This Article is From May 21, 2020

ডোমেস্টিক বিমানের নিয়ম: করতে হবে ওয়েব চেক-ইন, নিতে পারবেন একটি চেক-ইন ব্যাগ

সরকারের তরফে বলা হয়েছে অন্তঃসত্তা, বয়স্ক এবং যে সব যাত্রীদের শারীরিক সমস্যা রয়েছে তাঁরা যেন বিমানে যাতায়াত না করেন।

নিয়ম বিরুদ্ধভাবে কেউ বিমানে উছলে তাঁর বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে

New Delhi:

সোমবার দেশীয় বিমানগুলি আবার চালু হলে প্রায় এক তৃতীয়াংশ অভিযানের অনুমতি দেওয়া হবে, বিমান পরিষেবা মন্ত্রক কর্তৃক করোনাভাইরাসের সময় বিমানের জন্য স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং যে পদ্ধতি বেঁধে দিয়েছিল সেই অনুযায়ী।

সেখানে বলা হয়েছিল প্রবীণ, গর্ভবতী মহিলা এবং স্বাস্থ্য সংক্রান্ত সমস্যা থাকা যাত্রীসহ দুর্বল ব্যক্তিদের বিমান ভ্রমণ এড়িয়ে চলা উচিত।

সোমবার বিমান পরিষেবা শুরু হওয়ার  বিমান পরিষেবা মন্ত্রক কর্তৃক ঘোষিত নতুন নিয়ম।

  • বিমানের সময়ের দু'ঘণ্টা আগে বিমান বন্দরে পৌঁছতে হবে।
  • ফেস মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামূলক।
  • একমাত্র ওয়েব চেক-ইন করা যাবে, ব্যাগেজ ট্যাগও অনলাইনেই নিতে হবে।
  • যাত্রী পিছু একটিই চেক-ইন ব্যাগেজ নিতে পারবে, ব্যাগেজ ট্যাক অনলাইন থেকে প্রিন্ট নিয়ে ব্যাগেজে লাগিয়ে নিতে হবে।
  • কনটেইনমেন্ট জোনের কোনও যাত্রীকে অনুমতি দেওয়া হবে না।
  • যাত্রীকে আরোগ্যসেতু অ্যাপ ব্যবহার করতে হবে অথবা যোগাযোগের তথ্য দিয়ে নিজের সম্পর্কে বিষদে ফর্মে জানাতে হবে।
  • ব্যাগেজ কাউন্টারে জমা করে দিতে হবে এবং তাঁর তথ্য মেসেজের মাধ্যমে যাত্রীর ফোনে চলে যাবে।
  • বিমানের সময়ের কম করে এক ঘণ্টা আগে ব্যাগ কাউন্টারে জমা দিতে হবে।
  • নিরাপত্তাকর্মীদের যতটা সম্ভব যাত্রীদের সঙ্গে শারীরিক সংযোগ থেকে দূরে থাকতে হবে।
  • সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখতে হবে, তার জন্য মার্কারের দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে।
  • বোর্ডিং গেট থেকে যাত্রীদের সেফটি কিট-মাস্ক, ফেস শিল্ড, স্যানিটাইজার সংগ্রহ করতে হবে।
  • যাত্রীদের গেটের কাছেই বোডিং পাস স্ক্যান করতে হবে এবং আইডি কার্ড স্টাফকে দেখাতে হবে।
  • বিমানের বাথরুমে লাইন দেওয়া যাবে না
  • কোনও খাওয়ার দেওয়া হবে না, যাত্রীরা নিজেদের খাওয়ারও নিয়ে উঠতে পারবেন না। জলের বোতল সব আসনের সঙ্গে থাকবে।
  • কোনও খবরের কাগজ, ম্যাগাজিনের অনুমতি দেওয়া হবে না।
  • পৌঁছে ব্যাগ নেওয়ার জন্য সামাজিক দুরত্ব মেনেই অপেক্ষা করতে হবে।
.