গত রাত থেকে নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী! আমফান তাণ্ডবে কলকাতায় ঝড়ের বেগ ৯০ থেকে ১০০ কিমি

অভিমুখ বদলেছে ঘূর্ণিঝড় আমফান। সাগরদ্বীপের বদলে হলদিয়াতে আছড়ে পড়তে পারে এই ঘূর্ণিঝড়। সেই সময় সম্ভাব্য বেগ থাকতে পারে ১২০-১৩০ কিমি

গত রাত থেকে নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী! আমফান তাণ্ডবে কলকাতায় ঝড়ের বেগ ৯০ থেকে ১০০ কিমি

সাগরদ্বীপের বদলে হলদিয়াতে আছড়ে পড়তে পারে এই ঘূর্ণিঝড়। সেই সময় সম্ভাব্য বেগ থাকতে পারে ১৫০-১৬০ কিমি।

কলকাতা:

গত ১২ ঘণ্টা ধরে নবান্নের কন্ট্রোল রুমে বসে সাইক্লোন পরিস্থিতি পর্যালোচনা করছেন মুখ্যমন্ত্রী। মঙ্গলবার রাত থেকেই রাজ্যের বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী, স্বরাষ্ট্র দফতর এবং পুলিশকর্তাদের সঙ্গী করে কন্ট্রোল রুমে ঘাঁটি গেড়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। প্রতি ঘণ্টায় পর্যালোচনা করছেন ঘূর্ণিঝড়ের অবস্থান। সম্ভাব্য ক্ষয়ক্ষতি প্রবণ জেলার ডিএম ও এসপিদের করণীয় কী, নির্দেশ দিচ্ছেন। যেভাবে বুলবুল মোকাবিলায় সজাগ ও সক্রিয় হয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী, সেই অভিজ্ঞতাকে সম্বল করে আমফান মোকাবিলার প্রস্তুতি নিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। নবান্ন সূত্রে এমনটাই খবর। জানা গিয়েছে, এখনও পর্যন্ত সতর্কতা অবলম্বনে প্রায় ৩ লক্ষ মানুষকে নিরাপদে সরানো হয়েছে। খারিফ ও রবি শস্য ক্ষতি এড়াতে পদক্ষেপ নিয়েছে কৃষি দফতর। প্রয়োজনে নবান্নের হেল্পলাইন নাম্বার ১০৭০-তে ফোন করতে রাজ্যবাসীকে আবেদন জানানো হয়েছে। জানা গিয়েছে, অভিমুখ বদলেছে ঘূর্ণিঝড় আমফান। সাগরদ্বীপের বদলে হলদিয়াতে আছড়ে পড়তে পারে এই ঘূর্ণিঝড়। সেই সময় সম্ভাব্য বেগ থাকতে পারে ১৫০-১৬০ কিমি। সেক্ষেত্রে সম্ভাব্য ক্ষয়ক্ষতি প্রবণ এলাকা হিসেবে দুই মেদিনীপুরের পাশাপাশি কলকাতার এবং হাওড়ার নামও উঠে এসেছে বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর খাতায়। জানা গিয়েছে, প্রাথমিক ধাক্কায় ৯০-১০০ কিমি বেগে হাওয়া বইছে কলকাতা ও গ্রামীণ হাওড়া এলাকায়। 

দেখে নিন মুখ্যমন্ত্রীর সেই ভিডিও: 

সজাগ ও সতর্ক কলকাতা পুলিশ আর হাওড়া কমিশনারেট। কলকাতার সবক'টি দীর্ঘকায় উড়ালপুলের প্রবেশ ও প্রস্থানপথ গার্ডরেল দিয়ে আটকে দিয়েছে কলকাতা পুলিশ। উত্তর কলকাতার জরাজীর্ণ বাড়িগুলো থেকে সরানো হয়েছে আবাসিকদের। গাছের তলা, বিদ্যুতের খুঁটি, খোলা জায়গা এবং ভগ্নপ্রায় নির্মাণের আশপাশে না থাকতে উপদেশ দিয়েছে কলকাতা পুরসভা। পুরসভার তরফেও খোলা হয়েছে কন্ট্রোলরুম। সেখান থেকে পরিস্থিতি তদারকি করছেন মেয়র ফিরহাদ হাকিম বলে সূত্রের খবর।গাছ পড়ে রাস্তা বন্ধের খবর পেলেই পুরসভার কন্ট্রোল রুমে জানাতে আবেদন করা হয়েছে। ঝড়ের তাণ্ডবে মধ্য কলকাতা থেকে দৃশ্যমানতা কমেছে হাওড়া ব্রিজের। 

দেখে নিন কন্ট্রোল রুমের নম্বরগুলো: 

নবান্ন কন্ট্রোলরুম ও টোল ফ্রি নম্বর- ২২১৪৩৫২৬, ২২১৪১৯৯৫ এবং ১০৭০ 

কলকাতা পুলিশ: (০৩৩) ২২১৪-৩০২৪, ২২১৪-১৩১০, ২২১৪-৩২৩০, হোয়াটসঅ্যাপ নম্বর- ৯৪৩২৬২৪৩৬৫

হাওড়া পুর নিগম কন্ট্রোলরুম নম্বর-০৩৩ ২৬৩৭ ১৭৩৫ 

হুগলি জেলা প্রশাসন কন্ট্রোলরুম ও টোল ফ্রি নম্বর- ১৮০০৩৪৫৬১৩৫ / ০৩৩-২৬৮১২৬৫২

এদিকে আবহাওয়াবিদদের দাবি, ৫টা নাগাদ স্থভূমিতে আছড়ে পড়লে এর তেজ থাকবে আগামী ১২ ঘণ্টা। দুই মেদিনীপুর, হাওড়া, কলকাতা, নদিয়া হয়ে উত্তর-পূর্ব বাংলাদেশে প্রবেশের কথা এই ঘূর্ণিঝড়ের। তাই ২১ তারিখ দুপুর পর্যন্ত প্রয়োজন ছাড়া গভীর সমুদ্র ও বাড়ির বাইরে বেরোতে মানা করেছে প্রশাসন। সূত্রের খবর, দক্ষিণ ২৪ পরগনার নামখানা, কাকদ্বীপ, ঝাড়খালি আর উত্তর ২৪ পরগনার হিঙ্গলগঞ্জে ঝড়ের প্রভবাবে উড়েছে একাধিক বাড়ির চাল।