দিল্লিতে এখনও পর্যন্ত করোনার গোষ্ঠী সংক্রমণ নেই, জানালেন মণীশ সিসোদিয়া

Coronavirus Crisis in Delhi: দিল্লির উপ-মুখ্যমন্ত্রী বলেন যে, কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিদলের আধিকারিকরাই জানিয়েছেন যে, রাজধানীতে এখনও গোষ্ঠী সংক্রমণ ছড়ায়নি

দিল্লিতে এখনও পর্যন্ত করোনার গোষ্ঠী সংক্রমণ নেই, জানালেন মণীশ সিসোদিয়া

Coronavirus: রাজধানীতে এখনও গোষ্ঠী সংক্রমণ ছড়ায়নি, জানালেন দিল্লির উপ-মুখ্যমন্ত্রী

হাইলাইটস

  • দিল্লিতে ২৯,০০০ এরও বেশি মানুষ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত
  • দেশের রাজধানীতে ৮৭৪ জন মারা গেছেন ওই মারণ রোগে ভুগে
  • তবে দিল্লিতে গোষ্ঠী সংক্রমণ ছড়ায়নি, মঙ্গলবার আশ্বস্ত করেন মণীশ সিসোদিয়া
নয়া দিল্লি:

দিল্লিতে (Delhi) করোনা ভাইরাসের (Coronavirus) কোনও গোষ্ঠী সংক্রমণ নেই, বৈঠকে আশ্বস্ত করেছেন কেন্দ্রীয় আধিকারিকরা, জানালেন দিল্লির উপ-মুখ্যমন্ত্রী মণীশ সিসোদিয়া। দিল্লিতে (Coronavirus Crisis in Delhi) লাগাতার বেড়ে চলেছে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ। বর্তমানে দেশের রাজধানীতে ২৯,০০০ এরও বেশি মানুষ ওই মারণ রোগে আক্রান্ত। সেখানে ৮৭৪ জন মারা গেছেন ওই রোগে ভুগে। স্বাস্থ্যমন্ত্রী সত্যেন্দ্র জৈন আশঙ্কা প্রকাশ করে বলেছিলেন যে এই সংক্রমণ দ্বিগুণ হারে বাড়তে পারে, আর তা যদি হয় তবে দিল্লিতে আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যেই কমপক্ষে ৫৬,০০০ মানুষ করোনায় আক্রান্ত হবেন বলে মনে হচ্ছে। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে মঙ্গলবারই সর্বদলীয় বৈঠকের ডাক দিয়েছেন দিল্লির উপ-রাজ্যপাল অনিল বৈজাল।

দিল্লির করোনা পরিস্থিতিতে বিকেল ৩টেয় সর্বদল বৈঠক ডাকলেন উপ-রাজ্যপাল

মঙ্গলবার দিল্লির স্বাস্থ্যমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, "আমরা তখনই গোষ্ঠী সংক্রমণ বলতে পারি যখন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত লোকজন বলতে পারেন না যে তাঁরা কীভাবে সংক্রমিত হয়েছেন। এমন অনেকগুলি ঘটনাই রয়েছে। দিল্লির ৫০ শতাংশ ক্ষেত্রে সংক্রমণের উৎস জানা যায়নি"। 

যখন ঠিক কোথা থেকে মানুষ আক্রান্ত হচ্ছেন তা বোঝা যায় না, অর্থাৎ উৎসের সন্ধান পাওয়া যায় না, তখনই তাকে করোনা মহামারীর তৃতীয় পর্যায় বা গোষ্ঠী সংক্রমণ হিসাবে আখ্যা দেওয়া হয়। দিল্লিতেও গোষ্ঠী সংক্রমণ হয়েছে কিনা সেব্যাপারে প্রশ্ন করা হলে স্বাস্থ্যমন্ত্রী সত্যেন্দ্র জৈন বলেন, এবিষয়ে নিশ্চিত করে বলতে পারে কেন্দ্রীয় সরকারই। তিনি আরও বলেন, "এইমসের নির্দেশক রণদীপ গুলেরিয়া বলেছেন যে দিল্লিতে কমিউনিটি ট্রান্সমিশন রয়েছে কিন্তু কেন্দ্র এখনও তার যুক্তিতে সম্মত দেয়নি। তাই যতক্ষণ না কেন্দ্র বলছে ততক্ষণ আমরা দিল্লিতে গোষ্ঠী সংক্রমণ হয়েছে একথা ঘোষণা করতে পারি না"।

হাসপাতালে শুধু দিল্লিবাসীর চিকিৎসা! মুখ্যমন্ত্রীর সিদ্ধান্ত খারিজ উপ-রাজ্যপালের

স্বাস্থ্যমন্ত্রীর এই কথার কয়েকঘণ্টার মধ্যেই দিল্লির উপ-মুখ্যমন্ত্রী মণীশ সিসোদিয়া জানালেন যে, কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিদলের আধিকারিকরা জানিয়েছেন যে, রাজধানীতে এখনও গোষ্ঠী সংক্রমণ ছড়ায়নি।

এদিকে সোমবার থেকেই জ্বর ও গলা ব্যথা হওয়ায় অসুস্থ বোধ করছেন মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল, তাঁর শরীরে করোনা ভাইরাসের লক্ষণ দেখা গেছে, আপাতত তাই নিজেই স্বেচ্ছা বিচ্ছিন্ন অবস্থায় রয়েছেন আপ প্রধান। আজ (মঙ্গলবার) তাঁর শরীর থেকে নমুনা সংগ্রহ করে করোনা ভাইরাসের টেস্টের জন্যে পাঠানো হবে। 

দিল্লির উপ-রাজ্যপাল অনিল বৈজাল সোমবারই দিল্লি মুখ্যমন্ত্রীর করোনা চিকিৎসা সংক্রান্ত একটি সিদ্ধান্ত খারিজ করে দেন। এর আগে অরবিন্দ কেজরিওয়াল জানিয়েছিলেন, দিল্লিতে একমাত্র সেরাজ্যের বাসিন্দাদের জন্যেই হাসপাতালগুলোর করোনা চিকিৎসা সংক্রান্ত বেড বরাদ্দ করা আছে। সেই সিদ্ধান্তই খারিজ করে দেন দিল্লির উপ রাজ্যপাল। পাশাপাশি আপ প্রধান এও বলেছিলেন যে, একমাত্র করোনা সংক্রান্ত লক্ষণ দেখা গেলে তবেই করোনা টেস্ট করা হবে। সেই সিদ্ধান্তও বাতিল করে দিয়ে বৈজাল জানান, যেহেতু এটা একটা ভাইরাস জনিত রোগ এবং খুবই সংক্রামক, তাই যত বেশি সম্ভব মানুষের করোনা টেস্ট করানো প্রয়োজন।