রাজারহাটে চা-চক্রে দিলীপ ঘোষের ওপর হামলা! কাঠগড়ায় তৃণমূল কংগ্রেস

এই হামলার তীব্র নিন্দা করেছেন কংগ্রেস সাংসদ অধীর চৌধুরী এবং  সিপিআইএম বিধায়ক সুজন চক্রবর্তী।

রাজারহাটে চা-চক্রে দিলীপ ঘোষের ওপর হামলা! কাঠগড়ায় তৃণমূল কংগ্রেস

ফাইল ছবি।

কলকাতা:

রাজারহাটে প্রাতর্ভ্রমণে বেরিয়ে চা-চক্রের আড্ডায় দিলীপ ঘোষের বিরুদ্ধে হামলার অভিযোগ (TMC attacks on Dilip Ghosh)। বুধবার তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ তোলেন খোদ বিজেপি সভাপতি। যদিও রাজ্যের শাসক দলের তরফে এই অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে। জানা গিয়েছে, বিজেপি সাংসদ (Bengal BJP chief) তথা দলের সভাপতির নিরাপত্তারক্ষীর সঙ্গে হাতাহাতিও হয়েছে হামলাকারীদের। এদিন বিজেপি সভাপতি বলেন, "আমি সম্প্রতি এলাকায় এসেছি। তারপর থেকেই বাড়িওয়ালাকে এসে শাসিয়ে যাচ্ছে তৃণমূল কংগ্রেস। আমি এখানে (Rajarhat in Kolkata) আসার পর প্রাতর্ভ্রমণে বেরিয়ে ঠিক করি দলীয় কর্মী-সংগঠকদের সঙ্গে চা-চক্রে বসবো। সেটাই আজ করতে গিয়েছিলাম। পুলিশের থেকে অনুমতি নিয়েই চেয়ার পাতা সয়। সেখানেই এসে ভাঙচুর শুরু করে তৃণমূল কংগ্রেসের গুণ্ডাবাহিনী।" হামলা ঠেকাতে দিলীপ ঘোষের নিরাপত্তারক্ষী এগিয়ে গেলে তাঁর সঙ্গেও হাতাহাতি হয় হামলাকারীদের। এমনটাই বিজেপির তরফে অভিযোগ।
তাঁরাই উদ্ধার করেন বিজেপি সাংসদকে।

যদিও এই ঘটনা অস্বীকার করে তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, "বিজেপি যাতে মনে না করে লোকসভার ফলের প্রতিফলন পুরভোট ও বিধানসভায় হবে। মানুষ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাশেই থাকবে।"

এই হামলার তীব্র নিন্দা করেছেন কংগ্রেস সাংসদ অধীর চৌধুরী এবং  সিপিআইএম বিধায়ক সুজন চক্রবর্তী। রাজ্য বিজেপি সূত্রে খবর, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ফোন করে হামলার খবর নিয়েছেন। অন্যদিকে সিঙ্গুরে এই হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ দেখান হুগলি বিজেপির কর্মী-সমর্থকরা।