হোস্টেল নিয়ে প্রেসিডেন্সির পড়ুয়াদের প্রতিবাদ অব্যাহত

পড়ুয়াদের দাবি, তারা হিন্দু হোস্টেলে ফিরে যেতে চায়। কারণ, ওই হোস্টেলটি তাদের ক্যাম্পাসের কাছে অবস্থিত এবং তাতে তাদের সময়ও বাঁচবে।

হোস্টেল নিয়ে প্রেসিডেন্সির পড়ুয়াদের প্রতিবাদ অব্যাহত

1886 সালে প্রতিষ্ঠিত ইডেন হিন্দু হোস্টেল গত তিন বছর ধরে সংস্কারের জন্য বন্ধ রয়েছে।

কলকাতা:

কলেজ কর্তৃপক্ষ কথা দিয়েছিলেন অগস্ট মাসের প্রথম দিনটিতেই হোস্টেলের ঘর পেয়ে যাবে পড়ুয়ারা। কিন্তু, বাস্তবে তা হয়নি। গত 3 তারিখ থেকে প্রায় একশজন আবাসিক, যাদের মধ্যে অনেকেই পুরনো হোস্টেলের বাসিন্দা, নতুন করে বিক্ষোভ অবস্থান শুরু করে প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ে। পড়ুয়াদের দাবি, তারা হিন্দু হোস্টেলে ফিরে যেতে চায়। কারণ, ওই হোস্টেলটি তাদের ক্যাম্পাসের কাছে অবস্থিত এবং তাতে তাদের সময়ও বাঁচবে।

“হোস্টেলের সংস্কার সাধনের জন্য নিজেদের সেরাটা দিয়ে চেষ্টা করছি আমরা। এই বিলম্বের সমস্ত দায় আমি নিজের ঘাড়ে নিচ্ছি। যেদিন পিডব্লিউডি’র ইঞ্জিনিয়াররা আমাদের একটি নির্দিষ্ট তারিখ বলবেন, সেই দিনেই পড়ুয়াদের জন্য হোস্টেলের ব্যবস্থা করে দেব আমরা”, বলেন প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অনুরাধা লোহিয়া।

1886 সালে প্রতিষ্ঠিত ইডেন হিন্দু হোস্টেল গত তিন বছর ধরে সংস্কারের জন্য বন্ধ রয়েছে। যদিও, এর মধ্যেই পড়ুয়াদের নিউ টাউনের একটি ভবনে রাখার ব্যবস্থা করা হয়েছিল। যা, কলেজ ক্যাম্পাস থেকে প্রায় পনেরো কিলোমিটার দূরে।

কাঁধে তোষক নিয়ে ক্যাম্পাসের দিকে যাচ্ছিল এক বিক্ষুব্ধ পড়ুয়া। তাকে প্রশ্ন করা হলে তার জবাবে সে বলে, “এখন থেকে এটাই আমাদের ঘর। যতদিন না পুরনো হোস্টেল পাচ্ছি, ততদিন আমরা এখানেই থাকব”।

অনুরাধা লোহিয়ার বক্তব্য অনুযায়ী, গত তিন বছর ধরে সরকারি হোস্টেলে থেকে দিন কাটাচ্ছে প্রেসিডেন্সির পড়ুয়ারা।

তিনি বলেন, “আমরা ওই হোস্টেলেও অনেক সুযোগ সুবিধা দিয়ে থাকি, যা হিন্দু হোস্টেলে দেওয়া হত। রাজারহাটের হোস্টেল থেকে বিনামূল্যে যাতায়াত করতে পারে পড়ুয়ারা ক্যাম্পাসে আসার জন্য”।



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদিত করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে.)
More News