জেলেই খুন শিখ ধর্মগ্রন্থ অবমাননায় মূল অভিযুক্ত, বাড়ল জেলের নিরাপত্তা

ঘটনায় তদন্তের নির্দেশ পঞ্জাব মুখ্যমন্ত্রীর, কড়া শাস্তির হুঁশিয়ারি

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
জেলেই খুন শিখ ধর্মগ্রন্থ অবমাননায় মূল অভিযুক্ত, বাড়ল  জেলের নিরাপত্তা

সব ধর্মের মানুষের প্রতি শান্তি রক্ষা করার আবেদন জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিং( ফাইল)


চণ্ডীগড়: 

হাইলাইটস

  1. কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিং
  2. ২০১৫-এ শিখ ধর্মগ্রন্থ অবমাননার ঘটনায় মূল অভিযুক্ত মহিন্দর পাল বিট্টু
  3. অভিযোগ জেলেরই অন্য দুই বন্দি তাঁকে খুন করে।

২০১৫-এ শিখ ধর্মগ্রন্থ অবমাননার ঘটনায় মূল অভিযুক্ত মহিন্দর পাল বিট্টুকে খুন করা হল জেলের ভিতরেই, ঘটনার পরেই সাম্প্রদায়িক হিংসার আশঙ্কায় পঞ্জাব জুড়ে নিরাপত্তা জোরদার করা হল। পঞ্জাব মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিং ঘটনায় জড়িতদের কড়া শাস্তি দেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি দিলেন। জানা গেছে, ৪৯ বছরের মহিন্দর পাল বিট্টু ২০১৫-এ ফরিদকোট জেলার বারগারিতে শিখ ধর্মগ্রন্থের অবমাননার ঘটনায় পাতিয়ালার নিউ নভ জেলে (New Nabha prison) বন্দি ছিলেন। অভিযোগ, সেখানেই  জেলেরই অন্য দুই বন্দি গুরুসেবক সিং ও মনিন্দর সিং তাঁকে খুন করে। স্থানীয় সময় ভোর ৫টা ৪৫মি. নাগাদ ঘটে ওই ঘটনা। লোহার রড দিয়ে বেধড়ক মারধর করা হয় মহিন্দর পাল  বিট্টুকে। গুরুতর জখম অবস্থায় তাঁকে পাতিয়ালার নভ জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিত্সকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

“সহিষ্ণুতায় প্রতিশ্রুতিবদ্ধ”: ধর্মীয় স্বাধীনতা সংক্রান্ত মার্কিন রিপোর্টের দাবি খারিজ করে বলল ভারত

ঘটনা প্রকাশ্যে আসার পরেই তদন্তের নির্দেশ দেন পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী(Punjab CM)। পাশাপাশি এই ঘটনা নিয়ে যাতে কোনোরকম গুজব ছড়ানো না হয় সে ব্যাপারেও সকলকে স্পষ্ট নির্দেশিকা দেন তিনি। সব ধর্মের মানুষের প্রতি শান্তি রক্ষা করার আবেদনও জানান অমরিন্দর সিং। ইতিমধ্যেই জেলের সুপারিনটেনডেন্ট ও ব্যারাকের দায়িত্বে থাকা পুলিশ আধিকারিককে সাসপেন্ড করেছে পঞ্জাব সরকার। সূত্রের খবর,রাজ্যের নিরাপত্তা বজায় রাখার স্বার্থে ইতিমধ্যেই বিএসএফের (BSF)১০কোম্পানি বাহিনী ও দুই কোম্পানি র‌্যাফকে (RAF) পঞ্জাবে প্রস্তুত রাখা হয়েছে। জেলের মধ্যে এই হত্যার ঘটনায় একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে ৩ দিনের মধ্যে রিপোর্ট দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পঞ্জাব সরকার(Punjab CM)জানিয়েছে, জেলবন্দির হত্যার ঘটনায় বিচারবিভাগীয় তদন্তও করা হবে।গত বছরেই শিখ ধর্মগ্রন্থের অবমাননার ঘটনায় মূল অভিযুক্ত মহিন্দর পাল বিট্টুকে গ্রেফতার করা হয়।

বিচারপতি নিয়োগ করুন, প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি প্রধানবিচারপতি রঞ্জন গগৈয়ের

ডেরা সাচা সৌদার অনুগামী বিট্টুর বিরুদ্ধে ২০১৫ সালে ফরিদকোটের বারগারিতে শ্রী গুরু গ্রন্থ সাহিবকে (Shri Guru Granth Sahib) অবমাননার অভিযোগ ওঠে।সেই ঘটনাকে ঘিরে রাজ্য জুড়ে বিক্ষোভ-প্রতিবাদের আগুন জ্বলে উঠেছিল। মোগা জেলায় পুলিশের গুলিতে মৃত্যু হয় দুই বিক্ষোভকারীর। ফরিদকোটের কোটকাপুরাতেও বিক্ষোভকারীদের উপর গুলি চালানোর অভিযোগ উঠেছিল পুলিশের বিরুদ্ধে।

ক্ষমতার আসার পরেই পুলিশের গুলিতে মৃত্যুর ঘটনায় অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি রনজিত্ সিংয়ের নেতৃত্বে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেন পঞ্জাব মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিং(Punjab CM) । ওই কমিটি প্রাথমিক ভাবে রিপোর্ট দেয়, এই ঘটনার সঙ্গে যোগসূত্র রয়েছে ডেরা সাচা সৌদা প্রধান গুরমিত্ রাম রহিমের মামলার।



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................