বাংলার প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে মেধা সম্পত্তি বিষয়ে কোর্স চালুর ইঙ্গিত সরকারের

প্রাথমিক ভাবে দুটি কোর্স চালু হবে। এ বিষয়ে দ্রুত রাজ্য সরকারের তরফ থেকে নতুন চুক্তি স্বাক্ষর করা হবে। 

বাংলার প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে মেধা সম্পত্তি বিষয়ে কোর্স চালুর ইঙ্গিত সরকারের

মৌলানা আবুল কালাম আজাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের (MAKAUT) সঙ্গে যৌথভাবে আগামী ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে মেধা সম্পত্তি বিষয়ে কোর্স চালু হবে

কলকাতা:

পশ্চিমবঙ্গ সরকার (The West Bengal government) এবার রাজ্যের মৌলানা আবুল কালাম আজাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের (MAKAUT) সঙ্গে যৌথভাবে আগামী ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে মেধা সম্পত্তি বিষয়ে কোর্স (courses in intellectual property) চালুর উদ্যোগ নিয়েছে। প্রাথমিক ভাবে দুটি কোর্স চালু হবে। এ বিষয়ে দ্রুত রাজ্য সরকারের তরফ থেকে নতুন চুক্তি স্বাক্ষর করা হবে। “আমরা খুব তাড়াতাড়ি মেধাসম্পত্তি বিষয় সংক্রান্ত দুটি কোর্স চালু করতে চলেছি মৌলানা আবুল কালাম আজাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগিতায়। এ নিয়ে আমরা নতুন চুক্তি স্বাক্ষর করব অদূর ভবিষ্যতে”,জানিয়েছেন বিজ্ঞান ও জৈব প্রযুক্তি দফতরের মন্ত্রী ব্রাত্য বসু। শুক্রবার কারিগরী শিক্ষা বিষয়ক একটি মেলার (APAI) উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসে এ কথা জানান। সে সময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন মৌলানা আবুল কালাম আজাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের (MAKAUT) উপাচার্য সৈকত মিত্র। তিনি জানান, এই নতুন কোর্সের সময়সীমা হবে এক বছর।এ বিষয়ে রাজ্য সরকারি আধিকারিকরা চলতি শিক্ষাবর্ষে ভর্তির জন্যে কাউন্সিলিং আগামী ২০ জুলাইয়ের মধ্যেই শেষ হওয়ার প্রত্যাশা করছেন।

এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী (State Education Minister) পার্থ চট্টোপাধ্যায়ও। তিনি শিক্ষার (education) সামগ্রিক মানোন্নয়নের উপর জোর দেন।পাশাপাশি তিনি অভিভাবকদের উদ্দেশ্যে বার্তা দেন এই বলে যে, বর্তমানে ছাত্রছাত্রীরা যে ধরণের বিষয়ে পড়তে আগ্রহী, তাঁদের অন্য কোন বিষয় চাপিয়ে না দিয়ে সেই বিষয়েই পড়ার সুযোগ করে দেওয়া উচিত।শিক্ষামন্ত্রী এও দাবি করেন যে, রাজ্য সরকার বাংলার ছাত্রছাত্রীদের উচ্চশিক্ষা গ্রহণের ক্ষেত্রে সব ধরণের সহযোগিতা করতে ইচ্ছুক।

প্রসঙ্গত, এই কারিগরী প্রযুক্তি শিক্ষা বিষয়ক মেলাটিতে( APAI fair) যোগ দিয়েছে সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ বিশ্ববিদ্যালয় ও উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলি।

More News