This Article is From Aug 23, 2019

তামিলনাডুতে ঢুকেছে ৬ Terrorist! খবর পেয়ে রাজ্যে জারি সতর্কতা

রাজ্যে ঢুকে পড়েছে ছয় Lashkar-e-Taiba জঙ্গি, এই মর্মে Tamil Nadu-র পুলিশ রাজ্যে কড়া সতকর্তা জারি করেছে।

তামিলনাডুতে ঢুকেছে ৬ Terrorist! খবর পেয়ে রাজ্যে জারি সতর্কতা

Tamil Nadu-র পুলিশ রাজ্যে কড়া সতকর্তা জারি করেছে।

হাইলাইটস

  • জঙ্গি ঢুকে পড়ার খবরে কড়া সতকর্তা জারি তামিলনাডুতে
  • রেড অ্যালার্ট জারি হয়েছে কোয়েম্বাটুরে
  • হোটেল, বিমানবন্দর, রেলস্টেশন, ধর্মীয় স্থানগুলিতে কড়া নজর রাখা হচ্ছে
চেন্নাই:

রাজ্যে ঢুকে পড়েছে ছয় Lashkar-e-Taiba জঙ্গি, এই মর্মে Tamil Nadu-র পুলিশ রাজ্যে কড়া সতকর্তা জারি করেছে। এই ছ'জনের মধ্যে একজন পাকিস্তানি ও পাঁচজন শ্রীলঙ্কার অধিবাসী বলে জানা গিয়েছে। NDTV-কে এক শীর্ষ পুলিশ আধিকারিক জানিয়েছেন, ‘‘আমরা এই তথ্য পেয়েছি এবং আমাদের বাহিনীকে জানিয়ে দিয়েছি। আমরা চাই সাধারণ মানুষ পুলিশকে কোনও কিছু সন্দেহজনক ঘটতে দেখলে বা কোনও সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে দেখলে খবর দিক।'' সংবাদ সংস্থা আইএএনএস সূত্রে জানা যাচ্ছে রেড অ্যালার্ট জারি হয়েছে কোয়েম্বাটুরে, যেখানে ওই জঙ্গিরা আত্মগোপন করে রয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। কোয়েম্বাটুর ও চেন্নাইয়ের নিরাপত্তা মজবুত করা হয়েছে। হোটেল, বিমানবন্দর, রেলস্টেশন, থিয়েটার, শপিং মল এবং ধর্মীয় স্থানগুলিতে কড়া নজর রাখা হচ্ছে।

কাশ্মীর সম্পর্কে প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার মতামত আর পাঁচটা ভারতীয়ের মতোই: জাভেদ আখতার

অতীতেও কোয়েম্বাটুরে জঙ্গি হানার ঘটনা ঘটেছে। NDTV-কে চেন্নাইয়ের এক পুলিশ আধিকারিক জানিয়েছে‌ন, নিরাপত্তা মজবুত করা হয়েছে। যানবাহনের দিকে নজর রাখা হচ্ছে।

গত কয়েক মাসে জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থা NIA অন্তত ১০ জন সন্দেহভাজনকে এই রাজ্য থেকে গ্রেফতার করেছে। সন্দেহ ছিল আইসিসের মতো নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠনের সঙ্গে যোগাযোগ ছিল তাদের। তারা রাজ্যে জঙ্গি হানা চালানোর পরিকল্পনা করছিল বলে মনে করা হচ্ছিল। তবে তাদের ‌পরিবারের দাবি, এসবই সাজানো।

ধৃতদের মধ্যে অন্যতম মহম্মদ আজারুদিনকে আইসিসের তামিলনাডু শাখার প্রধান বলে মনে করা হচ্ছে। গোয়েন্দাদের ধারণা, শ্রীলঙ্কায় ইস্টারের দিন হওয়া জঙ্গি হানার সঙ্গে যোগ ছিল ওই ব্যক্তির।

গোয়েন্দারা জানতে পেরেছেন, ওই অভিযুক্তরা সোশ্যাল মিডিয়ায় আইসিসের প্রপাগন্ডার মাধ্যমে তরুণ সম্প্রদায়কে আকৃষ্ট করার কাজ করত। তামিলনাডু ও কেরলে জঙ্গি হানার পরিকল্পনার অভিযোগ দায়ের হয়েছে আজারুদিন ও বাকি পাঁচজনের উপরে।

জুলাই মাসে চেন্নাই ও মাদুরাইয়ের বিভিন্ন অঞ্চলে তল্লাশি শুরু করেন গোয়েন্দারা। একটি আরব থেকে রাজ্যে আসা ১৪জনকে গ্রেফতার করা হয়। তারা আইসিস জঙ্গি ঘাঁটি তৈরির অর্থ সংগ্রহ করছিল বলে অভিযোগ।

(তথ্য সহায়তা: আইএএনএস)