This Article is From Apr 05, 2019

আজ অসমে নির্বাচনী জনসভায় বক্তব্য রাখবেন অমিত- মমতা

কলকাতার পর এবার উত্তর পূর্ব ভারতেও (North East India) বিজেপি এবং তৃণমূলেরে দ্বৈরথ (Dual) দেখা যাবে। আজ উত্তর-পূর্ব ভারতে তিনটি জনসভা (Election Rally)  করবেন বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ (BJP President ।

আজ অসমে নির্বাচনী জনসভায় বক্তব্য রাখবেন অমিত- মমতা

অরুণাচল প্রদেশের চাংলাং জেলা থেকে অমিতের সভা শুরু হবে।

হাইলাইটস

  • আজ অসমে নির্বাচনী জনসভায় বক্তব্য রাখবেন অমিত- মমতা
  • অরুণাচল প্রদেশের চাংলাং জেলা থেকে অমিতের সভা শুরু হবে
  • একই দিনে অসম আসছেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়
গুয়াহাটি:

কলকাতার পর এবার উত্তর পূর্ব ভারতেও (North East India) বিজেপি এবং তৃণমূলেরে দ্বৈরথ (Dual) দেখা যাবে। আজ উত্তর-পূর্ব ভারতে তিনটি জনসভা (Election Rally)  করবেন বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ (BJP President । অরুণাচল প্রদেশের চাংলাং জেলা থেকে অমিতের সভা শুরু হবে। অরুণাচলের পাশাপাশি মনিপুর এবং অসমেও দলীয় প্রার্থীদের হয়ে প্রচার করবেন বিজেপি সভাপতি (BJP President)। কয়েকদিন আগেই অসমে দুটি জনসভায় বক্তব্য রেখে গিয়েছেন তিনি। একই দিনে অসম আসছেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (TMC Chief) এ রাজ্যের ১৪ টি লোকসভা কেন্দ্রের মধ্যে ৯টিতে প্রার্থী দিয়েছে তৃণমূল। এনআরসি (NRC) বিতর্ককে হাতিয়ার করেই ভোটের ময়দানে অবতীর্ণ হয়েছে জোড়া ফুল শিবির। সাংগঠনিক শক্তি তেমন না থাকলেও নাগরিকত্ব আইনকে কেন্দ্র করে যে বিতর্ক হয়েছে তাকে সম্বল করেই ভালো ফলের আশা দেখছে বাংলার শাসক শিবির।

 রাজারহাটের কাছে অবৈধ অস্ত্র কারখানায় হানা, বহু অস্ত্র উদ্ধার করল পুলিশ

গত বছর এনআরসির চূড়ান্ত খসড়া তালিকা (Final Draft) থেকে অসমের চল্লিশ লক্ষ মানুষের নাম বাদ যায়। তাতে বাঙালির সংখ্যা ছিল চোখে পড়ার মতো এই ইস্যুকে কাজে লাগিয়ে বিজেপির বিরুদ্ধে আন্দোলন আরও তীব্র করেন মমতা। তৃণমূলের একটি প্রতিনিধি দল অসম পৌঁছয়। কিন্তু তাদের শিলচর বিমানবন্দরে আটকে দেওয়া হয়। তা নিয়ে সংসদের দুই কক্ষেই সরব হন তৃণমূল সাংসদরা। নাগরিকত্ব আইনের সংশোধন (Citizen Act ) পাস করানোর জন্য মরিয়া মনোভাব নিয়েছিল বিজেপিও। কিন্তু এখনও তা আটকে আছে। সভাপতি অমিত শাহ থেকে শুরু করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (PM Modi) সকলেই এই বিলের পক্ষে সাওয়াল করে আসেছেন। সম্প্রতি রাজ্যে এসে আরও একবার এই প্রসঙ্গে সুর চড়িয়েছেন মোদী। পাল্টা মমতা বলেছেন বাংলায় এরকম কোনও কাজই করতে দেওয়া হবে না। এনআরসির পাশাপাশি অসমে তিনসুকিয়া জেলা কয়েক জন বাঙালিকে হত্যা করার পরও প্রতিনিধি পাঠিয়েছিল তৃণমূল। নিহতদের পরিবারকে আর্থিকভাবে সাহায্য করা হয়েছিল।