপ্রেমের উৎসাহ যোগাবে।

৭৭ বছর পার! নেতাজির জন্মদিন পালনে আজও বিনা পয়সায় তেলেভাজা বিতরণ করে চলেছে এই দোকান

এর আগে, প্রধানমন্ত্রী সোশ্যাল মিডিয়াতেও স্বাধীনতা সংগ্রামী নেতাজির প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। টুইটারে তিনি লেখেন, “জন্মজয়ন্তীতে নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুকে প্রণাম। তিনি ভারতকে পরাধীনতা থেকে মুক্ত করার এবং মর্যাদাপূর্ণ জীবন যাপন করার জন্য প্রতিশ্রুতিবদ্ধ ছিলেন। আমরা তাঁর আদর্শগুলি পূরণ করতে এবং একটি শক্তিশালী ভারত তৈরির জন্য প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।”

তবে, পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সুভাষ চন্দ্র বসুর জন্মবার্ষিকীকে জাতীয় ছুটি ঘোষণা না করার জন্য প্রধানমন্ত্রী মোদির সমালোচনা করেন। এই বিশেষ দিনের একটি অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, “মনে হচ্ছে এরা নেতাজিকে জাতীয় ব্যক্তিত্ব হিসেবে বিবেচনাই করে না!" মমতা বন্দ্যোপাধায় আরও জানান, অত্যাচারী শাসনের বিরুদ্ধে সংগঠিত যুদ্ধে সকল শ্রেণির মানুষকে নেতাজি যুক্ত করেছিলেন, তিনিই তো সত্যিকারের ‘নেতা'।

রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোভিন্দ, বিজেপির প্রধান অমিত শাহ, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রাজনাথ সিং, তেলুগু দেশম পার্টির প্রধান এন চন্দ্রবাবু নাইডু, রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলত এবং কংগ্রেসের নেতৃত্বও এই অনুষ্ঠানে সুভাষচন্দ্র বসুর 'সাহস, দেশপ্রেম ও নেতৃত্ব'র উল্লেখ করে শ্রদ্ধা জানান।



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................