This Article is From Jul 28, 2019

আস্থা ভোটের আগের দিন কর্নাটকের ১৪ জন বিধায়ককে অযোগ্য ঘোষণা করায় সুবিধা বিজেপির

গত সপ্তাহে কর্নাটকে কংগ্রেস ও এইচডি কুমারস্বামী জোট সরকার আস্থা ভোটে ব্যর্থ হওয়ার পরে বিজেপি সরকার গড়ার দাবি জানায়

আস্থা ভোটের আগের দিন কর্নাটকের ১৪ জন বিধায়ককে অযোগ্য ঘোষণা করায় সুবিধা বিজেপির

হাইলাইটস

  • গত বৃহস্পতিবার, ৩ জন বিধায়ককে অযোগ্য ঘোষণা করেন কর্নাটকের স্পিকার
  • রবিবার আরও ১৪ জন বিধায়কের অযোগ্যতা ঘোষণায় বিধায়ক সংখ্যা ২০৮ এ নেমে আসে
  • সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণের জন্যে ১০৫ জনের সমর্থন দরকার যা বিজেপির আছে
বেঙ্গালুরু:

সোমবার কর্নাটক (Karnataka) বিধানসভায় নিজেদের সংখ্যাগরিষ্ঠতার প্রমাণ দেবে বিজেপি। তার আগের দিনই কংগ্রেসের ১১ জন বিদ্রোহী বিধায়ক এবং এইচডি কুমারস্বামী এর জনতা দল সেকুলারের ৩ বিধায়ককে অযোগ্য ঘোষণা করলেন কর্নাটকের অধ্যক্ষ কে আর রমেশ কুমার (KR Ramesh Kumar)। এর ফলে নবনির্বাচিত বিজেপি সরকারের আরও নাগালের মধ্যে এল বিধানসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণ করা,আগামিকাল বিধানসভায় আস্থা ভোটে (Karnataka trust vote) নিজেদের প্রমাণ করতে হবে বিজেপিকে (BJP)। এর আগে গত বৃহস্পতিবার ৩ বিধায়ককে অযোগ্য ঘোষণা করেন কর্নাটক বিধানসভার স্পিকার। এরপরে রবিবার ফের একবার বিধায়কদের অযোগ্য ঘোষণা করায় বিধানসভার বিধায়কের আসনসংখ্যা কমে দাঁড়ায় ২০৮, অর্থাৎ সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণ করতে হলে বিজেপির কাছে থাকতে হবে কমপক্ষে ১০৫ বিধায়ক, যা ইতিমধ্যেই গেরুয়া দলের কাছে আছে। 

আস্থা ভোটে কুমারস্বামী সরকারের পতন, “কর্মফল”, প্রতিক্রিয়া বিজেপির

নয়া অধ্যক্ষ নির্বাচন না হওয়া পর্যন্ত কর্নাটক বিধানসভার অধ্যক্ষের দায়িত্ব সামলানো শ্রী রমেশ জানিয়েছেন, “আমি আমার কর্তব্য করেছি”।

কংগ্রেসের পক্ষ থেকে তাঁদের নেতা সিদ্দারামাইয়া ট্যুইট করেছেন: "আমি ১৪ জন বিধায়ককে অযোগ্য ঘোষণা করার বিষয়ে স্পিকারের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানাই। স্পিকারের এই সৎ সিদ্ধান্ত দেশের সমস্ত প্রতিনিধিদের জন্যে যারা @BJP4India -র ফাঁদে পড়তে পারে তাঁদের জন্যে কঠিন সঙ্কেত প্রেরণ করবে।"

গত সপ্তাহে কংগ্রেস এবং এইচডি কুমারস্বামীর সরকার আস্থাভাজনে (Karnataka trust vote) ব্যর্থ হওয়ার পরে ১৪ মাস পুরনো জোট সরকারের থেকে ক্ষমতার দাবি করেছিল বিজেপি (BJP) । ওই জোট (Karnataka coalition government) বিজেপির ১০৫ বিধায়ক সংখ্যার বিপরীতে মাত্র  ৯৯ জনের আস্থা অর্জন করতে সমর্থ হয়।

চতুর্থবারের জন্য কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ বিএস ইয়েদুরাপ্পার

চলতি মাসের গোড়ার দিকে কংগ্রেসের ১৩ জন এবং জেডিএসের ৩ জন বিধায়কের পদত্যাগের পর এবং সরকারকে সমর্থনকারী দুজন নির্দল বিধায়ক সরকার থেকে সমর্থন প্রত্যাহারের পর ওই ভোটাভুটি হয়।

শুক্রবার কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে চতুর্থবার শপথ নেন বিজেপি নেতা বিএস ইয়েদুরাপ্পা। কংগ্রেস এবং জনতা দল সেকুলারের জোট সরকারের পতনের তিনদিন পর কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নেন তিনি। ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে শপথ নিতে হবে তাঁকে। বিজেপির পক্ষে রয়েছে ১০৬ জন বিধায়কের সমর্থন, সোমবার তাঁদের সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণ করতে হবে।  যদিও জয়ের ব্যাপারে ১০০ শতাংশ নিশ্চিত বলে জানিয়েছেন বিএস ইয়েদুরাপ্পা।