পঞ্জাবে করোনায় মৃত ব্যক্তির সংস্পর্শে এসে আক্রান্ত ২৩, ১৫টি গ্রামে আতঙ্ক

ওই ব্যক্তি প্রায় একশোজনের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছিলেন। পরে তাঁর শরীরে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়ে। মনে করা হচ্ছে, তিনি ও তাঁর দুই সঙ্গী ১৫টি গ্রামে যান।

পঞ্জাবে করোনায় মৃত ব্যক্তির সংস্পর্শে এসে আক্রান্ত ২৩, ১৫টি গ্রামে আতঙ্ক

Coronavirus: পঞ্জাবে এখনও পর্যন্ত আক্রানত ৩৩, মৃত ১।

হাইলাইটস

  • পঞ্জাবে করোনায় আক্রান্ত হয়ে এখনও পর্যন্ত একজনের মৃত্যু হয়েছে
  • ৭০ বছরের ওই ব্যক্তির সংস্পর্শে ২৩ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ
  • ওই ব্যক্তির পরিবারেই ১৪ জন আক্রান্ত হয়েছেন
Chandigarh, Punjab:

গত ১৮ মার্চ পঞ্জাবে (Punjab) করোনা ভাইরাসে (Coronavirus) আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন এক ব্যক্তি। রাজ্যে এখনও পর্যন্ত ৩৩টি করোনা আক্রান্তের ক্ষেত্রে ২৩টিতেই সংক্রমণ ছড়ানোর পিছনে তাঁর কথাই ভাবা হচ্ছে। ৭০ বছরের এক বৃদ্ধ, যিনি গুরুদ্বারের কর্মী, ইতালি ও জার্মানি থেকে ফিরেছিলেন ২ সপ্তাহের সফর শেষে। তাঁর সঙ্গে ছিলেন পাশের গ্রামের দুই সঙ্গী। কোয়ারান্টাইনের নিয়মের তোয়াক্কা না করে এই ব্যক্তি এমাসের গোড়ায় অনেকের সঙ্গেই মিলিত হন। তিনি দিল্লিতে নামেন ৬ মার্চ। তারপর গাড়িতে করে পঞ্জাবে আসেন।

এরপর ৮ থেকে ১০ মার্চ পর্যন্ত আনন্দপুর সাহিবে এক অনুষ্ঠানে যোগ দেন তি‌নি। তারপর শহিদ ভগৎ সিংহ নগর জেলায় নিজের বাড়িতে ফেরেন।

দিল্লি থেকে বিহার, দীর্ঘ পথ পেরিয়ে তিন শ্রমিকের বাড়ি ফেরার পথে পাশে দাঁড়াল পুলিশ

ওই ব্যক্তি প্রায় একশোজনের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছিলেন। পরে তাঁর শরীরে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়ে। মনে করা হচ্ছে, তিনি ও তাঁর দুই সঙ্গী ১৫টি গ্রামে যান।

ওই ব্যক্তির পরিবারে ১৪ জনের শরীরে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়েছে। তাঁর নাতি ও নাতনি বহু মানুষের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন বলে জানা গিয়েছে।

ভিন রাজ্যে আটক বাংলার কর্মীদের সাহায্যের দাবি জানিয়ে চিঠি মুখ্যমন্ত্রীর

এখন সরকারি কর্মীরা গ্রাম থেকে গ্রামে গিয়ে প্রতিটি গ্রামবাসীকে জিজ্ঞাসলাবাদ করছেন। বোঝার চেষ্টা করছেন পরিস্থিতি। মৃত ব্যক্তি ও তাঁর দুই সঙ্গীর অবহেলার কারণে সংক্রমণ ছড়িয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

সারা দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ৭০০। মৃত ১৭।