This Article is From Oct 13, 2018

রাষ্ট্রসঙ্ঘের মানবাধিকার কাউন্সিলের সদস্য হল ভারত

রাষ্ট্রসঙ্ঘের মানবাধিকার কাউন্সিলের সদস্য  হল ভারত। সবচেয়ে  বেশি সংখ্যক 188 টি  ভোট  পেয়ে মানবাধিকার রক্ষার জন্য গঠিত এই কাউন্সিলের সদস্য হওয়ার ছাড়পত্র  মিলল।

রাষ্ট্রসঙ্ঘের মানবাধিকার কাউন্সিলের সদস্য  হল ভারত

2006 সালের মার্চ মাসে  সদস্য পথ চলা  শুরু করে রাষ্ট্রসঙ্ঘের মানবাধিকার  কাউন্সিল

হাইলাইটস

  • সবচেয়ে বেশি সংখ্যক 188 টি ভোট পেয়ে সদস্য হল ভারত
  • পরের বছর পয়লা জানুয়ারি থেকে সদস্য হিসেবে কাজ শুরু করবে ভারত
  • সবচেয়ে কম 97 টি করে ভোট পেলেই কাউন্সিলে নাম লেখানো যায়
রাষ্ট্রসঙ্ঘ:

রাষ্ট্রসঙ্ঘের মানবাধিকার কাউন্সিলের সদস্য  হল ভারত। সবচেয়ে  বেশি সংখ্যক 188 টি  ভোট  পেয়ে মানবাধিকার রক্ষার জন্য গঠিত এই কাউন্সিলের সদস্য হওয়ার ছাড়পত্র  মিলল। পরের বছর পয়লা জানুয়ারি থেকে  সদস্য  হিসেবে  কাজ শুরু করবে  ভারত। রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ সভার সদস্য 193 টি দেশের ভোটের ভিত্তিতে নতুন কেউ এই কাউন্সিলের সঙ্গে  যুক্ত হতে  পারে।

এবারও তাই  হল। ভোট পর্ব  মেটার পর দেখা যায় 18টি দেশ  সদস্য  হওয়ার  ছাড়পত্র  পেয়েছে। সবচেয়ে  কম  97 টি করে ভোট পেলেই কাউন্সিলে নাম লেখানো যায়। কিন্ত এদিন দৌড়ে থাকা অন্য সবাইকে  বেশ কিছুটা  পেছনে ফেলে  সবচেয়ে  বেশি  ভোট  নিয়ে এশিয়া প্যাসিফিক ক্যাটাগরি থেকে  সদস্য  হল ভারত। ভারত ছাড়া  এই একই ক্যাটাগরি থেকে আবেদন করেছিল  বাহারিন, বাংলাদেশ, ফিজ্জি এবং ফিলিপিন্স।

রাষ্ট্রসঙ্ঘে ভারতের স্থায়ী  প্রতিনিধি সৈয়দ আকবরউদ্দিন  সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে জানিয়েছেন, আন্তর্জাতিক স্তরে স্বতন্ত্র উপস্থিতির জন্যই  এত  সংখ্যক ভোট  মিলেছে। এই সদস্য  পদের মেয়াদ তিন বছর। এর আগে  জেনিভার মানবাধিকার  কাউন্সিলের সদস্য হয়েছিল ভারত।

2006 সালের মার্চ মাসে  সদস্য  দেশ গুলির মিলিত প্রয়াসে পথ চলা  শুরু করে রাষ্ট্রসঙ্ঘের মানবাধিকার  কাউন্সিল।  আফ্রিকা মহাদেশ থেকে এটির সদস্য  হতে  পারে 13 টি দেশ, এশিয়া প্যাসিফিক থেকেও সদস্য হয় 13 টি দেশ।  পূর্ব ইউরোপ থেকে নির্বাচিত হয়  6টি দেশ। ল্যাটিন আমেরিকা এবং ক্যারাবিয়ান দেশগুলির মধ্যে থেকে নির্বাচিত হতে  পারে   8টি দেশ  আর পশ্চিম ইউরোপ এবং অন্য  জায়গা থেকে সদস্য হয়  আরও 7 টি দেশ