বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীর স্ত্রীর সঙ্গে দেখা, সৌজন্য বিনিময় মুখ্যমন্ত্রীর

ল্লি উড়ে যাওয়ার আগে, বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীর স্ত্রী যশোদাবেনের  (Jashodaben) সঙ্গে দেখা হয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীর স্ত্রীর সঙ্গে দেখা, সৌজন্য বিনিময় মুখ্যমন্ত্রীর

বুধবার প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন মুখ্যমন্ত্রী (ফাইল)

কলকাতা:

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে দেখা করতে মঙ্গলবার দিল্লি রওনা দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee )। এদিন দিল্লি উড়ে যাওয়ার আগে, বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীর স্ত্রী যশোদাবেনের  (Jashodaben) সঙ্গে দেখা হয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সৌজন্য বিনিময় করেন মুখ্যমন্ত্রী। ঘনিষ্ঠ সূত্রের খবর, দুদিনের ধানবাদ সফর শেষে ফিরছিলেন যশোদাবেন। সূত্র মারফৎ জানা গিয়েছে, “তাঁদের হঠাৎই দেখা হয়ে যায়, এবং তাঁরা সৌজন্য বিনিময় করেন, তাঁকে একটি শাড়ি উপহার দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী”। বুধবার প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করবেন তিনি।

“বিভিন্ন বিষয় তুলে ধরব...” প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে বৈঠক প্রসঙ্গে বললেন মুখ্যমন্ত্রী

রাজ্যের নাম পশ্চিমবঙ্গ থেকে বদল করে বাংলা রাখতে চায় তৃণমূল কংগ্রেস সরকার। বাজেট অধিবেশনে, রাজ্যের নাম বদলের দাবি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে দেখা করেন সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বাধীন একটি প্রতিনিধি দল, যদিও কেন্দ্রের করফে এখনও কিছু জানানো হয়নি।

দিল্লি রওনা হওয়ার আগে, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “সরকারি ব্যাঙ্কগুলিকে একছাতার তলায় আনা, এয়ার ইন্ডিয়া, বিএসএনএল, রেলের মতো যে সমস্ত বিষয়গুলি নিয়ে সমস্যা রয়েছে, সেগুলিতেও আলোচনা হবে। তাঁরা (এই সমস্ত বিভাগের কর্মী) কোথাও যেতে পারবেন না, আমাদের কাছেই আসবেন”।

PM Modi Birthday: জন্মদিনে মায়ের কাছে প্রধানমন্ত্রী, চাইলেন আশীর্বাদ

লোকসভা নির্বাচনের পর, এই প্রথমবার প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ২০১৮-এ শান্তিনিকেতনে বিশ্বভারতীর বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি অনুষ্ঠানে শেষবার মুখোমুখি হয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

রাজ্যের চিটফান্ডগুলিতে সিবিআই তদন্তসহ বিভিন্ন ইস্যুতে কেন্দ্রের সঙ্গে একাধিকবার সংঘাতে জড়িয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

সম্প্রতি, বিভিন্ন প্রকল্প নিয়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তোপ দেগেছেন মুখ্যমন্ত্রী, নয়া ট্রাফিক আইন,নাগরকি তালিকা নিয়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, পাশাপাশি সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, কোনওটাই রাজ্যে কার্যকর করা হবে না।

লোকসভা নির্বাচনের সময়, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, প্রধানমন্ত্রী মোদিকে “গণতন্ত্রের কড়া থাপ্পর মারতে” চান তিনি। রাজ্যে একটি সভায় তিনি বলেন, “আমার কাছে অর্থ কোনও বিষয় নয়। সেই কারণেই, যখন নরেন্দ্র মোদি রাজ্যে আসেন, এবং আমার দলকে তোলাবাজ বলে কটাক্ষ করেন, আমি তাঁকে গণতন্ত্রের কড়া থাপ্পর মারতে চাই”।

 মে তে শেষ হওয়া লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যে ১৮টি আসনে ফুটেছে পদ্মফুল।

জন্মদিনে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ট্যুইটে তিনি লেখেন, “প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিজীকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা”।



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)
Listen to the latest songs, only on JioSaavn.com