This Article is From Jun 14, 2020

আত্মহত্যা করলেন অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত, বয়স মাত্র ৩৪: পুলিশ

সুশান্তের প্রাক্তন ম্যানেজার দিশা স্যালিয়ান আত্মহত্যা করার পরই গত সপ্তাহে সুশান্ত একটি ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে লিখেছিলেন, “এ এক ভয়ানক সংবাদ"।

আত্মহত্যা করলেন অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত, বয়স মাত্র ৩৪: পুলিশ

নিজের ঘরেই গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেন এই প্রতিভাবান অভিনেতা।

নয়াদিল্লি:

মুম্বইয়ে নিজের বাড়িতেই আত্মহত্যা করলেন বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত! পুলিশ জানিয়েছে, তাঁর বয়স মাত্র ৩৪। নিজের ঘরেই গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেন এই প্রতিভাবান অভিনেতা। কোনও সুইসাইড নোট মেলেনি বলে জানিয়েছে পুলিশ। “সুশান্ত বান্দ্রার নিজের বাড়িতে আত্মহত্যা করেছেন। আমাদের দল সেখানে রয়েছে,” বলেন মনোজ শর্মা, পশ্চিম অঞ্চলের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার। সুশান্ত সিং রাজপুতের তার ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে শেষ পোস্ট করেছিলেন এক সপ্তাহ আগে যেখানে তাঁর প্রয়াত মায়ের প্রতি শ্রদ্ধা জানান তিনি।

পাটনার বাসিন্দা সুশান্ত সিং রাজপুত অভিনয়ে আসার আগে নয়াদিল্লিতে ইঞ্জিনিয়ারিং পড়েন। থিয়েটার এবং নাচে অংশ নেওয়া শুরু করার পরে পড়াশুনার জন্য খুব কমই সময় পেতেন সুশান্ত। অভিনয়ের জীবিকা শুরুর আগে চার বছরের ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্সের মাত্র তিন বছরই পড়াশোনা করেছিলেন সুশান্ত।

এমন অবাক করা মর্মান্তিক ঘটনায় শোকস্তব্ধ বলিউড শ্রদ্ধা জানাতে শুরু করেছে তরুণ অভিনেতাকে। "সত্যি বলতে এই খবর আমাকে হতবাক ও বাকরুদ্ধ করে দিয়েছে ... আমার মনে পড়ছে সুশান্ত সিং রাজপুতের ছিঁছোড়ে দেখেছিলাম এবং আমার বন্ধু তথা ওই সিনেমার প্রযোজক সাজিদকে বলেছিলাম যে আমার সিনেমাটা কতখানি ভালো লেগেছে এবং আমার ইচ্ছা ছিল এই সিনেমার এক অংশ হতে পারতাম যদি! এমন প্রতিভাবান অভিনেতা ... ঈশ্বর তাঁর পরিবারকে শক্তি দান করুন," অক্ষয় কুমার টুইট করেছেন। "কী অভাবনীয় ক্ষতি," টুইট করেছেন অজয় দেবগন। রীতেশ দেশমুখ লিখেছেন "কথার বলতে পারছি না, হতবাক।"

সুশান্ত টেলিভিশনে কাজের মধ্য দিয়েই নিজের কর্মজীবন শুরু করেছিলেন। পবিত্র রিশতা সিরিয়াল থেকেই পরিচিত মুখ হয়ে ওঠেন তিনি। কাই পো চে সিনেমা দিয়ে বলিউডে আত্মপ্রকাশ করেন সুশান্ত এবং পরে এমএস ধোনি বায়োপিক এবং কেদারনাথের মতো সিনেমায় অভিনয় করেছিলেন। তাঁকে শেষ দেখা হয়েছিল ছিঁছোড়ে সিনেমায়।

সুশান্তের প্রাক্তন ম্যানেজার দিশা স্যালিয়ান আত্মহত্যা করার পরই গত সপ্তাহে সুশান্ত একটি ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে লিখেছিলেন, “এ এক ভয়ানক সংবাদ"।