ঘুমের দেশে ইরফান-ঋষি, স্মৃতিতে ডুব শোকস্তব্ধ সৌরভ-প্রসেনজিৎ-সৃজিতের

দূর থেকে শহরের গুণী মানুষেরা দুই খ্যাতনামা অভিনেতাকে সোশ্যালে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন নিজেদের মতো করে।

ঘুমের দেশে ইরফান-ঋষি, স্মৃতিতে ডুব শোকস্তব্ধ সৌরভ-প্রসেনজিৎ-সৃজিতের

ইরফানের খানের হাতে পুরস্কার তুলে দেন বাংলার মহারাজ

কলকাতা:

কলকাতা সংস্কৃতির পূজারি। দেশ-কাল-গণ্ডির বেড়া ডিঙিয়ে সমস্ত ভাষাভাষীর শিল্পী তিলোত্তমার আত্মার আত্মীয়। করোনা মহামারীর দুর্দিনেই বুধ এবং বৃহস্পতিবার পরপর ইন্দ্রপতন বলিউডে। আচমকাই ঘুমের দেশে চিরকালের জন্য চলে গেলেন ইরফান খান (Irrfan Khan), ঋষি কাপুর (Rishi Kapoor)। দু'জনেই ক্যান্সারে ভুগেছেন। মারণরোগকে জয় করার পরেও আচমকা এই পরাজয় মেনে নিতে কষ্ট হয়েছে শিল্পের পীঠস্থান কল্লোলিনীর। সৌরভ গাঙ্গুলি (Sourav Ganguly), সৃজিত মুখোপাধ্যায়, নন্দিতা রায়, শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়, রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়, ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত,অনুপম রায়, প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় (Prosenjit Chatterjee) দুই খ্যাতনামা অভিনেতাকে হারানোর বেদনা প্রকাশ করেছেন সোশ্যালে। ছবিতে দেখে নিন ঝলক---

NDTV স্টার অ্যাওয়ার্ড মঞ্চ। সেরা অভিনেতার সম্মান নিতে মঞ্চে ইরফান খান। তাঁর হাতে পুরস্কার তুলে দিচ্ছেন দেশের আরেক রত্ন সৌরভ গাঙ্গুলি। সেই ভিডিও এখন বিসিসিআই প্রেসিডেন্টের ইনস্টাগ্রামে ভাইরাল। পুরস্কার তুলে দিতে দিতে সেদিন সৌরভ স্বীকার করেছিলেন, সুজিত সরকারের 'পিকু' সবাই দেখেছেন অমিতাভ বচ্চন বা দীপিকা পাড়ুকোনের জন্য। তিনি দেখেছিলেন শুধু ইরফান খানের জন্য। অত স্বাভাবিক অভিনয়, গাড়ি চালিয়ে দিল্লি থেকে কলকাতার হাওড়া ব্রিজ পেরিয়ে শহরের বুকে পা রাখা তাঁকে নস্টালজিক করেছে। ইরফানের মতো অভিনেতা সত্যিই হাতেগোণা।

একই সঙ্গে সৌরভ স্মরণ করেন ঋষি কাপুরকেও। বলেন, ছেলেবেলায় ওঁর ছবি দেখে বড় হওয়া। কাপুর বংশের গর্ব এই অভিনেতার রোম্যান্টিক অভিনয় ভোলা অসম্ভব।

নন্দিতা রায়-শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের বাড়িতে এসেছিলেন সস্ত্রীক ঋষি কাপুর। পাত পেড়ে পরম তৃপ্তিতে খেয়েছিলেন সর্ষে দিয়ে রাঁধা মাছ, বাঙালি পদ। সেই ভাণ্ডার উপুড় করলেন পরিচালকজুটি সোশ্যালে। শ্রদ্ধা জানিয়ে বললেন, অনেক ছবির পেছনে অনেক গল্প থাকে। যা সেলুলয়েডে বন্দি করা যায় না। তেমনই এক গল্পের ঝলক ইনস্টাগ্রামে।

সাল ২০১৮। 'পিকু' ছবির সেট। যে ছবির আবহ, গানের দায়িত্বে ছিলেন অনুপম রায়। সেট থেকে তোলা ছবি শেয়ার করে নীরব শ্রদ্ধা জাতীয় পুরস্কারজয়ী গায়ক-সুরকার-গীতিকারের। ক্যাপশনে বিনম্র শোক, বছর গড়িয়ে গেল। মুহুর্তগুলো যেন পলক ফেলতেই উড়ে গেল। আমরা বদলে গেলাম। ইরফান খান রয়ে গেলেন আমাদের হৃদয়ে, চিরকাল @irfan #irrfankhan।

ইরফান খানের সঙ্গে তোলা পুরনো ছবি শেয়ার করে শ্রদ্ধা জানান রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়।

ঋষি কাপুর এবং ইরফান খানকে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন জাতীয় পুরস্কারজয়ী সৃজিত মুখোপাধ্যায়ও। তাঁর অকপট খেদ, 'আমি বেঁচে থাকতে থাকতে নাসিরুদ্দিন শাহ, আশা ভোঁসলে, অমিতাভ বচ্চনের সঙ্গে কাজ করে যেতে পারলাম। দুর্ভাগ্য, কিছুতেই কাজ করা হয়ে উঠল না ঋষি কাপুর, ইরফান খানের সঙ্গে। ইরফানের সঙ্গে অনেকবার হেমলক সোসাইটির হিন্দি ভার্সান করব বলে মিটিং করেছি। রিল আর রিয়েল হল না।!' 

'পরপর দুই প্রতিভা চিরবিদায় নিলেন। এই শোক কি সহজে ভোলার!' টুইটে এভাবেই শোক জানিয়েছেন ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। ঋতু আরও বলেন, তাঁর প্রথম ছবির সঙ্গে সুখস্মৃতি জড়িয়ে ঋষি কাপুরের। ২ বছর আগে অস্ট্রেলিয়ায় শেষ দেখা তাঁর প্রবীণ অভিনেতার সঙ্গে। সৃজিত মুখোপাধ্যায়ের 'রাজকাহিনি' ঋষি দেখতে চেয়েছিলেন 'বেগমজান' ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তের কাছে। 

ইরফান খান, ঋষি কাপুরের মৃত্যুতে গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন টলিউড সুপারস্টার প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ও।  তাঁর কথায়, অপূরণীয় ক্ষতি হল ছবির দুনিয়ায়।