মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের “হুমকি”র পরেই চিকিৎসকদের ধর্মঘট হয়েছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

জুনিয়র চিকিৎসকরা ধর্মঘট শুরু করায় রাজ্যর বিভিন্ন জায়গায় স্বাস্থ্য পরিষেবা ভেঙে পড়েছে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী বললেন, চিকিৎসকদের নিরাপত্তা নিয়ে সমস্ত মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি লিখবেন তিনি।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের “হুমকি”র পরেই চিকিৎসকদের ধর্মঘট হয়েছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

দিল্লিতে প্রতিবাদে সামিল চিকিৎসকদের সঙ্গে দেখা করেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডাঃ হর্ষ বর্ধন


নিউ দিল্লি: 

এনআরএসকাণ্ড এবং তারপর চিকিৎসকদের ধর্মঘটকে (Doctors Strike) কেন্দ্র করে তোলপাড় রাজ্য। চিকিৎসা পরিষেবা ভেঙে পড়ায় তার পক্ষে বিপক্ষে শুরু হয়েছে চর্চা, তোলপাড় হচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ায়ও। এই পরিস্থিতিতে দেশজুড়ে চিকিৎসকদের ধর্মঘটের (Doctors Strike) নেপথ্যে মমতা বন্দ্যোপাাধ্যায়কেই দায়ী করলেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডাঃ হর্ষবর্ধন (Harsh Vardhan)। মঙ্গলবার থেকে কর্মবিরতি শুরু করেছেন রাজ্যের চিকিৎসকরা, র্তা দিতে, দেশজুড়ে কর্মবিরতি পালন শুরু করেছেন বিভিন্ন শহরের চিকিৎসকরা। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী (Harsh Vardhan) বলেন, “পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর (Mamata Banerjee) কাছে আমি করজোড়ে মিনতি করছি, তিনি যেন বিষয়টিকে ইগো হিসেবে না নেন। হামলাকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার পরিবর্তে, তিনি চিকিৎসকদের চরমসীমা দিচ্ছেন, হুঁশিয়ারি দিচ্ছেন, সেই কারণেই পশ্চিমবঙ্গ দেশের বিভিন্ন প্রান্তের চিকিৎসকরা ক্রুদ্ধ হয়েছেন”। চিকিৎসকদের তিনি প্রতীকী কর্মবিরতি পালন করতে বলেছেন, যাতে স্বাস্থ্য পরিষেবা বিপর্যস্ত হয়ে না পড়ে।

“আমরা খুবই নিরাপত্তাহীনতা বোধ করছি”: বৈঠকের আমন্ত্রণ ফিরিয়ে বললেন চিকিৎসকরা: ১০ টি তথ্য

NDTV কে হর্ষবর্ধন (Harsh Vardhan) বলেন, “চিকিৎসকদের কাজ করার জন্য নিরাপদ পরিবেশ প্রয়োজন”।  প্রতিবাদে(Doctors Strike) সামিল হওয়া একদল চিকিৎসকের সঙ্গে শনিবার দেখা করেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধন। পাশাপাশি চিকিৎসকদের নিরাপত্তা নিয়ে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়সহ বাকি সব রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি লিখবেন বলে জানান কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী। পশ্চিমবঙ্গের পাশাপাশি দিল্লি, মুম্বই, বেঙ্গালুরু, হায়দরাবাদ, জয়পুর, তিরুঅনন্তপুরমের চিকিৎসকরা একদিনের কর্মবিরতিতে (Doctors Strike) সামিল হয়েছেন। ফলে সেই সমস্ত শহরে ব্যাহত হচ্ছে চিকিৎসা পরিষেবা।

চিকিৎসকদের প্রতিবাদের জন্য কেন্দ্র মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেই দায়ী করছে: ১০টি তথ্য

বৃহস্পতিবার এসএসকেএম হাসপাতালে যান মুখ্যমন্ত্রী  মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানেই চিকিৎসকদের চরমসীমা দেন তিনি। তবে তারপরেও কাজ শুরু করেন নি চিকিৎসকরা।তিনি বলেন, যে সমস্ত চিকিৎসক কাজে ফিরবেন না, তাঁদের হোস্টেল ছেড়ে দেওয়া উচিত। পাশাপাশি তাঁর আরও মন্তব্য, “তাঁরা বহিরাগত, সরকার কোনওভাবেই তাঁদের সমর্থন করবে না”।

মুখ্যমন্ত্রী(Mamata Banerjee) বলেন, “যে সমস্ত চিকিৎসক  ধর্মঘটে গিয়েছেন, আমি তাঁদের তীব্র নিন্দা করি। কর্তব্যরত অবস্থায় পুলিশকর্মীর মৃত্যু হয়, তাতেও বাকি পুলিশকর্মীরা কাজ বন্ধ করেন না”। তাঁর আরও অভিযোগ, চিকিৎসকদের ধর্মঘটে ইন্ধুন জুগিয়েছে  বিজেপি ও সিপিআইএম এবং তারা হিন্দু-মুসলিম রাজনীতি করছে বলেও অভিযোগ করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়(Mamata Banerjee)।



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................