ম্যারাথন বৈঠক! আজ রাত ৯টার মধ্যে জানা যাবে কংগ্রেসের নতুন প্রধান কে হবেন

এর আগে দলের সভাপতি পদ থেকে ইস্তফা দেন রাহুল গান্ধি । তখন থেকেই কংগ্রেস প্রধানের পদটি ফাঁকা, শোনা যাচ্ছে, কংগ্রেসের নতুন সভাপতি হতে পারেন মুকুল ওয়াসনিক

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS

কংগ্রেসের কার্যকরী কমিটি এতদিন দলের সভাপতির দায়িত্ব সামলানোর জন্যে রাহুল গান্ধিকে আনুষ্ঠানিকভাবে ধন্যবাদ জানাবে: সূত্র


নয়া দিল্লি: 

শনিবারই দলের নতুন সভাপতি নির্বাচন সম্পন্ন করতে চাইছে কংগ্রেসের কার্যকরী কমিটি (Congress Working Committee)। জাতীয় নির্বাচনে দলের পরাজয়ের দায়স্বীকার করে প্রায় মাস দুয়েক আগে দলের সভাপতি পদ থেকে ইস্তফা দেন রাহুল গান্ধি (Rahul Gandhi)। তারপর থেকেই কংগ্রেস প্রধানের পদটি ফাঁকা পড়ে রয়েছে। শোনা যাচ্ছে, কংগ্রেসের (Congress) নতুন সভাপতি হিসাবে প্রবীণ নেতা মুকুল ওয়াসনিককে (Mukul Wasnik) ভাবা হচ্ছে, যদিও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে এ বিষয়ে আরও আলোচনা চান রাহুল। সূত্র মারফৎ খবর যে, শুক্রবার কংগ্রেস নেতাদের সঙ্গে এক বৈঠকে রাহুল গান্ধি বলেন, রাজ্যের কংগ্রেস নেতাদের সঙ্গে আরও পরামর্শ করেই নতুন কংগ্রেস সভাপতি নির্বাচন করা উচিত। বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় যে কংগ্রেসের রাজ্য ইউনিট এবং আইনসভা দলের নেতাদের নতুন দলের সভাপতি নিয়োগের পরামর্শের জন্যে আমন্ত্রণ জানানো হবে।

সংবাদ সংস্থা পিটিআইয়ের খবর অনুযায়ী, মিঃ গান্ধি (Rahul Gandhi) নাকি দলের নেতাদের জানিয়েছেন, "চাপের মুখে থেকে এই বিষয়ে কংগ্রেস পদক্ষেপ নেবে জেনে আমি খুশি।"

শনিবার কংগ্রেসের নতুন প্রধানের নাম ঘোষণা হতে পারে, দৌড়ে এগিয়ে মুকুল ওয়াসনিক

রবিবার কংগ্রেসের কার্যকরী কমিটির (Congress Working Committee) সভা হওয়ার পরে গত দুই দশকে প্রথমবারের মতো গান্ধি পরিবারের বাইরের কেউ দলের সভাপতি হতে পারেন বলে শোনা যাচ্ছ। বহুদিনের প্রশাসনিক অভিজ্ঞতা সম্পন্ন কংগ্রেস নেতা মুকুল ওয়াসনিক (Mukul Wasnik) ওই পদে নির্বাচিত হবেন এবং আশা করা হচ্ছে অন্তত কংগ্রেসের সাংগঠনিক নির্বাচন পর্যন্ত ওই দায়িত্ব সামলাবেন।

১৩৪ বছরের ইতিহাসে, ভারতের প্রাচীনতম রাজনৈতিক দলের বেশিরভাগ নেহেরু-গান্ধি পরিবারেরই সদস্য ছিলেন। তবে বর্তমানে গান্ধি পরিবারের যে ৩ সদস্য সক্রিয় রাজনীতিতে রয়েছেন, সনিয়া গান্ধি, রাহুল গান্ধি এবং প্রিয়াঙ্কা গান্ধি বঢরা, প্রত্য়েকেই এই প্রক্রিয়ার অংশ হতে অস্বীকার করেছেন।

সূত্র জানিয়েছে যে দলটি ৪৯ বছরের রাহুলকে (Rahul Gandhi) পদত্যাগ প্রত্যাহারের জন্য বিভিন্ন প্রচেষ্টা চালিয়ে গেলেও শেষপর্যন্ত নিজের ভূমিকায় অটল থাকেন তিনি। গত লোকসভা নির্বাচনে কংগ্রেসের ভরাডুবির দায় নিজের কাঁধে নিয়ে দলের সর্বভারতীয় সভাপতির পদ থেকে ইস্তফা দেন সনিয়া-রাজীব পুত্র।

এ কে অ্যান্টনি, আহমেদ প্যাটেল এবং কে ভি ভেনুগোপাল সহ শীর্ষস্থানীয় নেতারা সোনিয়া গান্ধির বাড়িতে হওয়া শুক্রবারের ওই বৈঠকে ছিলেন। সূত্র বলছে যে নেতারা সিদ্ধান্ত নিয়েছেন যে পরবর্তী কংগ্রেস সভাপতি বাছাইয়ে আর কোনও বিলম্ব করা হবে না।

‘‘প্রক্রিয়ায় অংশ নিচ্ছি না'', নতুন কংগ্রেস সভাপতি নির্বাচন প্রসঙ্গে রাহুল গান্ধি

সূত্র বলছে, দীর্ঘ প্রশাসনিক অভিজ্ঞতা থাকাতেই মুকুল ওয়াসনিককে কংগ্রেসের পরবর্তী সভাপতি হিসাবে বিবেচনা করা হচ্ছে কেননা অনেক কংগ্রেস নেতাই মনে করছেন তিনিই পারবেন কংগ্রেসের সাংগঠনিক দুর্বলতাগুলি সরিয়ে দলকে নতুন দিশা দেখাতে।

মুকুল ওয়াসনিক পিভি নরসীমা রাও এবং মনমোহন সিংয়ের আমলে কংগ্রেস সরকারের হয় কাজ করেছেন। এমনকি তিনি সোনিয়া গান্ধির হয়ে সাধারণ সম্পাদক হিসাবেও কাজ করেছেন বহুদিন।

শশী থারুর সহ কংগ্রেসের একাধিক নেতা এ বিষয়ে দলকে সতর্ক করে বলেন যে, নতুন কংগ্রেস প্রধান নির্বাচন করতে দেরি হওয়ায় দলের ক্ষতি হয়ে যাচ্ছে।

কংগ্রেস নেতা অভিষেক মনু সিংভিও বলেছেন, নতুন দলীয় প্রধানের বাছাইয়ে আর বিলম্ব হওয়া উচিত নয়। "শনিবার, সকলের সঙ্গে আলোচনা করে দলের কংগ্রেসের সভাপতি নির্বাচন সম্পন্ন করতে হবে। সামান্য বিলম্ব হওয়াও উচিত নয়," ট্যুইটারে লেখেন তিনি । 



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................