"আমার ফোন ট্যাপ করা হচ্ছে": কেন্দ্র সহ ২-৩টি রাজ্যের বিরুদ্ধে চাঞ্চল্যকর অভিযোগ মুখ্যমন্ত্রী মমতার

WhatsApp Hack: ব্যবহারকারীর মেসেজ, ফোন এবং পাসওয়ার্ডের অ্যাক্সেস দেওয়ার জন্য পেগাসাস কোনও ভিডিও কলের সময় ফোনের অপারেটিং সিস্টেমটি হ্যাক করে নেয় বলে অভিযোগ।

WhatsApp Hack: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রশ্ন তোলেন, “আমাদের বাকস্বাধীনতা কোথায়?"

কলকাতা:

অজ্ঞাতনামা সংস্থাগুলি ইজরায়েলের একটি স্পাইওয়্যার (Israeli spyware) ব্যবহার করে সাংবাদিক এবং মানবাধিকারকর্মীদের হোয়াটসঅ্যাপের কথোপকথনের উপর নজরদারি করেছে! মেসেজিং সার্ভিস হোয়াটসঅ্যাপের এমন ঘোষণার (WhatsApp's announcement) বিষয়ে তদন্ত শুরু করার জন্য কেন্দ্রকে শনিবার অনুরোধ করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (West Bengal Chief Minister Mamata Banerjee)। মুখ্যমন্ত্রী বলেন যে, “এটা খুবই গুরুতর বিষয়। আমি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে (Prime Minister Narendra Modi) এই বিষয়টিতে তদন্ত নিশ্চিত করার জন্য অনুরোধ করব।” তৃণমূল কংগ্রেস সুপ্রিমো দেশের পরিস্থিতিকে ‘বেশ গুরুতর' বলেই মনে করছেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রশ্ন তোলেন, “আমাদের বাকস্বাধীনতা কোথায়? আমরা তাহলে কী স্বাধীনতা পেলাম যে ফোনেও নির্দ্বিধায় কথা বলতে পারব না? আমরা যা বলছি তা কেউ শুনছে! আমরা ভেবেছিলাম হোয়াটসঅ্যাপের মেসেজগুলি এনক্রিপ্ট করা যায় না, তবে সেটাও রেহাই পেলনা। ল্যান্ডলাইন ফোন বা মোবাইল ফোন কোনওটাই নিরাপদ নয়- এটি সম্পূর্ণ গুপ্তচরবৃত্তি।”

আরও পড়ুনঃ প্রকাশিত ভারতের নতুন মানচিত্র! দেখে নিন কেন্দ্রশাসিত জম্মু কাশ্মীর ও লাদাখের অবস্থান

মুখ্যমন্ত্রী মমতা একাধিকবার কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তার ফোন ট্যাপ করার অভিযোগ তুলেছিলেন। “আমার ফোন ট্যাপ করা হয়েছিল, এবং আমি বিষয়টা জানি কারণ আমার কাছে তথ্য এবং প্রমাণ রয়েছে। সরকারও জানে তারা এটা করেছে। কেন্দ্রীয় সরকার এবং দুই-তিনটি রাজ্য সরকারের নির্দেশে এটি ঘটছে। রাজ্যগুলোর নাম বলব না আমি, তবে এর মধ্যে একটিতে বিজেপি ক্ষমতায় রয়েছে,” বলেন মুখ্যমন্ত্রী।

শনিবার একটি দলীয় বৈঠকে কংগ্রেস প্রধান সোনিয়া গান্ধিও এই ধরনের কর্মকাণ্ডকে “অবৈধ, অসাংবিধানিক এবং লজ্জাজনক” বলে অভিহিত করে কেন্দ্রকে আক্রমণ করেন। সোনিয়া বলেন, “আরও অনেক বিষয় রয়েছে যা সম্পর্কে আপনি সচেতন হতে পারেন। সর্বশেষ চমকপ্রদ তথ্য আমরা যা পেলাম তা হল মোদি সরকার ইজরায়েলি পেগাসাস সফ্টওয়্যারটির মাধ্যমে নেতাকর্মী, সাংবাদিক এবং রাজনৈতিক ব্যক্তিদের উপর গুপ্তচরবৃত্তি করছে। এই কাজকর্মগুলি কেবল অবৈধ এবং অসাংবিধানিক নয়, লজ্জাজনকও।”

আরও পড়ুনঃ জম্মু ও কাশ্মীর থেকে রাজ্যের ১৩১ শ্রমিককে ঘরে ফিরতে সাহায্য করছেন মুখ্যমন্ত্রী

ফেসবুকের মালিকানাধীন হোয়াটসঅ্যাপ বৃহস্পতিবার জানিয়েছিল যে, পেগাসাস (Pegasus) নামে ইজরায়েলি স্পাইওয়্যার ব্যবহার করে নামহীন বেশ কয়েকটি সংস্থা দ্বারা বিশ্বব্যাপী গুপ্তচরবৃত্তি করা ব্যক্তিদের মধ্যে রয়েছেন ভারতীয় সাংবাদিক এবং মানবাধিকার কর্মীরা। সংস্থাটি জানিয়েছে যে, বিশ্বব্যাপী প্রায় ১,৪০০ ব্যবহারকারীর ফোন হ্যাক করার বিতর্কিত কর্মসূচির পিছনে থাকা ইজরায়েলি নজরদারি সংস্থা (Israeli surveillance firm) এনএসও গ্রুপের (NSO Group) বিরুদ্ধে মামলা করছে।

ব্যবহারকারীর মেসেজ, ফোন এবং পাসওয়ার্ডের অ্যাক্সেস দেওয়ার জন্য পেগাসাস কোনও ভিডিও কলের সময় ফোনের অপারেটিং সিস্টেমটি হ্যাক করে নেয় বলে অভিযোগ। এটি ঘরে বসে অন্যের কথোপকথন শুনতে পারবেন মোবাইল ফোনকে এমন মাইক্রোফোনেও রূপান্তর করতে পারে পেগাসাস। হোয়াটসঅ্যাপের বিশ্বজুড়ে ১.৫ বিলিয়ন ব্যবহারকারী রয়েছেন, যার মধ্যে ভারতেই রয়েছেন প্রায় ৪০০ মিলিয়ন মানুষ।

More News